উইন্ডোজ ৮ মারাত্মকভাবে ধীরগতির হয়ে যায় মাঝে মাঝে? আসুন সমাধান দেখি

0
736

উইন্ডোজের Svchost.বীব নামের সিস্টেম প্রসেস ফাইলটি বিনা কারণেই প্রসেসর সাইকেল অপচয় করে থাকে। এতে অনেক সময় সিস্টেম মারাত্মকভাবে ধীরগতির হয়ে যেতে পারে। এমনকি কিছু কিছু ক্ষেত্রে সিস্টেম ক্র্যাশ করতে পারে। এ ধরনের সমস্যার পেছনে সম্ভাব্য বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে।

প্রথমটি হচ্ছে ম্যালওয়্যার। যেহেতু Svchost.exe একটি কমন উইন্ডোজ সার্ভিস, ম্যালওয়্যার সফটওয়্যার একে প্রতারণার জন্য ক্ষতিকর একটি টুল হিসেবে ব্যবহার করে থাকে। তার কারণ বেশিরভাগ ইউজারের কাছে এটি একটি পরিচিত উইন্ডোজ ফাইল এবং তারা একে সহজেই ভাইরাস হিসেবে মনে করে না এবং ভাবে না এর মাধ্যমে সিস্টেমে কোনো অনিষ্ট হতে পারে। এ ধরনের ম্যালওয়্যার হতে রেহাই পেতে ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার যেমন : অ্যাভাইরার সাহায্য নিতে পারেন। এই টুল ইনস্টল করে রান করা হলে সিস্টেমকে অ্যাভাইরা স্ক্যান করবে এবং সম্ভ্যাব্য ম্যালওয়্যার সে শনাক্ত করবে।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

Svchost উইন্ডোজ ৮ মারাত্মকভাবে ধীরগতির হয়ে যায় মাঝে মাঝে? আসুন সমাধান দেখিকমপিউটারের প্রসেসর সাইকেল অপচয়ের আরেক উৎস হচ্ছে ইউপিএনপি (universal plug-and-play) সার্ভিস। এ সার্ভিসটি আপনার হোম নেটওয়ার্ক স্ক্যান করতে থাকে মূলত সিস্টেমের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ডিভাইসগুলো খুঁজে বের করার জন্য। মাঝে মাঝে সার্ভিসটি আপনার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে এবং প্রসেস সাইকেল নিঃশেষ না হওয়া পর্যন্ত বিরামহীনভাবে তার স্ক্যানিং কার্যক্রম চালিয়ে যেতে পারে। এ সমস্যাটি সমাধানকল্পে প্রথমে Network and Sharing Center ওপেন করুন। এরপর Advanced Sharing Settings-এ গিয়ে Network Discovery অপশনটি অফ করে দিন।

এটি স্বাভাবিক যে Svchost.exe ফাইল সিপিইউ রিসোর্সের একটি বড় অংশ ব্যবহার করবে। মাঝে মাঝে এর ব্যবহারের হার অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যেতে পারে। তবে দীর্ঘ সময় ধরে Svchost.exe ফাইল প্রসেস সাইকেল অস্বাভাবিকভাবে ব্যবহার করছে কি না তা নিয়মিতভাবে মনিটর করতে হবে।

কমপিউটারে একই ফাইলের বহুসংখ্যক অভিন্ন কপির ব্যাকআপ থাকা
উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে রয়েছে বিল্টইন হিস্ট্রি ফাংশনালিটিসহ মজবুত ব্যাকআপ ইউটিলিটি। এর অর্থ হচ্ছে ব্যাকআপ সার্ভিস কমপিউটারে ইতোপূর্বে সংরক্ষিত কোনো ফাইলে পরিবর্তন হলে তা নিজ থেকে শনাক্ত করতে পারে এবং ওই ফাইলের পরিবর্তিত ভার্সন সে সংরক্ষরণ করবে। উইন্ডোজ একই সাথে পুরনো ফাইলটি সিস্টেমে রেখে দেবে। ফাইল পরিবর্তন করার পর যদি মনে করেন সাধিত পরিবর্তনটি সঠিক হয়নি, সে ক্ষেত্রে ব্যাপআপ থেকে পুরনো ফাইলটি ফেরত নিয়ে আসতে পারেন।

উইন্ডোজের এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে উইন্ডোজ ৮ এমন সব ফাইলের ব্যাকআপ নিতে থাকে, যেগুলোর আদৌ কোনো পরিবর্তন হয়নি বা সে ফাইলগুলোর ব্যাকআপ নেয়ার প্রয়োজন নেই। একই ফাইলের একাধিক ব্যাকআপ কপি শুধু হার্ডডিস্ক স্পেস নষ্ট করে থাকে না, এর কারণে সিস্টেম অনেক সময় ধীর হয়ে পড়ে, যা ইউজারের জন্য একটি বিরক্তিকর বিষয়।

দুর্ভাগ্যবশত উক্ত সমস্যার বিষয়ে ইউজারদের পক্ষ থেকে অসংখ্য অভিযোগ থাকা সত্ত্বে সমস্যার মূল কারণ এখনও রহ্যসাবৃত এবং এর জন্য কার্যকর কোনো সমাধান পাওয়া যায়নি। এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে আপনি ডিফল্ট ব্যাকআপ সার্ভিস নিষ্ক্রিয় করে রাখতে পারেন অথবা থার্ডপার্টি সফটওয়্যার যেমন : CrashPlan and EaseUs, ToDo-এর সাহায্য নিতে পারেন।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

four − 1 =