ক্যামেরার চার্জ দীর্ঘক্ষন ধরে রাখার উপায়

0
144

স্মার্টফোনের এই যুগে ক্যামেরার চাহিদা পুরোপুরি ফুরিয়ে যায়নি। সৌভিন ছবি তোলার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ট্যুরে ও পারিবারিক অনুষ্ঠানে এখনো ক্যামেরার ব্যবহার দেখা যায়। তবে বাইরে ট্যুরে গিয়ে অনেকেই ক্যামেরা নিয়ে বিপত্তিতে পড়েন। অনেকে হঠাৎ করেই লক্ষ্য করেন যে তাদের প্রিয় ও দরকারি ক্যামেরাটির চার্জ ফুরিয়ে যাচ্ছে। ফলে সুন্দর মুহূর্তগুলো ধরে রাখা যাবে কিনা তা নিয়ে শঙ্কায় পড়তে হয়। নিচে ক্যামেরার চার্জ ধরে রাখার কয়েকটি টিপস তুলে ধরা হলো :

১. ছবি তোলার আগে মোবাইল বা ক্যামেরার অটো ফ্লাশ বন্ধ করুন। প্রয়োজনমত ফ্লাশ ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে আলাদা ব্যাটারি সম্বলিত অতিরিক্ত একটি ফ্লাশ নেওয়াই ভাল। প্রয়োজন ছাড়া ব্যাটারি খরচ করা উচিত নয়।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

২. অটো ফ্লাশের পর সম্ভব হলে ক্যামেরার অটো মুডটিও বন্ধ করে দিন। পরিবেশ বা ছবি তোলার লক্ষ্যবস্তু বুঝে ক্যামেরার ম্যানুয়াল মুড ব্যবহার করতে হবে।

index ক্যামেরার চার্জ দীর্ঘক্ষন ধরে রাখার উপায়

৪. লক্ষ্যবস্তু যদি অন্ধকার বা ঘোলা হয় তাহলে ক্যামেরায় স্টিল ফোকাস ব্যবহার করতে হবে।

৫. ক্যামেরার এলসিডি রিভিউ স্ক্রিন বন্ধ করতে হবে। ছবির রেজুলেশন বা সাইজ যেমন প্রয়োজন তেমন অনুসারে ছবি তুলতে হবে।

৬. প্রয়োজন অনুসারে ফিচার ব্যবহার করতে হবে। অপ্রয়োজনীয় ফিচার বন্ধ রাখতে হবে। ফিচার বেশি ব্যবহার করলে ব্যাটারি বেশি নষ্ট হয়।

৭. বেড়াতে বের হওয়ার সময় ছবি দেখা, এডিট বা ডিলিট করতে যাবেন না। এতে প্রচুর ব্যাটারি নষ্ট হয়। আধুনিক ডিএসএলআর বা কমপ্যাক্ট ক্যামেরায় নানাবিধ এডিটিং ফিচার থাকে যার মাধ্যমে ছবি এডিট করতে আপনাকে প্রলুব্ধ করবে। কিন্তু ব্যাটারির চার্জ সংরক্ষণের স্বার্থে আপনাকে এ লোভ সামলাতে হবে। এডিটিংয়ের কাজ বাড়িতে ফিরে এসেই হোক না।

৮. ক্যামেরা বার বার অন বা অফ করবেন না। আধা ঘন্টার মধ্যে আর ছবি তোলা লাগবে না এমন পরিস্থিতিতে ক্যামার বন্ধ রাখুন।

৯. বার বার জুম ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। প্রয়োজন অনুসারে ম্যানুয়ালি জুম করুন।

১০. আপনার শখের ক্যামেরাটিকে ঠান্ডা, বরফ বা পানি থেকে দূরে রাখুন।

১১. ছবি তোলার সময় ছাড়া ক্যামেরাটিকে ‘অটো পাওয়ার সেভিং’ মুডে রাখুন। ক্যামেরায় যদি অপশনটি থাকে তাহলে এটা সব সময় ব্যবহার করুন।

১২. কখনও রেড আই কমপেনশন ফিচার ব্যবহার করবেন না।

১৩. প্রয়োজন অনুসারে ক্যামেরার রেজুলেশন ব্যবহার করুন। মনে রাখবেন ছবির রেজুলেশন যত বেশি হবে ক্যামেরার ব্যাটারি তত দ্রুত শেষ হবে। সচারচার ছবি তোলার জন্য বেশি রেজুলেশনের প্রয়োজন হয় না।

১৪. ফোকাসের জন্য এলসিডি স্ক্রিনের পরিবর্তে ভিউ ফাইন্ডার ব্যবহার করুন।

১৫ . পশু পাখির ছবি ছাড়া অন্য সময় মাল্টিপল শর্ট ফিচার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। সব সময় সিঙ্গেল শর্ট মুড ব্যবহার করুন।

১৬. রাতে ক্যামেরা থেকে ব্যাটারি খুলে রাখুন।

১৭. ক্যামেরার সাটার বাটন বার বার চাপা থেকে বিরত থাকুন। শুধু ছবি তোলার উদ্দেশ্যেই সাটার চাপুন।

১৮. ভালো ও দ্রুত কাজ করে এমন মেমরিকার্ড ব্যবহার করুন। এতে আপনার তোলা ছবি দ্রুত সেভ হবে এবং আপনি দ্রুততম সময়ে আরেকটি ছবির জন্য চেষ্টা করতে পারবেন।

১৯. আপনার কাছে যদি একের অধিক ফ্লাশ থাকে তাহলে ছবি তোলার সময় একটিই ব্যবহার করুন। সেটি শেষ হলে অন্যটি ব্যবহার করুন।

২০. আগের ছবিগুলো যথাযথভাবে সংরক্ষণ করুন। নতুন ছবি তুলতে যাওয়ার আগে মেমরিকার্ডটি ফরমেট দিয়ে নিন। এটা আপনার মেমরিকার্ডকে ভালো ও দ্রুত কার্যকরী করে তুলবে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × five =