ফরেক্স ব্রোকার নিয়ে আমার ভয়ঙ্কর বিভীষিকার কাহিনী

0
500

ফরেক্স ব্রোকার সিলেক্ট করার আগে আপনাকে অবশ্যই আপনি কোন ব্রোকারে ট্রেড করবেন, কেন করবেন, তাদের সুবিধা অসুবিধা কি, এটা কি ধরনের ব্রোকার, তা গুরুত্ত দিয়ে বিবেচনা করা উচিৎ। কারন এটা অনেকাংশে সত্য যে ফরেক্স এ আপনার সফলতা বা বার্থতা ফরেক্স ব্রোকার এর উপর নিরভর করে। অনেকেই আছে যারা নিজের মাথা না খাটিয়ে অন্নের কথা মত বিভিন্ন ব্রোকার আপনার কষ্টার্জিত টাকা বিনিয়োগ করে ফেলছেন। পরে ধরা খেয়ে শুধু হায় হায় করেছেন। এমন অনেক উধাহরন আমরা জানি, যাক আমি সেদিকে যেতে চাই না। আজকের এই আর্টিকেল টি তে আমি ফরেক্স ব্রোকার এর রকম ফের নিয়ে আলচনা করব। আমরা যারা ফরেক্স ট্রেড করি তারা মুলত যে কোন একটি ব্রোকারের মাধ্যমেই এই ওয়ার্ল্ড মার্কেট এ ট্রেড করি। ফরেক্স ব্রোকার কে অনেক ভাবেই ভাগ করা যায়, আমি মুলত ২ টি ভাগে এটা ভাগ করে বর্ণনা করতে চাই।

ফরেক্স ব্রোকার ফরেক্স ব্রোকার নিয়ে আমার ভয়ঙ্কর বিভীষিকার কাহিনী
ফরেক্স ব্রোকার

১. Market Makers ফরেক্স ব্রোকার

২. ECN/ STP ফরেক্স ব্রোকার

Market Makers ফরেক্স ব্রোকার

মার্কেট মেকার নাম শুনলেই বোঝা যায় তারা মার্কেট মেক করে মানে নিজেদের মত করে মার্কেট বানায়। বোধগম্য হল না তাই না। মার্কেট মেকার ব্রোকারে আমরা যখন বাই করি তারা তখন সেল নেয়। আমরা যখন সেল করি তারা বাই নেয়। তারা মুলত বিড-আস্ক এর যে তারতম্য সেখান থেকেই প্রফিট করে থাকে। কারণ আমাদের এবং তাদের বিড আস্কে ১-২ পিপস বেশকম থাকে। মার্কেট মেকাররা মুলত প্রফিট করে থাকে দুভাবে

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

প্রথমত, স্প্রেড দিয়ে প্রফিট,
দ্বিতীয়ত, ট্রেডারের ট্রেডের এগেইনেস্টে ট্রেড নিয়ে। 

ফরেক্স ব্রোকার ফরেক্স ব্রোকার নিয়ে আমার ভয়ঙ্কর বিভীষিকার কাহিনী
ফরেক্স ব্রোকার

সাধারনত রিটেইল ট্রেডাররা বা আমরা যারা ক্ষুদ্র ট্রেডার তারাই বেশিরভাগই মার্কেট মেকারে ট্রেড করি। এবং সবথেকে আশ্চর্য জনক বিসয় হল ৯০% ব্রোকারই মার্কেট মেকার।

আমি এর আগে অনেক মার্কেট মেকার ব্রোকার এ ট্রেড করেছি এবং আমার কিছু ভয়ংকর অভিজ্ঞতা হয়েছে। মার্কেট মেকার ব্রোকার এর কিছু কমন সমস্যা নিচে তুলে ধরলামঃ

১। যে কোন সময় হটাত করে লিভারেজ কমিয়ে দিয়ে আপনাকে স্টপ আউট খাওয়াবে। আপনি পরে কমপ্লেন করলে আপনাকে কোন একটা হিডেন টার্ম দেখিয়ে দিবে। ২০০০ থেকে ২০০ তে নামিয়ে আনল, কোন কারন ছাড়াই, আমি ত আর জানতাম না এই ঘটনা ঘটবে এবং একাউন্ট ও আডজাস্ট করা হল না, ফলাফল একাউন্ট জিরো।
২। ট্রেড ফ্রিজ করা। আপনি অনেক প্রফিট এ আছেন, মার্কেট খুব ভলাটাইল, আপনার ট্রেড টা এক্ষণই ক্লোজ না করলে আপনি লস এর সম্মুখিন হবেন, কিন্তু বিধি বাম, আপনার ট্রেড বা প্ল্যাটফরম ফ্রিজ করে দেয়া হবে। আপনি শুধু তাকিয়ে দেখবেন কিভাবে আপনার একাউন্ট এর লাভ; লস এ পরিনত হয়ে গেল। আর স্কাল্পিং করলে ত কথাই নেই, আপনি শেষ…… পরে গান গাইবেন…আমার করার কিছুই ছিল না…না না…………।
৩। নিজ টাইম ট্রেড এর উপর বিভিন্ন রুলস আরোপ। আরে ভাই, আমার ট্রেড আমি করব, জেম্নে খুশি তেমনে করব, তাতে আপনার কি!! না এখানে ব্রোকারের অনেক কিছুই আছে। আপনাকে নিজ টাইম এ ট্রেড করে অনেক বেশি প্রফিট তারা নিতে দিবে না, আপনাকে তারা নানা ভাবে আটকাবেই, আর না পারলে…উইথদ্র ত আছেই…।
৪। এক্সিকিউশন স্পিড কম। ট্রেড দিয়ে বসে থাকবে আর দেখবেন মার্কেট আপনার চোখের সামনে দিয়ে প্রফিট না দিয়ে চলে গেল।
৫। ফেক কান্ডেল তৈরি করে স্টপ লস কে হিট করা টেক প্রফিট হিট ণা করা (এটা খুবই কমন প্রবলেম)। অনেক সময় দেখবেন এমন একটা কান্ডেল তারা মেক করেছে যা শুধু আপনার চার্ট এই আছে, অন্য কোথাও নেই।
৬। অনেক বেশি প্রফিট করলে আপনার উইথড্র না দেয়া, কারন আপনার লসই তাদের লাভ আর আপনার লাভই তাদের লস।
৭। ট্রেডিং স্টাইল এর উপর বিভিন্ন রকম শর্তাদি আরোপ করা
৮। রোবট এর ব্যবহার এর উপর নানা কন্ডিশন

৯। যেহেতু, একটি সত্যি কথা হল ৯০% নতুন ট্রেডারের হাতেখড়িই হয়ে থাকে মার্কেট মেকার ব্রোকারে তাই মার্কেট মেকার অলওয়েজ প্রফিটেই থাকে। কারণ ।আমারা এটা সবাই জানি ৯০% নতুন ট্রেডারই লস করে। ব্রোকার মার্কেট মেকিং এর কারণে আপনার লস থেকে উপকৃত হচ্ছে। তার মানে তাদের লস ট্রেডের এগেইনেষ্টে ব্রোকারের উল্টা ট্রেড থাকে যেটা প্রফিটে থাকে। তার মানে আপনি লস করলেই ব্রোকার লাভ করবে।
তবে এটা ও সত্য যে, সব মার্কেট মেকার ব্রোকারই আপনাকে লস করিয়ে দিচ্ছেনা। অনেক সময় আপনি নিজেই নিজের কারণে লস করছেন। কিন্তু যেহেতু আপনার ট্রেডের এগেইনেস্টে তারাও উল্টা ট্রেড করেছে তাই তারা প্রফিটেই ট্রেডটি ক্লোজ করছে।

১০। মার্কেট মেকারে আপনাকে হাই লেভারেজ ১:২০০০ পর্যন্ত অফার করে থাকে এবং ট্রেডার দের আকর্ষণ করতে তারা ১০০%/২০০ কোন সময় আর বেশিও পর্যন্ত বোনাস অফার করে। যেটা STP/ECN দিতে পারবেনা। যদিও খুব কম ক্ষেত্রে এই বনাস প্রক্রিত পক্ষে আপনার কাজে আসে।

ফরেক্স ব্রোকার ফরেক্স ব্রোকার নিয়ে আমার ভয়ঙ্কর বিভীষিকার কাহিনী
ফরেক্স ব্রোকার

তবে যাদের একাউন্টে ডিপোজিট কম তাদের মার্কেট মেকার ছাড়া গতি নেই। তবে আজকাল কিছু ব্রোকার অনেক কম ডিপোজিট নিয়ে ও ইসিএন এর সুযোগ সুবিধা প্রদান করে থাকে, যেমন আরমাডা মার্কেটস। আরমাডা মার্কেটস সম্পর্কে জানতে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ুন। আরমাডা মার্কেটস।

ECN/ STP ফরেক্স ব্রোকার  

অনেক সময় মানুষ ইসিএন ব্রোকার সঙ্গে এসটিপি ব্রোকার কে গুলাইয়া ফেলে, ইসিএন ব্রোকার এ আপনি রিয়েল মার্কেট এ সরাসরি ট্রেড করতে পারেন, যেখানে এসটিপি ব্রোকার হল ইসিএন ব্রোকার এবং মার্কেট মেকার ব্রোকার এর একটি সংমিশ্রণ। ইসিএন সিস্টেম, ট্রেডারদের ডেস্ক এর মধ্য দিয়ে যেতে হয় না। আপনার টাকা কোনো বাধা ছাড়াই ইন্টারবাঙ্ক মার্কেট এ সরাসরি চলে যায়। এই সোজা যাওয়ার প্রক্রিয়াকরণ (এসটিপি) হিসেবে পরিচিত এবং যেহেতু তারা ডিলিং ডেস্ক এর মধ্য দিয়ে যায় না তাই এটি ট্রেডারদের জীবন সহজ করে তোলে। তার মানে হোল এই টাইপের ব্রোকারগুলোতে মুলত ট্রেডারদের অর্ডার কোন ডিলিং ডেস্ক ছাড়াই সরাসরি লিকুইডিটি প্রোভাইডারে (ব্যাংক এবং বড় ব্রোকারে) সেন্ড করে দেয় । সুতরাং এতে অর্ডার দ্রুত এক্সিকিউশন হয়, অতিরিক্ত সময় লাগেনা, এবং কোন রিকোট ও থাকেনা।

ECN এর পুরো মিনিং হল “Electronic Communication Network” এখানে ট্রেডার সরাসরি ওয়ার্ল্ড ফাইনান্সিয়াল মার্কেটে একজন অংশগ্রহণকারী হিসেবে সরাসরি যোগ দেয় যেখানে সে নিজেই সরাসরি অন্যান্য অংশগ্রহণকারী যেমন, ব্যাংক, হেজফান্ড, বিগ ট্রেডার সহ অন্যান্যা ফাইনান্সিয়াল ফার্মগুলার সাথে সরাসরি যোগদান করে।
এখানে ট্রেডারের এগেইনেস্টে ব্রোকার ট্রেড নিতে পারেনা। ECN এর প্রধানতম সুবিধা হচ্ছে এতে ট্রেডারের লস হলে ব্রোকারের কোন প্রফিট হয়না। এবং এখানে ট্রেডারের লাভ বা লস যাই হোকনা কেন ব্রোকারের কোন লাভ-ক্ষতি নেই। ট্রেডার লাভ করুক বা লস করুক সেটাতে ব্রোকারের কোন মাথাব্যাথা নেই। ব্রোকার শুধু মাত্র কমিশন বা স্প্রেডটাই পায়। ট্রেডাররা মুলত হাই স্পীডি এক্সিকিউশন , নো রিকোট , এবং ডিপ লিকুইডিটির জন্যই এখানে ট্রেড করে। একেকটি ব্রোকারের অনেকগুলা লিকুইডিটি প্রোভাইডার থাকে। যাদের যত বেশি লিকুইডিটি প্রোভাইডার সেটাতেই ট্রেডাররা লাভবান হয় এক্সিকিউশন দ্রুততার সাথে হয় ডিপ লিকুইডিটি ফিড এর কারণে। মুলত স্কাল্পার এবং এবং নিউজ ট্রেডার এবং যারা সত্যিকারের সিরিয়াস ট্রেডার তারাই এই টাইপের ECN ব্রোকার পছন্দ করে থাকে।

ফরেক্স ব্রোকার ফরেক্স ব্রোকার নিয়ে আমার ভয়ঙ্কর বিভীষিকার কাহিনী
ফরেক্স ব্রোকার

সব ট্রেডাররা ইসিএন ব্রোকার এর সঙ্গে ট্রেডিং করার বেনিফিট অবিলম্বে বুঝতে পারে না তাই এখানে তাদের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা দেয়া হলঃ

১. একজন ট্রেডার এবং একটি ইসিএন ব্রোকার এর মধ্যে কোন দ্বন্দ্ব হবার প্রশ্ন নেই। কারও জেতার বা ঠকার প্রস্ন নেই।
২. ভাল মূল্য। সম্ভাবনা আছে যে আপনি কেনার সময় লোয়ার আস্ক পাবেন এবং বিক্রয় এর সময় উচ্চতর বিড দাম পাবেন।
৩. তারল্য প্রদানকারী এবং কমিশন স্ট্রাকচার নিজ থেকে পছন্দ করতে পারবেন। আপনি ট্রেড করার আগে আপনার ব্রোকার সঙ্গে এমন শর্তাবলী আলোচনা করতে পারেন।
৪. ট্রেডার দের সেন্টিমেন্ট এবং ভলিউম তথ্য আপনার ব্রোকার এর লিকুইডিটি পুল এর কাছ থেকে অ্যাক্সেস করতে পারবেন।
৫. সম্পূর্ণরূপে নামহীন – সমস্ত ইসিএন ফরেক্স ব্রোকার ট্রেডিং কার্যকলাপ সম্পূর্ণভাবে বেনামী, গোপন এবং নিরপেক্ষ।

৬. তাৎক্ষণিক ও উন্নত ট্রেড এক্সিকিউশনঃ ক্লায়েন্ট্রা, সঙ্গে সঙ্গে লাইভ স্ট্রিমিং উপর ফরেক্স ট্রেড করতে পারেন এবং অবিলম্বে সেরা এক্সিকিউটেবল দাম নিশ্চিতকরণ করতে পারেন। এখানে ব্রোকার এর কোন হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই, কোন কারবার ডেস্ক নেই, তাই কোন পুনরায় উদ্ধৃতি বা রি কোট ও নেই। ইসিএন অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে, ট্রেডাররা ট্রেড অর্ডার এর উন্নত তর এক্সিকিউশন সুবিধা ভোগ করে। আপনি মাউস এর ক্লিক করার সাথে সাথেই ট্রেড এক্সিকিউট হবে, কোন দেরি হবে না বা রি – কোট ও হবে না। অনেক সময় রোবট ব্যবহার করলে এই জিনিস টি সব থেকে বেশি গুরুত্ত পূর্ণ। কারন তখন রি কোট বা স্লিপেজ আপনার রোবট কে ভুল পথে পরিচালিত করতে পারে। এবং এতে আপনার একাউন্ট শুন্য হতে খুব বেশি সময় লাগবে না।

৭. ক্লায়েন্ট টু ব্যাংক ট্রেডিং- ইসিএন মডেল এ ক্লায়েন্টরা বিশ্বমানের ব্যাংক ও যোগ্যতাসম্পন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান এর তারল্য নিয়ে ট্রেড করতে পারেন।

৮. স্বয়ংক্রিয় ফরেক্স ট্রেডিং / বাজার ডেটা – ইসিএন মডেল এ ক্লায়েন্টরা লাইভ, নিরপেক্ষ, এক্সিকিউটেবল বাজারের তথ্য, শ্রেষ্ঠ বিড এবং আস্ক প্রাইস পান যার ফলে তারা তাদের ট্রেডিং মডেল এবং ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা প্রণালী সহজেই অ্যাডজাস্ট করতে পারেন।

৯. ভেরিয়েবল স্প্রেডস – ইসিএন ফরেক্স ব্রোকার এ , ক্লায়েন্টদের সরাসরি বাজার মুল্লে এক্সেস দেয়া হয়। বাজার মূল্য ডীমাণ্ড এবং সাপ্লাই, ভলাটিলিটি এবং অন্যান্য শর্ত অনুধ্যায়ী মুভ করে। এখানে ইন্টার ব্যাংক স্প্রেড(যা খুবী সামান্য)কাটা হয়।
১০. ইসিএন ব্রোকার বিভিন্ন ক্লায়েন্ট এর অর্ডার সরাসরি একে অপরের মধ্যে যোগাযোগ করতে পারে।
১১. নিরাপত্তা এবং কাজে গোপনীয়তা – ইসিএন অ্যাকাউন্ট ব্যবহার এর সর্বাগ্রে সুবিধা হল গোপনীয়তা এবং ফরেক্স ট্রেডের নিরাপত্তা। ফরেক্স মার্কেট এ অনেক প্লেয়ার আছে এবং প্রত্যেক ব্যক্তির পরম গোপনীয়তা ও নিরাপত্তা ভোগ করার জন্য ইসিএন ব্রোকার অনন্য। ইসিএন ব্রোকার এ তারা শুধুমাত্র একজন মিডিল ম্যান হিসাবে কাজ করে, এওং আপনার ট্রেড কে নিরাপত্তার সাথে এক্সিকিউট করে, কিন্টু মার্কেট মেকার রা আপনার ট্রেড কে এক্সেস করে মডিফাই করে।
১২. ট্রেড ধারাবাহিকতা – এই ধরণের অ্যাকাউন্টের আরেকটি সুবিধা ট্রেডার দের কাছে ভালো লাগে তা হল ট্রেড ধারাবাহিকতা। ইসিএন অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি নিউজ টাইম এবং ইভেন্টের সময় কোন সমসসা ছাড়া যে কোন ভলিউম এ ক্রমাগত ট্রেড করতে পারবেন।

ফরেক্স জেড প্যাটার্ন সম্পরকে জানতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুনঃ চার্ট প্যাটার্ন 

ফরেক্স মার্কেট এর উপর আরও স্ট্রাটেজি জানতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুনঃ ফরেক্স ট্রেডিং স্ট্রাটেজি

এই লেখাটি সর্ব প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল এখানেঃ ফরেক্স ব্রোকার 

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × four =