Walton Primo H6+ এর হ্যান্ডস-অন রিভিউ, আছে ৩জিবি র‍্যাম ও অ্যান্ড্রয়েড নউগ্যাট

By | 17/06/2017

হ্যালো টিউনারবৃন্দ,
বর্ষাকালে সবাইকে কদমফুলের শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের টিউন, যা সাজিয়েছি অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নউগ্যাট অপারেটিং সিস্টেমের Walton Primo H6+ এর ইউজার এক্সপ্রেরিয়েন্স নিয়ে।
১১৯৯০ টাকা দামের এই ফোনে আছে ৫.৫ ইঞ্চি ২.৫ ডি কার্ভ ডিসপ্লে, কোয়াডকোর প্রসেসর, ৩ গিগাবাইট র‍্যাম প্রভৃতি। এই ফোনে আরও আছে ১৩ মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক্যামেরা, এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা, ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ১৬ গিগাবাইট রম প্রভৃতি।
Primo H6+ hands-on
একনজরে Primo H6+ এর উল্লেখযোগ্য ফিচারসমূহ-

  • ১৩ মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক্যামেরা
  • ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • নউগ্যাট অপারেটিং সিস্টেম
  • ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রসেসর
  • ৩ গিগাবাইট র‍্যাম
  • মালি-টি৭২০ জিপিউ
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর
  • ৫.৫ ইঞ্চি ২.৫ ডি কার্ভ ডিসপ্লে
  • ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি

Primo H6+ hands-on
আনবক্সিং:
Primo H6+ এর বক্সে আছে-

  • ডাটা ক্যাবল
  • চার্জার অ্যাডাপ্টার
  • ইউজার ম্যানুয়াল
  • ওয়ারেন্টি কার্ড
  • সিম ইজেক্টর পিন
  • ইয়ারফোন

Primo H6+ Unboxing
অপারেটিং সিস্টেম ও ইউজার ইন্টারফেসঃ
এতে অ্যান্ড্রয়েডের লেটেস্ট ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নউগ্যাট ব্যবহৃত হয়েছে।
Primo H6+ os
এই ফোনের ইউজার ইন্টারফেস-
Primo H6+ User Interface
ডিসপ্লে:
Primo H6+ এ ৫.৫ ইঞ্চি ২.৫ডি কার্ভ ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে, যার রেজ্যুলেশন ১২৮০x৭২০ পিক্সেল।
Primo H6+ display
ডিজাইন ও বিল্ড কোয়ালিটিঃ
Primo H6+ এর ডিজাইন চোখে পড়ার মতো, এর ভলিউম কী ও পাওয়ার কী উভয়ই একপার্শ্বে দেওয়া হয়েছে। এই ফোনের রেয়ার ক্যামেরা, এলইডি ফ্ল্যাশ রয়েছে পেছনের অংশে আর ইউএসবি পোর্ট ও স্পিকার রয়েছে নিচের দিকে।
Primo H6+ hands-on
এই ফোনের সামনের দিকে উপরের অংশে আছে ফ্ল্যাশলাইট, ফ্রন্ট ক্যামেরা, প্রক্সিমিটি সেন্সর ও নোটিফিকেশন লাইট আর নিচের দিকে ৩টি বাটন।
Primo H6+ front
এই ফোনের ৩.৫ মিলিমিটার অডিও পোর্টটি রয়েছে উপরের দিকে আর সিম স্লটটি বাম দিকে। ১৫৪.৪ মিলিমিটার উচ্চতার Primo H6+ প্রস্থে ৭৮.৭ মিলিমিটার আর এর পুরুত্ব মাত্র ৯.১ মিলিমিটার। ব্যাটারিসহ এই ফোনের ওজন ১৯০ গ্রাম। এর রেয়ার ক্যামেরার নিচের দিকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর বিদ্যমান।
Primo H6+ front
স্টোরেজঃ
১৬ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজের এই ফোনে ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত এক্সটারনাল মাইক্রো-এসডি কার্ড ব্যবহার করা যায়, পাশাপাশি এতে রয়েছে ৩ গিগাবাইট র‍্যাম।
Primo H6+ hands-on memory
ক্যামেরা পারফরম্যান্সঃ
BSI সেন্সরযুক্ত ১৩ মেগাপিক্সেল রেয়ার ক্যামেরাবিশিষ্ট এই ফোনের ক্যামেরায় অটোফোকাস, টাচ ফোকাস, প্যানোরোমা, ফেস বিউটি প্রভৃতি ফিচার বিদ্যামান। এতে সুন্দর ছবি তোলা যায়।
এই ফোনের ক্যামেরা ইন্টারফেস ও সেটিংস–
Primo H6+ camera settings
Primo H6+ এর ক্যামেরায় তোলা ছবিঃ
Primo H6+ camera sample
Primo H6+ camera sample 2
Primo H6+ camera sample 3
এই এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকায় স্বল্প আলো কিংবা অন্ধকারেও ভালো সেলফি ওঠে
Primo H6+ front camera sample
প্রসেসর, চিপসেট ও জিপিউঃ
Primo H6+ এ রয়েছে ১.৩ গিগাহার্টজ গতির কোয়াডকোর প্রসেসর, আর এতে মিডিয়াটেকের MT6737 চিপসেট ও মালি-টি৭২০ জিপিউ ব্যবহৃত হয়েছে।
Primo H6+ cpu chipset
অডিও ও ভিডিওঃ
মিড-রেঞ্জের এই ফোনের সাউন্ড কোয়ালিটি মোটামুটি মানের।
Primo H6+ video review
এতে ১০৮০ পি ফুল এইচডি ভিডিও কোন ধরণের ল্যাগ ছাড়াই প্লে করেছি।
Primo H6+ video review
গেমিং পারফরম্যান্স:
কোয়াডকোর প্রসেসর ও ৩ গিগাবাইট র‍্যামবিশিষ্ট Primo H6+ এর গেমিং পারফরম্যান্স এই ফোনে বিভিন্ন ধরণের এইচডি গেম বেশ স্মুথলি খেলা যায়। এই ফোনে ব্লাড গ্লোরী, ক্ল্যাশ রয়্যাল ইত্যাদি জনপ্রিয় গেম অনায়াসেই খেলতে পেরেছি।
Primo H6+ hands-on gaming performance
/>
বেঞ্চমার্ক:
বেঞ্চমার্ক যাচাইয়ের জনপ্রিয় অ্যাপ AnTuTu তে এর স্কোর এসেছে ২৮০১৬; অন্যদিকে GeekBench এ এর স্কোর এসেছে ৫১৭ (সিঙ্গেল-কোর) ও ১৩৬৮ (মাল্টি-কোর)
Primo H6+ antutu benchmark
বেঞ্চমার্ক যাচাইয়ের আরেক অ্যাপ Nenamark এ Primo H6+ এর স্কোর এসেছে ৫৪.৪
Primo Primo H6+ hands-on review Nenamark Score
সেন্সর:
Primo H6+ এ ফিঙ্গারপ্রিন্ট, অ্যাক্সিলেরোমিটার, লাইট, প্রক্সিমিটিসহ মোট ১২টি সেন্সর বিদ্যমান।
Primo H6+ Color কানেক্টিভিটি:
এই ফোনে ফোরজি, ব্লুটুথ ৪.০, ওয়াইফাই, ওয়্যারলেস হটস্পট প্রভৃতি কানেক্টিভিটি সুবিধা রয়েছে। আরও আছে জিপিএস, এ-জিপিএস প্রভৃতি সুবিধা। এতে আরও আছে ডুয়েল সিম সুবিধা। উল্লেখ্য, এই ফোনের উভয় স্লটেই থ্রিজি ও ফোরজি সুবিধা উপভোগ করা যায়।
ব্যাটারি:
৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের Primo H6+ এ ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম-পলিমার ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়েছে। একবার ফুল চার্জ দিয়ে স্বাভাবিক ব্যবহারে অনায়াসেই একদিন চালিয়ে নেওয়া যায়।
Primo H6+ Battery
দামঃ
আকর্ষণীয় নানা ফিচার ও দারুণ কনফিগারেশনের Walton Primo H6+ এর দাম ১১,৯৯০ টাকা নির্ধারণ করেছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।
Primo H6+ special feature USB Type-C
Primo H6+ এর ভালোলাগার দিকসমূহঃ

  • BSI সেন্সরযুক্ত ১৩ মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক্যামেরা
  • এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ২.৫ডি কার্ভ ডিসপ্লে
  • নউগ্যাট অপারেটিং সিস্টেম

Primo H6+ review
শেষ কথাঃ
এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা, আপডেটেড অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, BSI সেন্সরযুক্ত ১৩ মেগাপিক্সেলের রেয়ার ক্যামেরা, ৩ গিগাবাইট র‍্যাম, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, দারুণ ডিজাইন – সাশ্রয়ী বাজেটে এতোসব ফিচার চাইলে Walton Primo H6+ কে সমসাময়িক অন্যান্য ফোনের থেকে এগিয়েই রাখতে হবে। এ যেনো সাধ ও সাধ্যের এক অপূর্ব সমাহার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *