অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্য আতঙ্কের বিষয় ম্যালওয়্যার

0
299

অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্য আতঙ্কের বিষয় ম্যালওয়্যার। ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নিতেও ব্যবহার হচ্ছে ক্ষতিকর এসব অ্যাপ। কয়েক বছর ধরে ম্যালওয়্যারে আক্রান্ত হওয়া ডিভাইসের সংখ্যা বাড়লেও গত বছর আক্রান্ত অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সংখ্যা প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে। সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানায় অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান গুগল। খবর এএফপি।

মোবাইল প্লাটফর্মটির নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে গুগল। আর এ প্রেক্ষাপটে ম্যালওয়্যার আক্রান্ত অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে। গত বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানায় মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের নিরাপত্তা জোরদারে তারা উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিচ্ছে।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

এ বিষয়ে ব্লগ পোস্টে অ্যান্ড্রয়েড নিরাপত্তা প্রকৌশলী অ্যাড্রিয়ান লুডউইগ জানান, গত বছর বিশ্বব্যাপী ক্ষতিকর অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডের পরিমাণ কমেছে। গত বছরের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় শেষ প্রান্তিকে এ হার কমেছে প্রায় ৫০ শতাংশ।

গুগল প্লেকে অ্যান্ড্রয়েড গ্রাহকদের জন্য নিরাপদ অ্যাপ প্লাটফর্ম বলে উল্লেখ করেছে সার্চসেবার শীর্ষ প্রতিষ্ঠানটি। তারা প্রতিদিন ২০ কোটি ডিভাইস স্ক্যান করার ব্যবস্থা রেখেছে। এতে কোনো ডিভাইস ম্যালওয়্যারে আক্রান্ত হলে সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া সম্ভব হবে। আর এ স্ক্যানের কারণেই ম্যালওয়্যার আক্রমণের পরিমাণ অনেকাংশে কমে এসেছে। লুডউইগ আরো বলেন, বিশ্বের প্রায় ১০০ কোটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে গুগল প্লের মাধ্যমে সেবা দেয়া হচ্ছে। অর্থাত্ নিয়মিত পরীক্ষার মাধ্যমে ম্যালওয়্যারের উপস্থিতি সম্পর্কে জানানো হচ্ছে। এর মধ্যে ১ শতাংশেরও কম ডিভাইসে গত বছর ক্ষতিকর অ্যাপ ডাউনলোড করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে গুগল জানায়, যারা শুধু গুগল প্লের অ্যাপ ব্যবহার করেন তাদের ম্যালওয়্যার-সংবলিত অ্যাপ ব্যবহারের হার দশমিক ১৫ শতাংশেরও কম।

বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ৮০ শতাংশ মোবাইল ডিভাইসেই অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হচ্ছে। আর অ্যান্ড্রয়েডের এ ধরনের বিপুল ব্যবহার ম্যালওয়্যারের জন্যও জনপ্রিয় প্লাটফর্মে পরিণত হয়েছে। এছাড়া গুগলের অপারেটিং সিস্টেমটি ওপেন সোর্স সফটওয়্যার হওয়ার কারণে যে কেউ এটি ব্যবহার করতে পারে। পাশাপাশি অপারেটিং সিস্টেমটির অনেক পুরনো সংস্করণও ব্যবহার হচ্ছে বিপুল সংখ্যক ডিভাইসে, যারা আপডেট নিচ্ছেন না। এ কারণে অ্যান্ড্রয়েডে ম্যালওয়্যার ঝুঁকি অন্য অপারেটিং সিস্টেমের তুলনায় বেশি।

এদিকে গুগল অ্যান্ড্রয়েডের ওপর পূর্ণ কর্তৃত্ব নিতে বেশকিছু উদ্যোগ নিয়েছে। গত বছর বেশকিছু প্রতিবেদনে এ ধারণা পাওয়া যায়। উল্লেখ্য অ্যান্ড্রয়েডের নির্মাতা গুগল হলেও এ দিয়ে স্যামসাংই ব্যবসা করেছে সবচেয়ে বেশি। আর ব্যবসাটিকে নিজেদের কাজে খাটাতেই উদ্যোগী হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এরই অংশ হিসেবে তারা গত বছর অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বড় ধরনের পরিবর্তন আনে। উন্নত এনক্রিপশন ব্যবস্থা, ক্ষতিকর সফটওয়্যার শনাক্তকারী উন্নত টুলসের ব্যবহার অপারেটিং সিস্টেমটিকে আরো নিরাপদ করে তুলেছে বলে দাবি গুগলের।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 − 1 =