অসাধারণ একটি ব্যানার তৈরি করার বাংলা ‘Photoshop টিউটোরিয়াল’

7
2485
অসাধারণ একটি ব্যানার তৈরি করার বাংলা 'Photoshop টিউটোরিয়াল'

রিকন

আমি একজন ফ্রিল্যান্সার। নিজেকে প্রতিদিন আরো নতুন ভাবে আবিষ্কার করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ ফ্রিল্যান্সিং বাজারে একদিন সবার উপরে থাকবে সেই সপ্ন নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছি। ব্লগ লিখতে পছন্দ করি এবং শিখাতে ভালবাসি নতুন ফ্রিল্যান্সারদের।
অসাধারণ একটি ব্যানার তৈরি করার বাংলা 'Photoshop টিউটোরিয়াল'

আসা করি সবাই ভাল আছেন আল্লাহ্‌র রহমতে। আজকে আপনাদেরকে একটি ব্যনার তৈরি করে দেখাবো আমি। আসা করছি এই Photoshop টিউটোরিয়াল টি আপনাদের কাজে আসবে এবং ভাল লাগবে সবার। আমরা সবাই জানি, ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে অনেক ব্যানার ডিজাইনের কাজ পাওয়া যায়। দৃষ্টিনন্দন ব্যানার ডিজাইন করতে পারলে আপনিও এসব কাজ করে আয় করতে পারেন। এ সেকশনে ফটোশপে কিভাবে একটি সুন্দর ব্যানার তৈরি করা যায়, তা দেখবো।

কাজ শেষে আপনার ব্যানারটি এরকম হবে

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

অসাধারণ একটি ব্যানার তৈরি করার বাংলা 'Photoshop টিউটোরিয়াল'

 

১। প্রথমে একটা নতুন ফটোশপ ফাইল ক্রিয়েট করুন (Ctrl + N); ফাইলের width & heignt  যথাক্রমে 372px এবং 466px দিন।

২। এখন একটি লেয়াল তৈরী করুন (Shift + Ctrl + N) এবং এর নাম দিন “Background”. Foreground Color দিন #1c1c1c. এবার Paint Bucket Tool টি সিলেক্ট করুন (G) এবং ক্যানবাসে একটা ক্লিক করুন। দেখবেন ক্যানবাসটা কালো হয়ে গেছে।

৩। এবার Foreground Color কে # 27add3 তে পরিনত করুন। Rounded Rectangle Tool টি সিলেক্ট করুন এবং একে নিচের মত কাস্টমাইজ করুন। তারপর ক্যানবাসে একটা ক্লিক করুন।

৪। এবার Layer > Layer Style > Inner Glow এ গিয়ে নিচের মত করে সেট করুন।

৫। এখন আমরা নিচের ফিচার বাটনগুলো তৈরী করব। তবে এর সকল টেক্সটগুলোই আমরা পরবর্তীতে এক সাথে প্রয়োগ করব।

প্রথমে ডার্ক বাটনটা তৈরী করব। এর জন্য, প্রথমেই ফরগ্রাউন্ড কালারকে #0086ac করুন। এখন, Rectangle Tool (U) সিলেক্ট করুন এবং নিচের মত একটি সেপ তৈরী করুন (এই লেয়ারের নাম দিন: Button-1)।

৬। এখন লেয়ার পেলেট থেকে “Button-1” লেয়ারে ডাবল ক্লিক করুন এবং নিচের লেয়ার স্টাইলগুলো প্রয়োগ করুন।

৭। এখন এর নিচের বাটন তৈরী করতে হবে। এখন অবশ্য বেশী সময় লাগবে না। কারণ আমরা প্রথমটা থেকেই দ্বিতীয়টা তৈরী করতে পাড়ব। এর জন্য প্রথমটা অর্থাৎ “Button: 1” কে ডুপ্লিকেট করুন (Ctrl + J) এবং Move Tool (V) সিলেক্ট করে নতুন বাটনটিকে একটু নিচে প্লেস করুন।

৮। এখন নতুন বাটনটির লেয়ারকে সিলেক্ট করুন। এবার, Layer > Layer Style > Inner Shadow তে যান এবং একে নিচের মত সেট করুন।

৯। এখন আমরা বাটনগুলোর টেক্সট বসাব। এর জন্য Horizontal Type Tool (T) সিলেক্ট করুন এবং আপনার টেক্সটগুলো বসান। যেহেতু ব্যানারটার ব্যাকগ্রাউন্ড হালকা নীল/সেয়ান সেজন্য আমার এর সাথে মিল রাখার জন্য টেক্সট কালার সাদা নিব। এর জন্য ফরগ্রাউন্ড কালারকে আবার সাদা অর্থ্যাৎ #FFFFFF করুন। এবার আপনার টেক্সটগুলো লিখেন। আমি উদাহরণ স্বরুপ কিছু কথা লিখছি।

১০। এবার আমরা নিচে একটা সাদা সাইন-আপ বাটন তৈরী করব। এর জন্য Rounded Rectangle Tool (U) সিলেক্ট করুন এবং একে নিচের মত সেট করে, ক্যানবাসে একটা ক্লিক করুন।

১১। তারপর নতুন এই লেয়ারটিতে ডাবল ক্লিক করে নিচের লেয়ার স্টাইলগুলো এপ্লাই করুন।

১২। এবার Horizontal Type Tool (T) সিলেক্ট করে বাটনটার একটা নাম দিন। এবং এই টেক্সট লেয়ারে ডাবল ক্লিক করে নিচের লেয়ার স্টাইল প্রয়োগ করুন।

এবার আমরা তৈরী করব ব্যানারটার উপরের অংশ। তবে এর আগে এর বর্তমান অবস্থাটা দেখে নেয়া যাক।

১৩। এখন একেবারে প্রথমে আমার যে সেপটি তৈরী করেছিলাম অর্থাৎ সব শেষেরটার আগের লেয়ারটা সিলেক্ট করুন। Ellipse Tool (U) সিলেক্ট করুন এবং নিচের বৃত্তের মত একটা ডিম্বাকৃতির বৃত্ত তৈরী করুন।

১৪। এবার Layer > Layer Style > Gradient Overlay এবং একে নিচের মত সেট করুন।

১৫। এখন লেয়ারটিতে Right-Click > Create Clipping Mask এ ক্লিক করুন।

১৬। এবার আমরা এই ব্যানারে আরো সুন্দর ভাব আনার জন্য আনব। এর জন্য, একটা নিউ লেয়ার তৈরী করুন (Shift + Ctrl + N)এবং Ctrl + প্রথম সেট লেয়ালে ক্লিক করুন। দেখবে একটা সিলেকশন তৈরী হয়েছে। এখন নতুন লেয়ারটাতে ক্লিক করুন, Foreground Color #78f3ff করে, Brush Tool (B) সিলেক্ট করুন। এবার ব্রাশ সাইজ 125px করে তারপর এর Hardness: 0% করুন। এই মূহুর্তে, সিলেকশন এরিয়ার উপরের দিকে একই জায়গায় তিনটা ক্লিক করুন। অবশেষে Ctrl + D চেপে সিলেক্ট এরিয়াটাকে ডিসিলেক্ট করুন।

১৬। তারপর, আরো কিছু টেক্সট এড করতে হবে। এর জন্য Horizontal Type Tool (T) সিলেক্ট করে “Basic” টাইপ করুন। এর জন্য, ফরগ্রাউন্ড কলারকে অবশ্যই #00a2b6 করে রাখবেন।

এবার, Layer > Layer Style > Inner Glow এবং একে নিচের মত করে সেট করুন।

১৭। এখন, Basic Text Layer কে ডুপ্লিকেট করুন (Ctrl + J) এবং একে Move Tool (V) এর সাহায্যে নিচে প্লেস করুন। তারপর এর লেখাকে পরিবর্তন করুন “per month” এর মাধ্যমে, সেই সাথে ফন্ট সাইজও কিছু কমিয়ে নিন (23pt)। এবার, Layer Style থেকে Inner Glow এর কালার #002632 করে দিন।

১৮। এখানে আমরা কিন্তু একটা টেক্সট মিস্ করে এসেছি। তা হল প্রাইস। প্রাইসটা এখন আমরা লিখব। এর জন্য Horizontal Type Tool (T) এর সাহায্যে $20 লিখুন, $ টেক্সটাকে 20 থেকে আলাদা করে লিখুন। অর্থ্যাৎ দুইটা টেক্সট লেয়ারে লিখুন এবং 20 টেক্সট এর সাইজ একটু বড় রাখুন।

১৯। এখন, 20 টেক্সট লেয়ারে ডাবল ক্লিক করুন এবং নিচের লেয়ার স্টাইলগুলো এপ্লাই করুন।

২০। এবার, 20 টেক্সট লেয়ারে Right-Click করে Copy Layer Style এ ক্লিক করুন। তারপর $ লেয়ারে Right-Click করে Paste Layer Style এ ক্লিক করুন। এর ফলে আমাদের দুটি লেয়ারেই একই ইফেক্ট পড়বে।

এবং সেই সাথে আমাদের প্রজেক্টেরও সমাপ্তি ঘটল। নিচে খেয়াল করে দেখুনতো আপনার ফাইনাল রেজাল্টটাও কি আমারটার মত হয়েছে?

এবার জেনে নিন কিছু কথা যার মাধ্যমে আপনি আপনার স্কিল ‍বৃদ্ধি করবেন।

১। আপনি প্রতিটা স্টেপ ভালভাবে বুঝে নিন।

২। একটা ইফেক্ট প্রদানের পর আপনার মূল ইমেজের যে পরিবর্তন হয় তার দিকে লক্ষ্য রাখুন এবং ইফেক্টটার কাজ বুঝার চেষ্টা করুন।

৩। একটা টিউটোরিয়াল শেষ করে বসে থাকবেন না। বার বার চেষ্টা করুন। নিজে নিজে কিছু তৈরী করার চেষ্টা করুন।

৪। আরো এডভান্স টিউটোরিয়ালের জন্য বিভিন্ন ইংরেজী টিউটোরিয়াল পড়ুন।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

7 মন্তব্য

  1. নিয়মিত লিখব তবে মন্তব্য কম দেখে শক্তি হারিয়ে যায় । ধন্যবাদ সবাইকে মন্তব্য করার জন্য।

  2. আমার এই বিষয়ে খুব আগ্রহ ছিল
    অনেক ভাল লিখেছেন ভাইয়া

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen − 7 =