আসুন নিজে নিজেই একটি ইলেকট্রিক সাইকেল বানাই

0
1001

সাধারণ সাইকেলের চেয়ে বেশি গতি এবং সাইকেল চালাতে কায়িকশ্রম কম হওয়ার কারণে তরুণরা ইলেকট্রিক সাইকেল কিনছেন। আর এটিকে জনপ্রিয় করতে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ইলেকট্রিক সাইকেল আমদানি করে বিক্রি করছে। কিন্তু এসব সাইকেলের মূল্য বাইসাইকেলের চেয়ে অনেকটাই বেশি। ফলে দেশীয় প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে অনেকেই সাইকেলে ইলেকট্রিক যন্ত্রাংশ সংযোজন করে ইলেকট্রিক সাইকেল তৈরি করিয়ে নিচ্ছেন।

নিজে নিজেই একটি ইলেকট্রিক সাইকেল বানাই (পার্টস সংগ্রহ করে) আসুন নিজে নিজেই একটি ইলেকট্রিক সাইকেল বানাই

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

দীর্ঘদিন ধরে সাইকেলকে জনপ্রিয় করার জন্য কাজ করছেন স্যামুয়েল রানা অধিকারী। তিনি  গাজীপুরের বাংলাদেশ অ্যাডভেন্টিস সেমিনারি অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক। পাশাপাশি দেশীয় সাইকেলকে ইলেকট্রিক সাইকেলে রূপান্তরের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। এছাড়া বিদেশ থেকে হ্যামারের মতো জনপ্রিয় ইলেকট্রিক সাইকেলগুলো আমদানি করে বিক্রিও করছেন।

তিনি বাংলামেইলকে বলেন, ‘কলকারখানা আর মোটরযানের ধোয়ার কারণে শহরের বাতাস দূষিত হয়ে গেছে। শহরের পরিবেশ সুন্দর রাখার জন্য সাইকেলের বিকল্প নেই। সাইকেল চালানো কষ্টসাধ্য বলে অনেকে তা চালাতে নারাজ। তবে তারা চাইলে ইলেকট্রিক মোটরচালিত সাইকেল চালাতে পারেন। এতে করে পরিবহন খরচ অনেকটাই সাশ্রয় হবে। বাঁচবে নগর।’

স্যামুয়েল রানা জানান, আমদানিকৃত হ্যামার ইলেকট্রিক বাইক তিনি ৫৫ হাজার টাকায় বিক্রি করছেন। এছাড়া কেউ চাইলে পছন্দসই যে কোনো বাইসাইকেলকে ইলেকট্রিক বাইসাইকেলে রূপান্তর করে নিতে পারেন। ইলেকট্রিক বাইকের যন্ত্রাংশ এ দেশেই পাওয়া যায়। যন্ত্রাংশ ভেদে দাম পড়বে মাত্র ৯ হাজার টাকা থেকে ২০ হাজার টাকার মতো।

সাইকেল আসুন নিজে নিজেই একটি ইলেকট্রিক সাইকেল বানাইদেশে অনেক দিন ধরে ইলেকট্রিক সাইকেলের যন্ত্রাংশ সংযোজন করে বিক্রি করছেন বিভিটেক লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির কারখানা উত্তরায়। ‘পরাগ’ নামে বিভাটেক তিনটি মডেলের ইলেকট্রিক সাইকেল বিক্রি করছে। মডেলভেদে এগুলোর দাম ২২ হাজার টাকা থেকে ২৮ হাজার টাকা পর্যন্ত।

প্রতিষ্ঠানটির হিসাব কর্মকর্তা আল-আমিন খান বাংলামেইলকে জানান, বিভাটেক তাদের তৈরি বাইসাইকেলগুলোকে আমদানিকৃত ইলেকট্রিক সাইকেলের যন্ত্রাংশ সংযোজন করে ইলেকট্রিক সাইকেল তৈরি করে বিক্রি করছে। প্রতিষ্ঠানটির পরিকল্পনা রয়েছে গ্রাহকদের চাহিদা মাফিক বাইসাইকেলকে ইলেকট্রিক সাইকেলে রূপান্তর করে দেয়ার।

এদিকে রাজধানীর বংশাল, ধোলাইখাল, টিপুসুলতান রোড এবং নবাবপুরে ইলেকট্রিক সাইকেলের যন্ত্রাংশ পাওয়া যায়। ইলেকট্রিক সাইকেল তৈরি জন্য ব্যাটারি, মোটর ও অন্যান্য আনুসঙ্গিক যন্ত্রাংশ কিনে অটোমেকানিক্সদের নিয়ে আপনি নিজেও ইলেকট্রিক বাইক তৈরি করে নিতে পারেন খুব সহজেই।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − 3 =