স্যামসাংয়ের ৬০ কোটি স্মার্টফোন হ্যাকিং ঝুঁকিতে

By | 25/06/2015

হ্যাকিং ঝুঁকিতে রয়েছেন প্রায় ৬০ কোটি স্যামসাং স্মার্টফোন গ্রাহক। এমনকি যারা সাম্প্রতিক সময়ে স্যামসাংয়ের নতুন গ্যালাক্সি এস৬ স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন, তারাও এর থেকে নিরাপদ নন।

 

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, স্যামসাং স্মার্টফোনের এই নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি হয়েছে সুইফকি কিবোর্ডের ক্রুটির কারণে। সুইফকি কিবোর্ড বর্তমানে বেশিরভাগ স্যামসাং স্মার্টফোনেই প্রি-ইনস্টলড থাকে। ফলে কিবোর্ড ডিসঅ্যাবল বা আনইনস্টল করা যায় না। আর এই কিবোর্ডের সাহায্যেই হ্যাকারদের পক্ষে খুব সহজেই ভেঙে ফেলা সম্ভব স্মার্টফোনের নিরাপত্তা বলয়।

 

জানা গেছে, স্যামসাংয়ে প্রি-ইনস্টলড সুইফটি কিবোর্ডের ক্রুটির কারণে হ্যাকাররা স্মার্টফোনের জিপিএস, ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোনের তথ্য অ্যাকসেস, গ্রাহকের অজান্তেই গোপনে ক্ষতিকারক অ্যাপ ইনস্টল, কল এবং এসএমএসে গোপনে আড়ি পাতা, ব্যক্তিগত তথ্য যেমন ছবি হ্যাক সহ নানা অবৈধ কার্যক্রমের করে বিপাকে ফেলতে পারে।

 

সুইফটকি কিবোর্ড ডিফল্ট কিবোর্ড হিসেবে ব্যবহার না করলেও নিরাপত্তার দুর্বলতার কারণে হ্যাকিং ঝুঁকি রয়েছে।

 

স্যামসাং স্মার্টফোনে এই নিরাপত্তা ঘাটতির বিষয়টি সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়েছে লন্ডনের ব্ল্যাক হ্যাট সিকিউরিটি কনফারেন্সে। আর এই ঘাটতি ধরেছেন সিকিউরিটি ফার্ম নাও সিকিওর-এর এক গবেষক রায়ান ওয়েল্টন।

 

নাও সিকিওর-এর বক্তব্য, ২০১৪ সালের নভেম্বর মাসেই স্যামসাংকে নিরাপত্তার এই বিষয়টি তারা জানিয়েছিল। তখন স্যামসাং নাও সিকিওরকে অনুরোধ করেছিল এই সমস্যার সমাধান করার জন্যে তাদের অন্তত তিন মাস সময় যেন দেওয়া হয়। তার আগে জনসমক্ষে যেন এই খবর না আনা হয়। কিন্তু এখনো পর্যন্ত স্যামসাং-এর তরফে কোনো পাকাপোক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কি না তার সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই নাও সিকিওর-এর কাছে।

 

স্যামসাং-এর যে সব স্মার্টফোনের নিরাপত্তা সংশয়ের মুখে তার মধ্যে রয়েছে গ্যালাক্সি এস৬, গ্যালাক্সি এস৫, গ্যালাক্সি এস৪ এবং গ্যালাক্সি এস৪ মিনি। তবে শুধুমাত্র এই কয়েকটি ফোনই নয়, তালিকায় রয়েছে আরো বেশ কয়েকটি ফোন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *