অতি দূত আডসেন্স পাওয়ার কিছু টিপস

0
311

অতি দূত আডসেন্স পাওয়ার কিছু টিপস
আমি হৃদয় কুমার দাস। কাজকে আমি আপনাদের জানার আজ আমি দেখাব কিভাবে অতি দূত গুগুল আডসেন্স পা

আমাদের দেশে গুগল আডসেন্স কে সোনার হরিণ বলা হয়। কারণ বাংলাদেশের আনেকেরই জীবনকে পরিবর্তন করে দিয়েছে এই গুগল আডসেন্স। যাই হোক কথা না বাড়িয়ে কাজের কথায় আসি।
কিভাবে পাবেন গুগল আডসেন্সঃ

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

গুগল আডসেন্স পাওয়ার কিছু টিপস শেয়ার করলাম আপনাদের সাথে, ননিচের এই ১০ টি টিপস অনুসরণ করে আতি দূত পেতে পারেন গুগল আডসেন্স। তাই আর দেরি না কর দে নিন আমার দেওয়া উপদেশগুলো।

০১. টপ লেবেল ডোমেইন ব্যবহার:

প্রথমেই আসি টপ লেবেল ডোমেইন এর কথা। কারন এখন টপ লেবেল ডোমে ছাড়া আডসেন্স পাওয়া যায় না। আপনাকে অবশ্যাই উচ্চমানের ডোমেইন ব্যবহার করতে হবে। যেমনঃ.Com, .Net, .Biz, .Org ইত্যাদি। এইসব ডোমেইন ব্যবহার করলে ৫০ পারসেন্স সম্ভবনা থাকে আডসেন্স পাওয়ার।

০২. ওযার্ডপ্রসে CMS ব্যবহারঃ

বর্তমানে ওযার্ডপ্রেস টি জনপ্রিয় সাইট। আর আনেক সহজভাবে আপনি আপনার সাইটে প্লাগ- ব্যবহার করতে পারবেন। যদি আপনার সাইটি ওয়ার্ডপ্রসে হয়ে থাকে তাহলে আপনি অবশ্যাই ওযার্ডপ্রসে সিএমএস ব্যবহার করবেন। এতে আডসেন্স পাওয়া সহজ হবে।

০৩. নতুন একটি জিমেইল ব্যবহার করুনঃ

আপনি যখন গুগল আডসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন তখন নতুন টি একাউন্ট খোলা ভালো। কারন নতুন একাউন্ট কোনো আজে বাজে মেইল থাকবে না, এটি শুধু আডসেন্স এর জন্য ব্যবহার করুন। এতে আপনি সহজেআপনার আডসেন্স এর মেইল পেয়ে যাবেন। আর যদি পুরাতন মেইলে আবেদন করেন তাহলে হয়তো আপনার গুরুত্বপূর্ণ আডসেন্স এর ফিডব্যাক হাড়িয়ে ফেলবেন, আনেক আজে মেইল আসার কারনে।

০৪. আপনার ব্লগে রাখুন ৪০ থেকে ৫০ টি টিউনঃ

আপনার সাইট থাকলেই তো আর হবে না এরকম পৃথিবীতে হাজারে সাইট আছে, তারা আডসেন্স পাচ্ছে না। আআপনার ব্লগে অবশ্যাই ৪০ থেকে ৫০ টির মতন টিউন থাকতে হবে না হলে আডসেন্স পাওয়া আনেক কষ্টের। আর অবশ্যাই আপনার টিউন গুলো যেন ইউনিক হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। না হলে হুগল মামার কাছে খাওয়া নাই।

০৫. আপনার ব্লগেপ্রয়োজনীয় পেজ তৈরি করুনঃ

আপনার ব্লগে প্রয়োজনীয় পেজ রাখুন। কারন একটি মানুষের যেমন পরিচয় ছাড়া কিছুই নেই তেমনি একটি ব্লগের প্রাইভেসি ও পলিসি ছাড়া গুরুত্ব নেই। তাই আপনার ব্লগে কিছু পেজ তৈরি করুন যেমনঃ About us, privacy and policy, FAQ, Sitemap, Guest Post ইত্যাদি। এইসব পেজ রাখলে গুগল ি তাড়াতাড়ি আডসেন্স অ্যাপরুভ করবে।
০৬. গুগলে আপনার ব্লগটি পুরোপুরি ইনডেক্স হলে আডসেন্স এর জন্য আবেদন করুনঃ
আপনার সাইটি তৈরির কমপক্ষে ৬ থেকে ১ বছর হতে হবে। তা না হলে আপনার সাইটে আডসেন্স অ্যাপরুভ হবে না। আপনার সাইটি পুরোপুরিভাবে গুগলে ইনডেক্স করতে দিন তারপর আডসেন্স এর জন্য আবেদন করুন।

০৮. গুগলের সব সার্ভিস ব্যবহার করুনঃ

গুগলের প্রত্যেকটি সেবা ব্যবহার করুন। এতে আপনার সব ইনফরমেশন পেতে গুগলের আনেক সহজ হবে। এবং তাড়াতাড়ি আডসেন্স পাওয়ার সম্ভবনা থাকে। যেমনঃ জিমেইল থাকা, ইউটিউবে চ্যানেল থাকা ইত্যাদি।

০৯. আনপেজ আপ্টিমাইজেশন করুনঃ

আপনার সাইটি যদি নতুন হয়, তাহলে আপনাকে অবশ্যাই আনপেজ আপ্টিমাইজেশন করতে হবে। আপনাকে আফ পেজ আপ্টিমাইজেশন পরে করলেও চলবে। আপনাকে গুগল আডসেন্স আবেদন করার জন্য ভালো ভাবে আগে আন পেজের আপ্টিমাইজেশন কাজ করুন তারপর না হয় আফপেজ আপ্টিমাইজেশন করা যাবে।

১০. মোটোমুটি ভিজিটর না থাকলেআডসেন্স এ আবেদন করবেন নাঃ

আপনার সাইটে যদি মোটামুটি ভিজিটর না থাকে,তাহলে গুগল আডসেন্স এ আবেদন করবেন না। আগে আপনার সাইটে কিছু মিনিমাম ভিজিটর রাখুন না হলে কখনো আপনি আডসেন্স পাবেন না। প্রতিদিন কমপক্ষে ৪০ থেকে ৫০ টির মতন যদি পেজভিউ হয় তাহলে আবেদন করুন।
ভুল ক্রটি থাকলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।
সন্যবাদ সবাইকে।

যদি আমার টিউনটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আমার সাইটি ভিজিট করবেন

http://topvirtualworld.blogspot.com

Advertisement -
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × one =