স্মার্টফোনের প্যাটার্ন লক ভুলে গেলে কীভাবে খুলবেন জেনে নিন

0
659

অনলাইন ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// অ্যান্ড্রয়েড ফোনের প্রাইভেসির জন্য আমরা অনেকেই প্যাটার্ন লক ব্যবহার করে থাকি। তবে এই প্যাটার্ন ভুলে গেলে দুর্ভোগের শেষ থাকে না।
এ সমস্যা সমাধানের জন্য মোবাইল ফোন রিসেট কিংবা কাস্টমার কেয়ারে যাওয়া ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না। এক্ষেত্রে তিন ভাবে আপনি প্যাটার্ন লক উদ্ধার করতে পারেন।

স্মার্টফোনের প্যাটার্ন লক ভুলে গেলে কীভাবে খুলবেন জেনে নিনপ্রথম প্রক্রিয়াতে আপনাকে যা করতে হবে
এক্ষেত্রে আপনি যখন প্যাটার্ন ভুলে যাবেন তখন যে কোন একটি প্যাটার্ন দিলেই ডিভাইস আপনাকে বলবে আপনার দেয়া প্যাটার্ন ভুল। এক্ষেত্রে আপনি ‘Forgot pattern” অপশন সিলেক্ট করুন। নিচের মত স্ক্রিন দেখতে পাবেন।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

এবার আপনার স্ক্রিনে একটি ইমেইল বক্স এবং পাসওয়ার্ড বক্স আসবে। এখানে আপনার ডিভাইসে যে ইমেইল আইডি দিয়ে আপনি ইন্টিগ্রেটেড করেছিলেন সেই আইডি এবং তার পাসওয়ার্ড দিলেই হয়ে যাবে। আপনাকে নতুন একটি প্যাটার্ন কোড দেয়া হবে সেই কোড দিয়েই আপনি ডিভাইস আনলক করতে পারবেন।

দ্বিতীয় প্রক্রিয়া
এই প্রক্রিয়াতে আপনাকে আপনার ডিভাইসের কাস্টম রিকভারীতে গিয়ে কাজ করতে হবে। এজন্য আপনার ডিভাইসে কাস্টম রিকভারি মুড থাকতে হবে। সাথে Aroma File Manager টি ডাউনলোড করা থাকতে হবে। এটি ডাউনলোড করুন এখান থেকে।
ফাইল ম্যানেজারটি ডাউনলোড করুন, এক্সট্র্যাক্ট করবেন না।

১.অ্যারোমা ফাইল ম্যানেজারটি স্মার্টফোনের মেমরী কার্ডে প্রবেশ করান। মেমরী কার্ডের কোন ফোল্ডারে রাখবেন না, ফাইলটি মেমরী কার্ডের রুটে রাখুন।
২.আপনার ফোনটি রিকভারীতে রিবুট করুন।

৩.CWM এর ক্ষেত্রে, সবগুলো পার্টিশন মাউন্ট করুন, এমনকি আপনার যদি কোন sd-ext পার্টিশন থেকে থাকে তবে সেটিও মাউন্ট করুন। এবং এরপর ফাইলম্যানেজারটি ফ্ল্যাশ করুন। ফ্ল্যাশ করার সাথে সাথে দেখবেন ফাইল ম্যানেজারের একটি গ্র্যাফিক্যাল ইউজার ইন্টারফেস চলে এসেছে। এখন, /data/system – এ প্রবেশ করুন। এক্ষেত্রে, আপনার যদি কোন sd-ext পার্টিশন থেকে থাকে তবে /sd-ext/system – এ প্রবেশ করুন।
আপনি একটি gesture.key নামের ফাইল দেখতে পারবেন, মুছে দিন। আর যদি আপনি পাসওয়ার্ড মুছে দিতে চান তবে password.key মুছে দিন। ব্যাস হয়ে গেল।

তৃতীয় প্রক্রিয়া
এক্ষেত্রে আপনাকে যা করতে হবে তা হচ্ছে আপনার ডিভাইস ফ্ল্যাশ করতে হবে। এতে করে ডিভাইসে থাকা বাড়তি সব অ্যাপ যা আপনি ইন্সটল করেছেন মুছে যাবে, তবে আপনার সেটাপ করা প্যাটার্নটি আর থাকবে না।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × 1 =