আজকের টিউটোরিয়াল নতুনদের জন্যে ।নতুন দের আর্নিং এর পুর্ন গাইডলাইন দেওয়া আছে

By | 29/10/2015

কেমন আছেন বন্ধুরা অনেক দিন পর লিখতে বসলাম আসলে এতদিন কাজের ব্যাস্ততার কারনে লিখতে পারিনি।যাহোক আমি আজকে আপনি কীভাবে মাসে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা আর্ন করবেন তার একটা পরিক্ষিত পদ্দতি ডিটেইলস লিখব।

(আজকের টিউটোরিয়াল নতুনদের জন্যে ।নতুন দের আর্নিং এর পুর্ন  গাইডলাইন দেওয়া আছে)

আমরা অনেকেই কিছু জানিনা বা তেমন অভিজ্ঞতাও নেই।অনেকেই আছেন ইন্টারনেট থেকে আর্ন করতে চান কিন্তু আপনার বর্তমান যোগ্যাতা আপনাকে সেটা থেকে বঞ্চিত করছে।আসলে একটা কথা আমরা সবাই জানি যদি আপনার কোন যোগ্যতা না থাকে তাহলে আপনি যেখানেই যাবেন সেখানেই হোছট খাবেন।অনেকে দেখি যারা কাজ জানে তাদের পিছে পিছে ছুটে আসলে আজকাল এই আধুনিক যুগে কারো পিছনে ঘুরার কোন প্রয়োজনই লাগেনা যদি আপনি বিভিন্ন ( ব্লগ ,ফোরাম,ইউটিউব এবং গুগল) কে বুঝতে পারেন।

আবার দেখা যায় তার বর্তমান অবস্থা থেকেই কিছু আর্নিং করতে চাই আর আস্তে আস্তে শিখতে চাই।আসলে আমি এক দিক থেকে মনে করি আপনার চিন্তাধারা টা ঠিক আছে  কারন মানুষ কখনোই মায়ের পেট থেকে শিখে আসেনা তাকে আস্তে আস্তেই শিখতে হয়। কিন্তু আপনার ঝামেলাটা হল আপনার বর্তমান যোগ্যতা দিয়ে কীভবে আর্ন করবেন অনলাইন থেকে তা জানেন না বা সঠিক গাইড লাইন পাচ্ছেন না। আর বিশেষ করে রাস্তাঘাটে “ঘরে বসে মাসে হাজার হাজার টাকা আর্ন করুন” এইসব ব্যানার দেখে আপনার মাথা হ্যাং হয়ে আছে।

যাহোক আপনি তাদের কাছ থেকে যেমন কোর্স করেও আর্নিং করতে পারবেন আবার বিভিন্ন ব্লগ,ফোরাম,ইউটিউব এবং শুধুমাত্র গুগল ব্রাউস করেও এইগুলা শিখে বা কিছু পদ্দতি অনুসরন করে আর্নিং করতে পারবেন।শুধু মাত্র আপনার দরকার একটা কাজ করার মানুষিকতা ।একটা কথা মনে রাখবেন আপনি আপনার বর্তমান অবস্থা দিয়ে বিবেচনা করবেন আপনি বর্তমান যোগ্যাতা দিয়ে কত আর্ন করার ক্ষমতা রাখেন।কিন্তু আপনি যদি আকাশ ছোয়া টাকা আর্নিং এর পথ খুজেন তাহলেতো বাশ খাবেন এতে অন্য কারোর কি দোষ বলুন।কারন  

মানুষ তখনি এক ব্যাক্তি আরেক ব্যক্তি কে বাশ দেয় যখন তার মনে হয় অপর ব্যক্তিকে বাশ দেওয়ার মত যোগ্যতা ঐ প্রথম ব্যাক্তির থাকে।

আমি এইসব আগে বলে নিলাম এই জন্য যে অনেকেই আর্নিং এর ওয়ে খুজেন কিন্তু নিজে বিশ্বাস করেন না যে আসলে এটা করার জন্য আগে আপনার নিজেকে তৈরি করতে হবে ।যদি আমার পোস্ট পড়েই ডিসিশন নেন আপনি অনলাইন থেকে আর্নিং করবেন আর নিজেকে ছোট থেকেই বড় করবেন তাহলে আমি আপনাকে গ্যারান্টি দিতে পারি আপনি সর্বোচ্চ দুইমাস আমার কথা মত কাজ করেন।১০০ % আর্নিং করতে পারবেন।

তবে আমি এই ব্লগে মোট তিন (৩) টা লেভেলের লোকদের জন্য আর্নিং এর টোটাল ৩ টি পর্ব তৈরি করছি
১।একদম নতুন :(যারা এখনো আর্নিং কি জানেন না বা কীভাবে আর্নিং করে জানেন না।কিন্তু আর্নিং করতে চান ।সময় প্রতিদিন ২ থেকে ৩ ঘন্টা দিতে পারবেন।আমার জানামতে এমন অনেকেই আছে যারা বলে দরকার হলে ভাই সারাদিন টাইম দিব তবু আমার অনলাইন থেকে আর্নিং দরকার ।   

২।মধ্য দক্ষতা সম্পন্ন ব্যক্তি :  যারা বিভিন্ন ব্লগ ,ফোরাম,বাংলা টিউটোরিয়াল দেখে চিন্তা করেন যে আসলে এখন পারবেন এবং নির্দিষ্ট একটা বিষয়ে সামান্য জ্ঞান আছে তাদের কে একটু দেখালেই পারবেন যেমন ধরেন 

SEO.  GRAPHICS DESIGN,  WEB DEVOLOPMENT,  CODING ইত্ত্যাদি

৩।দক্ষতা সমপন্ন ব্যাক্তি  :তারা অবশ্য আমার টিঊটোরিয়ালের জন্য অপেক্ষা করছেনা ।আমি শিউর তারা কোন না কোন ক্ষেত্রে চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে।এবং বড় বড় সেকশন গুলাতে কাজের জন্য বিড করছে

যেহেতু আমার আজকের পোস্ট নতুন দের জন্য তাদের কে আসলে কি দিয়ে একটা আর্নিং এর একটা  পথ বের করা যায় সেটা নিয়েই চিন্তা করলাম দেখলাম যে তাদের কে মাউস টিপাটিপি ছাড়া আর তেমন কঠিন কোন কাজ দিলে তারা পারবেনা।তাদের কাছে এটা আযাব মনে হবে।

তাই নতুন দের কথা চিন্তা করে যাতে সর্বোচ্চ দুইমাস কাজ করে এবং তিন মাসের শেষের দিক থেকে ভালো একটা জীবিকা (১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার) টাকা আর্নিং করতে পারে তার জন্য আজকে আমি আর্নিং এর একটা প্যাকেজ নিয়ে লিখব ।

আমার পোস্ট বড় মনে হচ্ছে? আমি বলব সারাজীবন তো বিভিন্ন ব্লগে পড়েই গেলেন কত ব্লগে কত আর্নিং এর উপায় বলছে আপনি কি কাউকে ফলো করেছেন।বলবেন ভাই আমিতু করতে চাইছিলাম এই ভাই সেই ভাই বলল এটা ভালো না এটা টাকা দেয়না।আমি বলব আরে ভাই এই ভাই সেই ভাইয়ের কথা শুনলে আপনি সারাজীবনেও আর্নিং করতে পারবেন না।আমার মনে আছে আমি যখন অনলাইনে কাজ শিখার জন্য কারো কাছে হেল্প চাইছি আমাকে বিন্দুমাত্র হেল্প করিনি।সোজা টাকা দেওয়ার জন্য বলে দিয়েছে।

আজকের টিউটোরিয়াল নতুন দের জন্য আশা করি বিজ্ঞরা এসে এই কথা বলবেন না “আরে এইগুলা টাকা কম পে করে,ভালো না।“

আপনি কমেন্ট করার আগে আপনার বুঝতে হবে পোস্ট কার জন্য করতেছি।যারা পাহাড় থেকে লাফ দিতে পারে তাদের কে যদি বলা হয় টেবিল থেকে লাফ দিতে তাদের কাছে এটা যেমন জোকসের মত মনে হবে আবার যারা এখনো হাটতেই শিখেনি তাদের কে যদি পাহাড়ের কথা বলেন তাদের কাছেও এটা জোকসের মতই মনে হবে।

Screenshot_6

যাহোক আমি প্রথমে নতুন দের বলব আমার পোস্ট পড়ে আপনার একটা ধারনা হয়ে গেছে যে আপনি কোন লেভেলের।এখন যদি আপনি এই লেভেলের হয়ে থাকেন তাহলে পোস্ট টা যেভাবে বলা হয়েছে সেভাবে করেন নূন্যতম দুইমাস আশা করি আপনি অন্তত বাশ খাবেন না আর বর্তমান সময়টা যদি ছাত্র জীবন  হয়ে থাকলে আমার মত একটা ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

কাজের ধারা

১। প্রথমে আমি ছয়টা সাইট দিব সেগুলাতে সাইন আপ করবেন

২।এবং আমি সবগুলা সাইটে কীভাবে কাজ করবেন সেগুলার ভিডিও টিউটোরিয়াল দিব

৩।দুই মাস চোখ বুঝে কাজ করবেন(এই ভাই ঐ ভাইয়ের কথা ভুলে যান)

৪।আপনি যেভাবেই হোক ৫ জন কাছের ব্যাক্তি  বের করুন যে কিনা আপনার মতই অনলাইনে আর্নিং করতে চাই।

১। পাচঁটা সাইট: নিচের সাইট গুলাতে গিয়ে সাইন আপ করুন ।সাইন আপ করার নিয়ম টা একদম ইজি যেভাবে ফেসবুকে সাইন আপ করেছেন একাউন্ট খুলার সময় ।যদি এটা ও এখনো না পারেন তাহলে আপনি এখনো নতুন দের পর্যায়ে ও আসেন নি আপনার আরো কয়েকদিন ধৈর্য্য ধরা দরকার এবং অল্প কিছু  শিখুন

সাইট                                                লিংক এক

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

সাইট                                                লিংক দুই

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

সাইট                                                লিংক তিন

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

সাইট                                                লিংক চার

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

সাইট                                                লিংক পাচঁ

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

সাইট                                                লিংক ছয়

(এই সাইটে কিভাবে একাউন্ট  খুলবেন তার জন্য ইউটিউবের এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।আর কীভাবে কাজ করবেন তার জন্যে এই ভিডিওটা দেখতে পারেন।)

২।সাইন আপ হওয়ার পর আগামিকাল থেকে কাজ শুরু করুন।আমি আগেই বলে দিচ্ছি প্রথম মাসে আপনি সর্বোচ্চ ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা আর্ন করতে পারবেন।এর বেশি না কিন্তু আপনি দ্বিতীয় মাস থেকে সর্বনিন্ম ৮ হাজার টাকা আর্ন করতে পারবেন।কীভাবে সেই ট্রিক্স গুলা আমার সাথে মোবাইলে(০১৭৯১৬৬০০৮৩) কথা বলে অথবা আমার ফেসবুক লিংক গিয়ে আমাকে মেসেজ করুন ।

৩।আপনি সর্বনিন্ম ১৫ দিন কাজ করার পর আপনি আপনার পরিচিত আপনার রেফেরাল লিংক থেকে যেভাবেই হোক সাইন আপ করান।সে কাজ করুন আর না করুক আপনি তার কম্পিউটার থেকে আপনার রেফেরেল দিয়ে সাইন আপ করান।মনে রাখবেন এটাই হল আপনার টাকা আর্নিং এর মূল হাতিয়ার। অথবা যদি একদমই পারছেন না রেফেরাল করতে আমার সাথে যোগাযোগ করুন আমার মোবাইল নাম্বার (০১৭৯১৬৬০০৮৩) অথবা আমার ফেসবুক লিংক

৪।ধরলাম আপনি ৫ জন রেফেরাল পেলেন না এখন তাহলে কি করবেন।টেনশনের কোন কারন নেই আপনি একটা সাইভার ক্যাফে যান এবং তার সাথে ডিল করেন আপনি তার সবগুলা কম্পিউটার থেকে প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৩ ঘন্টা এবং যখন তার কম্পিউটার ফ্রি থাকে তখন এসে চালাবেন এবং আপনি তাকে ৫০০ টাকা দিবেন।আমার অভিজ্ঞতায় বলতে পারি সে না করবেনা। আর যদি আপনার পরিচিত থাকে তাহলেতু কথায় নেই।

এখন তার যতগুলা কম্পিউটার আছে সব গুলা থেকে সাইন আপ করুন।ব্যাস কাজ করুন এছাড়া আপনার পরিচিত কোন ফ্রেন্ড আছে কিন্তু সে বুঝেনা তাকে আপনি এই কাজটা বুঝিয়ে দিতে পারেন।

একটা কথা মনে রাখবেন আপনি যতটাকা আর্ন করছেন ঠিক সমান টাকা কিন্তু আপনার রেফেরাল ব্যাক্তি আর্ন করছে আর সেই রেফেরাল মাসে টোটাল যত টাকা আর্ন করছে তার সমপরিমান টাকা আপনি মাগনাই পাচ্ছেন।

এখানে রেফেরালের হিসাব বা একাউন্টের হিসাবটা এইভাবে করা হয়

Screenshot_5
ধরি আপনার ১০ জন রেফেরাল বা একাউন্ট করেছেন যেভাবেই হোক সেটা সাইভার ক্যাফে অথবা বন্ধুর মাধ্যমে

তাহলে আপনি ৫ টা সাইট থেকে আর্ন করলেন সর্বনিন্ম ৩ হাজার টাকা ১ মাসে. এখন আপনার রেফেরাল একাউন্ট ১০ টি তাহলে আপনি সেই ১০ টা একাউন্ট  এর ব্যাক্তিরা বা আপনি নিজেই ভিবিন্ন সাইভার ক্যাফে বা ব্যাক্তির মাধ্যমে কাজটা করালেন সেখান থেকে ১০ জন *৩ হাজার = ৩০ হাজার টাকা এবং আপনার নিজের আর্নিং এর টাকা ৩০০০ হাজার টোটাল ৩৩ হাজার টাকা আর্ন করলেন দ্বিতীয় মাস থেকেই।

10 জন ব্যাক্তির আর্নিং টোটাল টাকা =৩০০০০(ত্রিশ) হাজার টাকা

এবং আপনার নিজের আর্নিং এর টাকা =৩০০০(তিন) হাজার

টোটাল=৩৩০০০(তেত্রিস) হাজার টাকা আর্ন করলেন ১ মাসে

এভাবেই পরবর্তী মাসে যদি  আরো ১০ জন যোগার করতে পারেন তাহলে ৬০ হাজার টাকা।যেহেতু আপনি কাউকে টাকা দিচ্ছেন না বা আপনি কারো কাছ থেকে আরেকজন কে কাজ টা শিখিয়ে দেওয়ার জন্য টাকা নিচ্ছেন না তাহলে আমার মনে হয় না আপনার তেমন কঠিন হবে ২০ জন যোগার করা।সারাজীবন পড়ালেখা করলেন তার জন্য যে কষ্ঠ করলেন তার মাত্র ২ মাসের কষ্ঠ এইখানে ব্যয় করুন আমি নিশ্চিত আপনি সাকসেস হবেন।

আসলে এইসব লিখে বুঝানো যায় না বা সব কথা লিখে প্রকাশ ও করা যায় না।যদি আপনি সত্যি কাজ করতে চান আর আপনি আগ্রহি তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।আর যারা ঢাকা থাকেন ফার্মগেট,আজিমপুর,নিউমার্কেট,শেঊরাপারা,ধানমন্ডি তারা আমার সাথে সরাসরি এসে কাজটা শিখে যেতে পারেন কোন রকম টাকা পয়সা ছাড়াই। আমি শেউড়াপারা থাকি।

আজকে আর লিখবনা যদি আপনাদের কমেন্টে কোন আপত্তি বা প্রবলেম পাই আমি সমাধান দেওয়ার চেষ্ঠা করব।

 আমার মোবাইল নাম্বার (০১৭৯১৬৬০০৮৩) অথবা আমার ফেসবুক লিংক

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *