কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন?

12
508

আপনারা হয়তো অনেকেই কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন? Blog.Dueza.Com কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন?ভাবতেছেন যে, কেন আপনি গুগোল এডসেন্স করবেন বা কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন? একটু সময় ব্যায় করে জেনে নিন গুগোল এডসেন্স করার কারণ গুলো।

খুবই সহজে গুগোল এডসেন্সে একাউন্ট খোলা যায়:
অন্য যেকোনো বিজ্ঞাপনদাতার চেয়ে গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া অনেক সহজ। এডসেন্সের জন্য একাউন্ট খোলা এতই সহজ যে আমরাই ওদের নিয়মের তোয়াক্কা করি না আর দোষ দেই যে গুগল এডসেন্সের একাউন্ট খোলা অনেক কঠিন। মনে রাখতে হবে যে, নিয়ম মেনে আবেদন করলেই গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া যায়।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

ব্লগের লেখার বিষয়ের উপর বিজ্ঞাপন দেখায়:
আপনার ব্লগটি যেই বিষয়েরই হোক না কেন গুগল ঠিক সেই বিষয়েরই বিজ্ঞাপন দেখাবে। আপনার ব্লগের গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপনে ক্লিক পেতে এই বিষয়টি খুবই জরুরী। আপনার ওজন কমানোর ব্লগে যদি বিজ্ঞাপনদাতা খেলার বিজ্ঞাপন দেখায় তাহলে কি পাঠকেরা আপনার ব্লগের বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবে? না করবে না। এ বিষয়ে গুগল এডসেন্স সবার সেরা।

খুব সহজে পছন্দমতো বিজ্ঞাপন বসানো যায়:
আপনার সাইটের ডিজাইন যেমনই হোক না কেন, নানা রকম সাইজের টেক্সট, ইমেজ কিংবা ভিডিও বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে আপনি রং, ফন্ট পরিবতন করে গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন ঠিকই সাইটের সাথে মানিয়ে নিতে পারবেন।

প্রতি ক্লিকেই টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা বিজ্ঞাপন দেবার আগে বলে দিবে যে নিদির্ষ্ট কিছু দেশ কিংবা এলাকা থেকে ক্লিক পড়লেই কেবল ক্লিক প্রতি টাকা দেয়া হবে। কিন্তু গুগল এডসেন্সের বেলায় এমনটি কখনো ঘটে না। পাঠক যেকোনো দেশ, যেকোনো অঞ্চল থেকেই হোক না কেন, সঠিকভাবে ক্লিক পড়লেই আপনি ইনকাম পাবেন।ভুলেও আপনি আপনার নিজে বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবেন না কিংবা কাউকে ক্লিক করতে উৎসাহিত করবেন না। তাহলে গুগল আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দিবে।

প্রতি ক্লিকে ভালো আয়ের হার পাওয়া যায়:
গুগল এডসেন্সের প্রতি ক্লিকে আয়ের হার অন্য যেকোন বিজ্ঞাপনদাতার আয়ের হারের চেয়ে বেশি হয়ে থাকে। বিষয়ের উপর নির্ভর করে ক্লিকে আয়ের হারও উঠা নামা করে। কিণ্ডু ব্লগিংয়েই তুলনামূলকভাবে আয় বেশি করা যায়।

যেকোনো বিষয়েরই উপর বিজ্ঞাপন দেখানো সম্ভব:
খেলাধূলা হোক আর চায়ের ব্লগ হোক, গুগল যেন যেকোনো বিষয়েই বিজ্ঞাপন দেখাতে পারে। তাই এডসেন্স ব্যবহারের সময় এই বিষয়ে কোনো চিন্তা করতে হয় না, কোড বসালেই গুগল বিষয় ভিত্তিক বিজ্ঞাপন দেখায়।

সঠিক সময়ে টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা প্রতি ৪৫ দিন কিংবা ৬০ দিনে পেমেন্ট করে। কিন্তু প্রতিমাসে ১০০ ডলার / ৬০ পাউন্ড হলেই ৩০ দিন পর গুগল চেক ইস্যু করে। কোনো ধরনের তালবাহানা কিংবা দেরি হয় না।

গুগলের সাথে প্রতারণা না করে নিয়ম মেনে কাজ করলে গুগল এডসেন্স হতে পারে ব্লগ থেকে আয়ের অনন্য উপায়। তবে মনে রাখবেন, ভালো ভাবে শিখতে পারলে গুগল এডসেন্স হতে পারে আপনার জীবনের জন্য একটা সম্পদ

>>>>>টিউন টি পূর্বে Blog.Dueza.Com এ প্রকাশিত<<<<<

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

12 মন্তব্য

  1. free download এর জন্য কি গুগোল এডসেন্সে কোন ওয়েব সাইট কে টাকা দেয় ??? plzz tell me .

  2. দারুন !!!!!!!!!তবে এডসেন্স ফেক ক্লিক কিভাবে সনাক্ত করে ? জানা থাকলে সেয়ার করবেন প্লিস ।

    • সুন্দর প্রশ্ন. আমার মনে হয় Google এত স্ট্রং Software যে, কোন এলাকায়, কোন PC থেকে কি হারে ad -এ ক্লিক পরে তা trace করে সনাক্ত করে. কারণ genuine click rate এর একটা standard মাত্র আছে.
      http://mathema-tricks.blogspot.com/

  3. ভাই এই নিয়া অনেক বার google adsence খোলার চেষ্টা করসি কিন্তু সবসময় বার্থ হইসি ……. আপনি কিভাবে সহজ উপায়ে google adsence খোলা যায় তা স্কিনশট সহ বিস্তারিত একটা পোস্ট লিখেন …. সবার নিকট আবেদন কেও যদি এটা জেনে থাকেন তাহলে প্লিজ এইটা নিয়ে একটা টিউন করবেন ………..

  4. এডসেন্সে একাউন্ট খোলা নিয়েও একটা tune চাই.
    অনেক অনেক ধন্যবাদ সুন্দর পোস্টটির জন্য.

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten − 1 =