Digital Love Segment 24: ।। ভীড়ের মাঝে একা ।।

4
269

জানুয়ারী’১১, মেয়েটি সকালে মা’র বকা খেয়ে চোখ কচলে উঠে বসলো। “মা, তুমি না বড্ড বেরসিক। একটু ঘুমুতেও দাও না’’ মা মুচকি হেসে নাস্তা আনতে গেলেন। একচোখ খোলা অবস্থায় সে FACEBOOK এ LOG IN করল। INBOX এ ১টি মেসেজ, ‘hello’। অদ্ভুত নামের এক ছেলের TEXT। উত্তর না দিয়ে sign out করল। রাতে আবার মেসেজ ‘এত attitude?’ মেসেজ এর জবাব না দিয়ে পারা গেল না। এভাবেই পরিচয়।

একের পর এক মেসেজ। বন্ধুত্বটা গাঢ় হল। ছেলেটি মেয়েটিকে একসময় ভালবেসে ফেললো। মেয়েটি ভীষন পাজি। বুঝেও বুঝতে চায় না। এক সপ্তাহ পর ছেলেটি বলল, ‘দেখা করবে?’ মেয়েটি রাজি। দুষ্টুমি করা যাবে খুব করে।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

‘RIFFELS SQUARE’ এর সামনে একটি PILLAR এ হেলান দিয়ে মেয়েটি দাড়িয়ে। অপেক্ষা করতে একটুও ভালো লাগে না তার। একের পর এক TEXT ‘কোথায় তুমি’… ‘তোমার পাশে, তোমায় দেখছি’। আচমকা ঘুরে দাড়ালো মেয়েটি, অসম্ভব সুন্দর হাসি নিয়ে ছেলেটি দাড়িয়ে। সব দুষ্টুমি যেন লজ্জায় মোড় নিল। কথায় কথায় ছেলেটি বলে ফেলল ‘তোমায় ভালোবেসে ফেলেছি। ফিরিয়ে দিবে নাতো?’ মেয়েটি সময় চাইলো। অনেক ভেবে কিছুদিন পর মেয়েটি হ্যাঁ বলল।

সব ঠিকঠাক ছিল। সবাই বলত ‘BEST COUPLE’। মেয়েটি ছেলেটিকে এক সময় এত ভালোবেসে ফেলে যে তার সাথে থাকতে SCHOLARSHIP DROP করে দিলো। মাঝে মাঝে কথা…রাত জেগে গল্প…একজন অন্যজন কে SUPPORT করা…দিনগুলো স্বপ্নের মত কেটে যেত। প্রতিটি দেখা ছিল নতুন আনন্দের সূচনা। প্রতিবারই যেন নতুন করে দেখা।

পহেলা বৈশাখ…ছেলেটি বলল… ‘শাড়ি পরে আসবে।তোমার জন্য SURPRISE আছে’। দেখা হল। অবাক হয়ে তাকিয়ে রইল। তারপর হঠাৎ একটি আংটি বের করে মেয়েটিকে হতভম্ভ করে দিল। আংটি পরিয়ে মেয়েটিকে একতোড়া রক্তলাল গোলাপ দিয়ে বলল ‘তোমার খুব পছন্দের,তাই না?’ রূপকথাও যেন এতটা আনন্দের নয়। বন্ধুরা অবাক বনে যেত তাদের দেখে…এতটা ভালো বোঝাপড়া ছিল!!

‘অন্ধকারকে খুব ভয় পাই আমি’ মেয়েটি বলল। ‘চিন্তা করো আমি আছি’। ‘অত উঁচুতে উঠলে তো পড়ে যাব’… ‘পড়বে না, তোমায় ধরে আছি’ ছেলেটি বলল। মেয়েটিও তার সব কথা বিশ্বাস করতো।

কিন্তু ৪মাস পরে ছেলেটা অনেক বদলে গেছে। একটু্তে রাগ, ঝগড়া আবার ঠিকও হয়ে যায়। কাণ্ণা হাসি নিয়া দিন যায়। ৭মাস পরে ছেলেটা হঠাৎ বলল ‘আমি এই RELATION সামলাতে পারছিনা। আমায় একা থাকতে দাও’। মেয়েটা যে এমনটি আশা করেনি। তার পুরো জীবন যে এখন ছেলেটিকে নিয়ে। তার কান্নার ভাবান্তর হয় না ছেলেটির মাঝে। কিছুদিন পরে মেয়েটি জানতে পারে যে ছেলেটি তার পুরোনো GIRLFRIEND এর সাথে যোগাযোগ করে। ছেলেটি বুঝতে পারে না কাকে সে চায়। তারপর একদিন মেয়েটাকে বলে ‘আমাদের BREAK UP করা উচিৎ’। কিছুদিন চেষ্টা করে মেয়েটা বুঝে, সবই ছেলেটার মোহ। ভেঙ্গে যায় সম্পর্কটি। আজ ৪টি মাস হল। মেয়েটি কিন্তু আজ়ও তাকে ভালবাসে। আজও বালিশে মুখ লুকিয়ে কাঁদে। কেউ সে কান্না দেখে না। রক্তলাল গোলাপগুলো এখন সে ঘৃণা করে, কারণ গোলাপগুলো যে তাকে বড্ড বেশি কাঁদায়..আজ আর কাউকে বিশ্বাস করতে পারেনা। ভীড়ের মাঝে আজও একা সে।

হ্যাঁ……মেয়েটি আমি।

লিখেছেনঃ Anika Nawar Wahid

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

4 মন্তব্য

    • ধন্যবাদ আপনার উত্তর এর জন্য ।

      আপনার জন্য সুভকামনা রইল আপু । :)

  1. এইটা কি আপনার নিজের কাহিনি বললেন নাকি কোন বই এর কপি কারন লেখা টা অনেক ভাল হইসে ??

    আর এইটা কি সত্যি ঘটনা ??

    জানালে খুসি হব ।

মন্তব্য দিন আপনার