ফ্রীলাঞ্চিং এ উন্নতি করতে হলে ……

By | 25/02/2016

কোন বিষয়ে ভাল দক্ষতা আর সেই বিষয়ের উপরে বাস্তব জীবনে দক্ষ কর্মী হওয়া এক কথা নয় । বিষয়টা আরেকটু সহজ ভাবে বলা জেতে পারে , ধরুন আপনি একজন ভাল ওয়েব ডেভেলপ করতে পারেন সেটা আপনার বিষয় ভিত্তিক দক্ষতা কিন্তু এর মানে এই নয় যে আপনি আপনার এই দক্ষতা দিয়ে ভাল ফ্রীলাঞ্চিং করতে পারবেন ! ( আমি বলছি না যে পারবেনই না  ) । ফ্রীলাঞ্চিং হল সেলফ ব্রান্ড বিজনেস । এই ক্ষেত্রে ভাল কিছু করতে হলে আপনাকে যেমন কাজে দক্ষ হতে হবে তেমনি যোগাযোগ সহ নিজেকে উপস্থাপন এবং আরও বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষ হতে হবে ।

মানুষকে জানান দিতে হবে যে আপনি একটি বিষয়ের উপরে দক্ষ । এই জানান দেওয়ার বিভিন্ন মাধ্যম আছে সেটা হতে পারে ব্লগিং কিংবা রিয়েল লাইফ প্রজেক্টের সাথে যুক্ত থাকা ।

বাস্তবতাকে মেনে নিতে শিখুন । একটা ছোট উদাহরণ দেই , ধরুন আপনি চিন্তা করলেন যে আপনি আম খাবেন । আপনি করলেন কি সাথে সাথে বাজার থেকে আমের চারা রোপণ করলেন আর রোপণ করার পর পরই আম খাওয়ার জন্য আম গাছের গোরা ধরে বসে পরলেন !!!

আপনার ভাগ্যে কি ফল পাওয়া সম্ভব । অবশ্যই না । সেটা পেতে হলে আপনাকে গাছের যত্ন নিতে হবে , অপেক্ষা করতে হবে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ।
একদিন যখন গাছটি বড় হবে তখন দেখবেন গাছে ফল আসতে শুরু করেছে ।

তখন এতই আম আসবে যে আপনার নিজের পক্ষে খাওয়া সম্ভব হবে না । তখন সেগুলো আপনি পরিবার , প্রতিবেশীদের দিতে পারবেন বা বাজারে বিক্রিও করতে পারবেন ।

এবার আছি আসল কথায় , আমরা অনেকেই ভাবি যে চাকরি নেই ফ্রীলাঞ্চিং করবো , যেই ভাবা সেই কোন একটা মার্কেটপ্লেসে ঢুকে কোন কাজ জেনে বা না জেনে কিংবা অনেক জেনে সারাদিন কাজে আপ্লাই শুরু । তারপর এভাবে কয়েকমাস করে অবশেষে কাজ না পেয়ে হতাশা ……

আগেই বলেছি ফ্রিলাঞ্চিং হল সেলফ ব্রান্ডিং । নিজেকে তুলে ধরতে হবে সবার মাঝে । আর এই ক্ষেত্রে রয়েছে অনেক অনেক প্রতিযোগিতা ।
এই প্রতিযোগিতায় টিকটে হলে প্রথমে আপনাকে নিজেকে গরে নিতে হবে । যে বিষয়ে আপনার দক্ষতা আছে সেই বিষয়ের উপরে আপনার প্রজেক্ট রেডি করুন ।
যেমন আপনি যদি ডেভেলপার হন তাহলে না না রকম ওপেনসোর্স প্রজেক্টের সাথে যুক্ত হন , প্লাগিন , এক্সটেনশান ডেভেলপ করুন , গীটহাবে রিপু করুন
যদি ডিজাইনার হন তাহলে সব সময় প্রাক্টিস এর মধ্যে থাকুন আপনার কাজগুলো বেহান্স বা ড্রিবলে রাখুন । দেখবেন ক্লায়েন্টরা আপনার কাজ দেখে আপনার সাথে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করছে । মনে রাখবেন এই প্রতিযোগিতার বাজারে ক্লায়েন্টদের “আমি উমুক পারি আমি তুমুক পারি” বলার চাইতে কোন রিয়েল লাইফ প্রোজেক্টের লিঙ্ক দিলেই তারা আপনার প্রতি ভরসা পাবে ।

ক্লায়েন্টদের না না রকমের প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করবেন , তারা কিছু না বুঝলে তাদের খুলে বুঝান । আপনার সততা ও দক্ষতা দ্বারা আপনি আপনার সম্পর্কে ক্লায়েন্টদের মাঝে নির্ভরশীলতা সৃষ্টি করুন ।
আর সব কথার শেষ কথা ভাল করে কাজ শিখুন এবং তারপর মার্কেটপ্লেসে আসুন । আপনি কাজের সবকিছু জানেন না এটাই স্বাভাবিক কিন্তু কিছু না জেনে সেটা জানার চেষ্টা করলে না না এটা অস্বাভাবিক । কাজের জন্য জানার পাশাপাশি অজানা বিষয়গুলার একটা লিস্ট করুন । তারপর অবসরে শুরু করে দিন গুগল সার্চ করা । দেখবেন আসতে আসতে বিষয় টা আয়ত্ব হয়েছে । নতুন শিক্ষা বিষয়টি নিয়ে ফাইনালি কোন প্রাকটিস প্রজেক্ট করুর এবং পরে ক্লায়েন্টের কাজে নেমে পরুন । নতুন বিষয় জানার প্রুতি ভাললাগা তৈরি করুন ।
সকলের ফ্রীলাঞ্চিং ক্যারিয়ার সফল হোক , আজকের মত এই টুকুই   :)

ফেইসবুকে আমি 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *