মোবাইল রেডিয়েশনের ক্ষতিকর দিক এবং সুস্থতার উপায় ।

By | 15/02/2016

প্রিয়জনের সাথে ভাব আদান-প্রদান থেকে শুরু করে ব্যবসায়ীক যোগাযোগ রক্ষা সহজ করে দিয়েছে বিজ্ঞানের ক্ষুদ্র একটি আবিস্কার, মোবাইল ফোন । আধুনিক স্মার্ট ফোনের সাথে ইন্টারনেটের সংযোগ দিয়ে আমরা যুক্ত হতে পারছি বিশ্ব তথ্য ভান্ডারের সাথে, বিনা খরচে কথা বলার পাশাপাশি একজন অন্য জনকে দেখতে পাচ্ছি । আধুনিককালে কম্পিউটারের অনেক কাজও মোবাইল ফোনের দ্বারা সম্পাদন করা যাচ্ছে । সুবিধার যেন শেষ নেই । তবে সুবিধার হাত ধরেই আসে অসুবিধা । আজকাল বিজ্ঞানীরা বিভিন্ন শারিরীক ও মানসিক রোগের সন্ধান পাচ্ছে যা এই সহজলভ্য যন্ত্রটির সাথে সম্পর্কযুক্ত । এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলঃ

ক্যান্সারঃ মোবাইল ফোন থেকে নির্গত নন-আয়োনাইজিং রশ্নির প্রভাবে ব্রেন টিউমার হওয়ার সম্ভাবনা অনেকখানি বেড়ে যায় এবং কখনও কখনও একে ক্যন্সারের কারন হিসেবে ধরা হয়।

শ্রবণশক্তি হ্রাসঃ মোবাইল ফোনের আরেকটি ক্ষতিকর প্রভাব হলো-এটা শ্রবণশক্তি হ্রাস করে। কানের ভেতরের পর্দা খুবই সংবেদনশীল। কাজেই দীর্ঘ সময় ধরে ফোনে কথা বলার ফলে কর্ণকুহরে অবিরাম প্রভাব পড়ে। যা কিনা আংশিক বধিরতা এমনকি কোন কোন ক্ষেত্রে সম্পূর্ন বধিরতার কারণ হতে পারে।

শুক্রাণু হ্রাসঃ গবেষকেদের দাবি, মুঠোফোন থেকে নির্গত ক্ষতিকর তরঙ্গ শুক্রাণুর ওপর প্রভাব ফেলে এবং শুক্রাণুর ঘনত্ব কমিয়ে দিতে পারে। হার্টের সমস্যাঃ মোবাইল থেকে নিঃসৃত ক্ষতিকর রশ্মি অনেকসময় হার্টের সমস্যা তৈরি করে।একটু সজাগ এবং সচেতন হলেই আমরা এসব ক্ষতিকর প্রভাব থেকে আমাদের সুরক্ষিত রাখতে পারি । উল্লেখযোগ্য হচ্ছে,

নিয়ন্ত্রিত ব্যবহারঃ বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া মোবাইল ফোনের ব্যবহার না করা ।

বাম কান ব্যবহার করাঃ গবেষনার দেখা যায়, আমাদের মস্তিস্কের বাম অংশ শারিরীক কার্যকলাপে অপেক্ষাকৃত কম অংশগ্রহন করে । সুতরাং বাম দিকের কান দিয়ে কথা বলার মাধ্যমে মস্তিস্কের অধিক সক্রিয় ডান অংশকে রক্ষা করতে পারি ।টেলিফোনের ব্যবহারঃ বাসায় বা অফিসে থাকাকালীন সময়ে প্রয়োজনীয় দূর যোগাযোগের ক্ষেত্রে টেলিফোন ব্যবহার করা যেতে পারে । যদি ল্যান্ডলাইন সংযোগ না থাকে তাহলে বাজারে প্রচলিত বিভিন্ন ধরনের ওয়্যারলেস টেলিফোন পাওয়া যায় যেখানে গ্রামীন, টেলিটক সিম ব্যবহার করেও টেলিফোন দিয়ে কথা বলা যায় ।

পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহনঃ পুষ্টিকর এবং কাচা ফলমূল জাতীয় খাদ্যগ্রহনের মাধ্যমে আমরা দৈনন্দিন ক্ষতিকে পুষিয়ে নিতে পারি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *