ঘণ্টার পর ঘণ্টা অথবা সারারাত আপনার স্মার্টফোন চার্জ দিয়েছেন? অতপর কি হয় আসুন দেখি

0
385

মোবাইল ফোনের জন্মলগ্ন থেকেই মানুষ একটি মহামারীতে আক্রান্ত। তার ওপর এখন স্মার্টফোনের যুগ। আমাদের অতি বিশ্বস্ত পকেট কম্পিউটারটিকে আমরা একদিনও বোধ হয় চার্জ ছাড়া রাখি না। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন, যারা রাতে মোবাইল চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুম থেকে উঠে সকালে পুরোপুরি চার্জ হওয়া মোবাইল হাতে নেয়াটা বেশ স্বস্তিদায়ক। কিন্তু, ফুল বা পূর্ণ চার্জ হওয়ার পরও কি মোবাইল ফোন চার্জারে লাগিয়ে রাখা উচিত?

 

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

এটা কি ব্যাটারির ক্ষতি করছে বা ব্যাটারির আয়ু কমিয়ে দিচ্ছে? এ বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের মধ্যে রয়েছে নানা বিভ্রান্তি। এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন ছাপিয়েছে ডিজিটাল ট্রেন্ডজ ডট কম। ওই প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, আসলে কি ঘটতে পারে, স্মার্টফোনে কতোটুকু চার্জ দেয়া উচিত, কি ধরনের সরঞ্জাম ব্যবহার করা উচিত ইত্যাদি।

চার্জিংয়ের সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফার্বে টেকনিক-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা শেইন ব্রোয়েস্কি বলছিলেন, সারারাত মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখায় সমস্যা নেই। এতে আকস্মিক কোন ক্ষতির আশঙ্কা নেই। তিনি বলছিলেন, আপনার ফোনটি বেশ চটপটে। একবার ফুল চার্জ হলে, এটি জানে কখন থামতে হবে। চার্জের প্রবাহ বন্ধ করে দিয়ে আপনার ফোন নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে সক্ষম। অর্থাৎ, ফোন অতিরিক্ত চার্জ গ্রহণ করবে না। এটা সেভাবেই তৈরি করা হয়েছে।

তবে কয়েকটি ক্ষেত্রে রাতভর চার্জ স্মার্টফোনের ব্যাটারির আয়ুকে হ্রাস করতে পারে। শেইন বলছিলেন, কোন কারণে আপনার ফোনটির তাপমাত্রা যদি বেড়ে যায়, লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। আপনার স্মার্টাফোন ডিভাইসটিতে যদি কেইস বা খাপ থাকে এবং সেটা ফোনের ভেতরে উৎপন্ন তাপকে বাইরে বেরোতে না দেয়, সেটা ব্যাটারির তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়। গরম ব্যাটারির কারণে সেল অক্সিডেশন বিক্রিয়া ঘটতে পারে। ফলে, ফোনের ব্যাটারির সক্ষমতা এবং আয়ু হ্রাস পায়। রাতে ফোন চার্জে দেয়ার আগে ফোনের খাপটাকে খুলে রাখতে ভুলবেন না।

শেইন আরও জানান, লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিসমূহের চার্জ ৫০ থেকে ৮০ শতাংশের ভেতর রাখা ভালো। এতে চার্জপ্রাপ্ত আয়নগুলো ভালোভাবে কাজ করে এবং ব্যাটারির আয়ুর সুরক্ষা দেয়। প্রয়োজনসাপেক্ষে, একবারে ফুল চার্জ না দিয়ে, দিনে কয়েকবার চার্জ দেয়াটা ভালো। একটু অসুবিধাজনক হলেও, এটা আপনার ব্যাটারিকে দীর্ঘদিন ভালো রাখবে। তিনি বলছিলেন, ০ থেকে ১০০ শতাংশ চার্জ এড়িয়ে চলুন। অর্থাৎ, চার্জটা যাতে শূন্যের কোঠায় নেমে না যায়, সেটাও খেয়াল করতে হবে। নিদেনপক্ষে ১০ বা ২০ শতাংশে চার্জ নেমে আসলে, চার্জে দেয়া উচিত এবং সর্বোচ্চ ৮০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ রাখা ভালো। বহুদিন ব্যবহারের পর ব্যাটারিতে যদি বেশিক্ষণ চার্জ না থাকে বা ফোন চালু না হয়, সেক্ষেত্রে ব্যাটারি পরিবর্তন করতে হবে।

আরও একটি বিষয় বেশ গুরুত্বপূর্ণ। শেইন বলেন, স্মার্টফোনের জন্য নির্ধারিত চার্জার, ইউএসবি কেইবল ও অন্যান্য সরঞ্জাম ব্যবহার করুন। একই প্রতিষ্ঠান বা গুণগত মানের দিক থেকে ওপরের দিকে থাকা প্রতিষ্ঠানের সরঞ্জাম ক্রয় করুন। ব্র্যান্ডটা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

11 − 9 =