হ্যাক করুন ওয়েবসাইট with Denial of service!!!!!!!!!!!!!!!!(DDos)

13
643

এই টিউটোরিয়ালের জন্য আমরা এক সবচেয়ে কার্যকর এবং অন্তত একটি ব্যবহার করা হবে পরিচিত সরঞ্জাম নাম “Low Orbit Ion Cannon”,
এই টুল অজ্ঞাতপরিচয় সদস্যদের দ্বারা নির্মিত (Anonymous members from 4chan.org,)
এই প্রোগ্রামের জন্য শ্রেষ্ঠ DDoS’ing. Black Hat with the Philippine Hackers সাফল্যের সাথে DDoS ওয়েবসাইটসমূহের সাথে এটি ব্যবহার করছে। তবে ভাই
ক্ষতি করনা কারও । যাদের ইন্টারনেট সংযোগ ভাল না একটি সাইট একদিন বন্ধ রাখার জন্য এই প্রোগ্রাম সঙ্গে করতে সাহায্য করবে । পার ত পর্ন সাইট গুলা বন্ধ কর।
এথিকাল হ্যাক কর।Remember that this tool will work best with high internet speeds, and try not to go for impossible targets (like Google, Myspace,Yahoo). LOIC is used on a single computer, but with friends it’s enough to give sites a great deal of downtime.
Download LOIC (Low Orbit Ion Cannon) _ http://www.ziddu.com/download/9216357/LowOrbitIonCannon.zip.html
ধাপ 1: একটি প্রকার URL-বক্সে লক্ষ্য URL(Type the target URL in the URL box.)
ধাপ 2: একটি ক্লিক করুনlock on.
ধাপ 3: একটি 9001 থেকে সর্বোচ্চ দক্ষতার জন্য থ্রেড পরিবর্তন.(Change the threads to 9001 for maximum efficiency.)
ধাপ 4: বিগ বাটন ক্লিক করুন ” IMMA FIRIN MAH LAZAR!”loc হ্যাক করুন ওয়েবসাইট with Denial of service!!!!!!!!!!!!!!!!(DDos)
Feel free to tweak around with these settings and play around with the program to get the best performance. Then minimize and go do whatever you need to do, the program will take care of the rest।
মিনিমাইজ করে আপনি অন্ন কাজ করতে পারবেন। তবে এক টা কথা antivirus এটাকে ট্রজান বলে ধরবে তাই antivirus disable করে ব্যবহার করুন ইন্টারনেট স্পীড বেসি থাকলে ভাল কাজ করবে ইনশাআল্লাহ।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

13 মন্তব্য

  1. হ্যাকিং একটি সুক্ষ বিষয় , তাই একটু স্কিন সর্ট দিলে অসাধারণ হত ।

  2. ভাই ডিডস কবে থেকে হ্যাকিং এর মধ্যে গেলো? এই টাকে অ্যান্টিভাইরাস ভাইরাস হিসাবে ধরলেও সেটার সাথে নেট স্পিডের কোন সম্পর্ক নাই। তাই অ্যান্টিভাইরাস ডিজাবল করে দিলে বেশি নেট স্পিড পাবেন এমন কোন কথা নাই। ডি ডস একটা ফ্লাডিং টুল। এটার মাধ্যমে ওয়েব সার্ভার এর প্রচুর পরিমান হেডার রিকোয়েষ্ট পাঠানো হয়। যার পরিনাম সার্ভার ওভারলোড হয়ে যায়। একজন ব্যবহার কারীর একার অ্যাটাকে একটা ওয়েব সাইটের কিছু হবে না। লো কোয়ালিটি সার্ভার বেজ সাইট ডাউন এর জন্য কমপক্ষে ৫০-৬০ জন লাগবে। আর ডিডস এর পিসি ভার্সন অনেক আগে থেকে ব্যবহার করা বন্ধ হয়ে গেছে। এখন সবাই অনলাইন ভার্সন ব্যবহার করে,

    • অরিত্র ভাই আমি আপনার সাথে একমত. এটা দিয়া নেট স্পীড ভালো থাকলে একাই websitedown করার জন্য যথেষ্ট.(2500kb /স)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 + 16 =