DLS 36: ।। কিছু ভুল কিছু ভালোবাসা ।।

1
322
DLS 36: ।। কিছু ভুল কিছু ভালোবাসা ।।

ফুসকাওয়ালী

World Wide Web পাঠশালা মোর,
সবার আমি ছাত্র,
টিউনারপেজে আমি শিখছি দিবারাত্র,
চেনে আমায় কেউ, বোঝেনা কেউ,
তবুও . . . . . .
টিউন করে যাই,
আপন মনে,
DLS 36: ।। কিছু ভুল কিছু ভালোবাসা ।।

শান্তর এলোমেলো ভবঘুরে জীবনটা এখন এতই আশান্ত যে, বাইরে বেরুনোর সময় জামা পরেছে কিনা, সে খায়ালটাও থাকেনা ! হয়ত গোসল করেছে একঘন্টা আগে কিন্তু মাথা মুছতে মনে নেই ! ভিজে চুলগুলো থেকে টপ্‌টপ্‌ পানি পড়ে জামা ভিজে যাচ্ছে !

গতকাল তো করেছিলা আরেক মজার কান্ড । জিন্সের প্যান্টের সাথে টি-শার্ট ইন করে বাইরে বেরিয়েছিল । কিছুদূর হাটার পর খেয়াল করল, কোন জুতোই পরেনি । তখন বেচারার সে কি অবস্থা ! একবার নিজের পায়ের দিকে তাকায়, আরেকবার আশে-পাশের লোকজনের দিকে । নাহ ! কেউ দেখেনি বোধহয় ! ঢাকা শহরে কে কার পায়ের দিকে আর খেয়াল রাখে ।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

মাস খানেক ধরে ঘূর্ণিঝড়ে পড়ে গতিপথ হারিয়াছে শান্তর জীবন । এলোমেলো ভাবে, অশান্তভাবে চলছে তার দিন-রাতের প্রতিটি মুহুর্ত।

জ়ীবনের প্রথম ঘূর্ণিঝড় । আগেও দু’তিন বার ঝড়ের কবলে পড়েছে, কিন্তু তাতে কাবু হয়নি । এবার আর শেষ রক্ষা হলোনা । ঝড়ের তীব্রতা ছিল প্রচন্ড । ডালপালা ভেঙে একেবাড়ে নুইয়ে পড়েছে ।

ঝড়ের নাম শারমিন । শারমিন ঝড়ের কবলে পড়ে এখন সে আকাশে উড়ে বেড়াচ্ছে ডানা ছাড়াই ।

একটা মেয়ের ভালোবাসার তীব্রতা যে কতো কঠিন হতে পারে, সে সম্পর্কে শান্তর কোন ধারনাই ছিল না । শুরু থেকেই শারমিনের কথা বলার ধরন এবং তার আবেদনের উপস্থাপনা গুলো এত চমৎকার ও চমকপ্রদ ছিল যে, শান্ত একটি বারের জন্য না শব্দটা উচ্চারণ করার সুযোগই পাইনি ।

আজ উনিশ তারিখ । গত মাসের উনিশ তারিখ থেকে ঘটনা শুরু । প্রথমে পরপর কয়েকটি মিস্‌কল । তারপর সরাসরি কল।

রাত একটায় রাজ্যের সমস্ত বিরক্তি নিয়ে ফোন রিসিভ করলো শান্ত । ওপাশ থেকে চিকন কন্ঠের গোছানো শব্দ তরঙ্গ আসতে থাকলো-

– হ্যালো, আমি শারমিন । মিরপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে অনার্স পড়ি । আপনাকে মাঝে-মাঝে বিরক্ত করবো । আপনি নিষেধ করলেও করবো । অপনার নামটা বলবেন ?

এভাবেই শুরু । তারপর থেকে কথা চলতে থাকল প্রতিদিন ।

শারমিন একদিন বলল, একতরফা প্রতিদিন শুধু আমিই ফোন করছি । আপনার কাছ থেকে কি ফোন আশা করতে পারি না?

– আমি একজন কমপ্লিট বেকার । আমার পক্ষে মোবাইলে এভাবে আর্থ আপচয় করা সম্ভব না ।
– আমি যদি আপনার মোবাইলে টাকা পাঠাই, তবে কি সম্ভব ?
– আপনি কেন সেটা করবেন ? তাছাড়া আপনার কি ইনকাম আছে ? মেয়ে হয়ে এত টাকা পাবেন কোথায় ?
– আমি টাকা কোথায় পাব সেটা আমার ব্যাপার । আর আমাকে এটা করতে হবে; কারন, আমার বর্তমান চিন্তা-ভাবনা গুলো আপনাকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছে ।
– হ্যালো, শারমিন, সত্যি করে বলেন তো, আপনি আসলে কি চান আমার কাছে ? আপনার উদ্দেশ্য কি ?
– আপনার ইচ্ছা । আপনি যেটা বলবেন, সেটাই হবে ।
– তার মানে ? আপনি কি বোঝেন, একটা মেয়ে হয়ে কতবড় বিপদজনক কথা আপনি বলছেন ?
– আমি এতকিছু বুঝতে চাই না । আমি শুধু একটুখানি নির্ভেজাল ভালোবাসা চাই । একজন মনের মানুষ চাই, যাকে সমস্ত না বলা কথাগুলো বলতে পারি । একটুখানি নির্ভরতা চাই । চাই ছোট্ট একটা ঠিকানা, যেটাকে অবলম্বন করে অন্তত বেচে থাকতে পারি । বিনিময়ে আপনি যা খুশি, যখন খুশি, যেভাবে খুশি আমার কাছ থেকে নিতে পারেন । আপনি আমাকে এখনও দেখেননি । তাই অহংকার না করেই বলছি, আমি যতেষ্ট সুন্দরী এবং আমার টাকারও কোন অভাব নেই । অভাব শুধু একটু ভালোবাসার । কথা বলার মতো একজন মানুষের । আমার জীবনটা একটা ভুল সিদ্ধান্তের শিকার । আমি বাঁচতে চাই শান্ত । আমাকে ফিরিয়ে দেবেন না, প্লিজ !

এক নাগাড়ে কথাগুলো বলে ফেলল শারমিন । শান্ত চুপ হয়ে গেল, মুখে কোন কথা নেই । কিংকর্তব্যবিমূঢ় !

– হ্যালো । হ্যালো, শান্ত ? কিছু বলছেন না যে ?
– আমি আপনার সাথে সরাসরি কথা বলতে চাই ।
– একটা শর্তে রাজি, তুমি করে বলতে হবে ।
– আচ্ছা ।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen + 19 =