হ্যাকার নয় নিজেকে গড়ে তুলুন সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবে

0
866

বাংলাদেশে হ্যাকিং এর শুরু আসলে কবে তা বলা কিছুটা মুশকিল । ২০০৪ – ২০০৫ এ বাংলাদেশের এর কৌতূহলী কিছু ছেলেরা কম্পিটারের পাসওয়ার্ড হ্যাকিং করত । তারা বিদেশী বিভিন্ন ফোরাম , ইংরেজি বই টই ঘেটে বের করত হ্যাকিং এর নানা উপায় । এরপর তারা সন্ধান পায় ডার্ক ওয়েব এর , এর মাধ্যমে বিদেশী হ্যাকার দের সাথে তাদের  পরিচয় ঘটে । এরপর অনেক দুর্ধর্ষ কাজকর্ম শুরু বাংলাদেশি ছেলেপেলেরা ।

২০০৮-২০০৯ এ বিভিন্ন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিত এ হ্যাকিং বাংলাদেশ এ অনেক আলোড়ন সৃষ্টি করে । বাংলাদেশ এর তরুনরা অনেক দারুন সব কাজ শুরু করে । যদিও তারা সেসময় অনেক বেশি অনভিজ্ঞ ছিল । ২০১০ এ বাংলাদেশ এ প্রথম হ্যাকিং টিম গড়ে ওঠে । ২০১১ তে ভারতবিরোধি চেতনায় উদ্বুদ্ধ ছিল  হ্যাকাররা । এরপর থেকে বাংলাদেশ এর সাইবার স্পেস কে কারো হাত ধরতে হয়নি । বিশ্বমানের প্রোগ্রামার এর সাথে বাংলাদেশ তৈরি করে বিশ্বমানের হ্যাকার ।

hasso 899x600 পুরনো টিউন এডিটর হ্যাকার নয় নিজেকে গড়ে তুলুন সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবে

এখন বাংলাদেশ এর হ্যাকার রা কি করছেনা … হ্যাক করছে আপনার মোবাইল থেকে শুরু করে ক্রেডিট কার্ড , ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সার্ভার  আরো কত কি !! এসব কাজ চরম আনন্দদায়ক , উত্তেজনাকর , বৈপ্লবিক কিন্তু … ভালোভাবে ভেবে দেখেছেন এগুলো আসলে অপরাধ , সাইবার অপরাধ । যে কোন দেশের আইনেই আপনি অপরাধী । তাই আপনার হ্যাকিং দক্ষতাকে লাগানো উচিত কোন ভালো কাজে ।

 

এইসকল দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে পড়াশোনা করে বিভিন্ন ডিগ্রি যেমন অর্জন করা সম্ভব , ঠিক তেমনি নিজেকে একজন সিকিউরিটি রিসার্চার বা সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবেও গড়ে তোলা সম্ভব ।বহিঃ বিশ্বে সিকিউরিটি প্রফেশনাল দের ব্যাপক চাহিদা । অথচ আমাদের বাংলাদেশ এর ছেলেরা এখনও ওয়েবসাইট ডিফেস শিখতে চায় , হ্যাকিং টিম তৈরি করে , ফেসবুক আইডি হ্যাকিং শিখতে উঠেপড়ে লাগে !!!

তাই এ অবস্থা থেকে উত্তরন এর  জন্য আমাদের আশা উচিত নিয়মের ভিতরে । বাংলাদেশ এ ভালো মানের সিকিউরিটি প্রফেশনাল সংখ্যা খুবই নগণ্য । বাংলাদেশ থেকে বিদেশী বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ হল অফ ফেইম পেয়েছে এমন সংখ্যা হাতে গোনা ৮-১০ জন । অথচ এই ক্ষেত্রে অমিত সম্ভাবনা বিদ্যমান । সঠিক দিকনির্দেশনা আর চর্চা করলে এই ক্ষেত্রে বিপ্লব ঘটবে । ঠিক এখন যেমন আপনি একজন ফ্রি লান্সার হিসেবে পরিচিত হয়ে বাংলাদেশ এর নাম উজ্জ্বল করছেন । ঠিক তেমনি সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ এর নাম উজ্জ্বল করবেন ।

সিকিউরিটি প্রফেশনাল / সিকিউরিটি রিসার্চার শব্দগুলো বাংলাদেশী প্রেক্ষাপটে বেশ নতুন । বাংলাদেশের তরুন প্রজন্মের নতুন নেশা তারা হ্যাকার হতে চায় , আমরা চাই বাংলাদেশ এ নতুন একঝাক সিকিউরিটি প্রফেশনাল গড়ে উঠুক , এই প্রত্যয় নিয়ে Cybertrendz Incorporated  শুরু করছে , দেশের প্রথম ইথিকাল অনলাইন পেনেট্রেশন টেস্টার’স স্কোয়াড SQUAD ZERO
pigmee পুরনো টিউন এডিটর হ্যাকার নয় নিজেকে গড়ে তুলুন সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবে

এখানে আমরা বিদেশী / দেশি বিভিন্ন ওয়েবসাইট পেনেট্রেট করব এবং রিপোর্ট তৈরি করব । আমরা বাগ বাউন্টির জন্যও বিভিন্ন ওয়েবসাইট এর রিপোর্ট তৈরি করব । মূল কথা আমরা একটা ইথিকাল হ্যাকার দের কমিউনিটি তৈরি করতে বদ্ধপরিকর যারা ভবিষ্যৎ এ সিকিউরিটি প্রফেশনাল হিসেবে নিজেদের প্রকাশ করতে পারবে ।

যারা বর্তমানে হ্যাকার বা প্রোগ্রামিং এ দক্ষ তারা যোগ দিতে পারেন এখানে । বিস্তারিত নিয়মাবলির জন্য
http://squad0.cybertrendzinc.com

ফেইসবুক এ আমাদের অফিশিয়াল কমিউনিটিঃhttps://www.facebook.com/groups/CY133R

 
 

একটি উত্তর ত্যাগ