ফেসবুক টাইমলাইনে হঠাৎ পর্নো এলে কী করা যায় ?

By | 29/03/2016

এখন ফেসবুক শুধুই একটা মজার বিষয় বা আড্ডার জায়গায় নেই। এটা এখন অনেকের সামাজিক যোগাযোগের পাশাপাশি ব্যবসা ও গুরুত্বপূর্ণ কাজের মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। বন্ধু তালিকায় বন্ধু, বাবা-মা, ভাই-বোন ছাড়াও যুক্ত হচ্ছেন পেশাগত জীবনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা। সব কিছু ভালো চলতে চলতে হঠাৎই দেখলেন আপনার টাইমলাইনে কোনো পর্নো ভিডিওর লিঙ্ক পোস্ট হয়েছে। যা আপনি হয়তো জানেনও না।

facebook-history-infographic_04

এগুলো একধরনের ম্যালওয়্যার। হঠাৎ এমন বিব্রতকর অবস্থায় পড়লে আপনি ঘাবড়ে না গিয়ে শান্তভাবে কয়েকটা কাজ করে এর থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন।

টাইমলাইনে পর্নো এলে যা করবেন:

১. যত দ্রুত পারেন একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন।

২. যে সব পর্নো ভিডিও টাইমলাইন বা কোনো গ্রুপে ইতোমধ্যে শেয়ার হয়েছে সেগুলো ডিলিট ও রিপোর্ট করুন।

৩. আপনি যদি কম্পিউটারে ব্রাউজ করে থাকেন তাহলে ব্রাউজার ভার্সন আপডেট করুন। এক্ষেত্রে আন ইন্সটল করে আবার ইন্সটল করতে পারেন।

৪.  ব্রাউজারে প্রায়ই একধরনের Suspicious অ্যাড থাকে। এসব অ্যাড-অন রিমুভ করুন।

৫. ভালো এন্টিভাইরাস দিয়ে আপনার পিসিটি স্ক্যান করুন। কিছু কিছু ভাইরাস স্ক্যান করতে ব্যর্থ হয় এবং তা F-Secure scan, Trend Micro scan, ESET scan, Microsoft security software-এর যে কোনো একটি দিয়ে অনলাইনে সরাসরি স্ক্যান করুন। যদি আপনার ব্রাউজার গুগলক্রোম হয় তবে browser-specific scan স্ক্যান করুন।

৬. আপনার একাউন্টের সিকিউরিটি স্ট্রং করে ট্যাগ রিভিউ-এ রাখুন। কেউ যেন কোনো কিছু ট্যাগ করলে আপনার রিভিউ ছাড়া যেন টাইমলাইনে প্রদর্শন না হয়। সে জন্য এই কমান্ড ফলো করুন : Setting> Timeline and Tagging Settings> Who can add things to my timeline? > Reviwe posts that friends tag you in before they appear on your Timeline? > Enable করুন।

৭. এর পরও আবারো পর্নো শেয়ার হলে, ৭-৮ ঘণ্টার জন্য আপনার একাউন্ট ডি-অ্যাক্টিভ করুন।

৮. এখন বিষয়টা সবাই মোটামুটি জানে। তবুও একাউন্টে পর্নো শেয়ারের এই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে একটি স্ট্যাটাস দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *