রহস্যময় স্থান যা শয়তানের ত্রিভূজ নামে পরিচিত

1
648

রহস্যময় স্থান যা শয়তানের ত্রিভূজ নামে পরিচিত

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক: বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল পৃথিবীর মধ্যে এমন এক রহস্যময় স্থান যা শয়তানের ত্রিভূজ নামে পরিচিত। কেননা এটি আটলান্টিক মহাসাগরের এমন একটি অঞ্চল যেখানে জাহাজ ও উড়োজাহাজ রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হওয়ায় সংবাদ প্রায়ই শোনা যেতো।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

উপকথা অনুসারে অনেকেই ধারণা করেন, এসব দূর্ঘটনার পেছনে দায়ী হলো অতিপ্রকৃতিক কোনো শক্তি বা ভিনগ্রহের কোনো প্রাণীর উপস্থিতি।

বিংশ শতাব্দীতে টেলিযোগাযোগ, রাডার ও স্যাটেলাইট প্রযুক্তি পৌঁছানোর আগে এ অঞ্চলে জাহাজডুবি ছিল খুব স্বাভাবিক একটি ঘটনা। কোনো এক সময় এই অঞ্চলে বিশ্বের ভারী বাণিজ্যিক জাহাজ ও বিমান চলাচল করতো।

ক্রিস্টোফার কলম্বাস সর্বপ্রথম বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল বিষয়ে অদ্ভুত অভিজ্ঞতার কথা লিখেন। তিনি লিখেছিলেন, যে তার জাহাজের নবিকেরা এ অঞ্চলের দিগন্তে আলোর নাচানাচি, আকাশে ধোঁয়া দেখেছেন। এছাড়া তিনি এখানে কম্পাসের উল্টাপাল্টা দিক নির্দেশনার কথাও বর্ণনা করেছেন।

এ অঞ্চলের আরও একটি রহস্যময়তার দিক হলো, কোনও জাহাজ এই শয়তানের ত্রিভুজের এলাকায় প্রবেশ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই বেতার তরঙ্গ প্রেরণে অক্ষম হয়ে পড়ে। উপকূলের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে ব্যর্থ হয়। একসময় দিক নির্ণয় করতে না পেরে রহস্যজনকভাবে অদৃশ্য হয়ে যায়।

মার্কিন নেভির সূত্র অনুযায়ী, গত ২০০ বছরে এ এলাকায় কমপক্ষে পঞ্চাশ টি বাণিজ্যিক জাহাজ এবং বিশ টি বিমান চিরতরে অদৃশ্য হয়ে গেছে।

এছাড়াও ১৯৪৫ সালের ডিসেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্টে পাঁচটি বোমারু বিমান প্রশিক্ষণ চলাকালীন হারিয়ে যায়। হারিয়ে যাবার মুহূর্তে বৈমানিকদের একজন অতি নিম্ন বেতার তরঙ্গ পাঠাতে সক্ষম হয়েছিলেন।

তার এই বেতার বার্তাতে বারবার একটি কথাই বলা হচ্ছিল, ‘সামনে প্রচণ্ড কুয়াশা। আমরা কিছু দেখতে পাচ্ছি না। কোথায় যাচ্ছি তাও বুঝতে পারছি না। আমাদের উদ্ধার করো।’ এ বার্তা পাওয়ার পরপরই মার্কিন বিমান বাহিনীর একটি উদ্ধারকারী টিম এ অঞ্চলের দিকে রওনা হয়। কিন্তু কিছুক্ষণ পরে তারাও নিখোঁজ হয়ে যায়। এমনকি তাদের কোনো ধ্বংসাবশেষও পাওয়া সম্ভব হয়নি।

 

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

14 − twelve =