চাঁদের দেশে ফুটবল

0
1275

বিশ্বকাপ শুরুর আগে ফিফা সভাপতি সেপ ব্লাটার আন্তগ্রহ ফুটবল আয়োজনের কথা বলেছিলেন, স্বপ্নটা অবৈজ্ঞানিক। তার এই স্বপ্নের কথা শুনে ‘দ্য মিরর’ একটি প্রতিবেদনের শিরোনাম করেছে, ‘চাঁদে এলিয়েনদের সঙ্গে ফুটবল খেলব আমরা: সেপ ব্লাটার’। যদিও চাঁদের কথা ব্লাটার বলেননি। তিনি বলেছিলেন অন্য গ্রহে ফুটবল খেলার কথা। চাঁদ গ্রহ নয়, উপগ্রহ। তবুও সৌরজগতের চাঁদগুলোয় একবার যুক্তির চরণ ফেলে দেখা যাক আদৌ চাঁদে ফুটবল খেলা যাবে কিনা?

সবটুকু জোছনা মেলে একটা চাঁদেই। এই একটা চাঁদই পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ। বুধ আর শুক্র হচ্ছে চন্দ্রহীন গ্রহ। তবে সৌরজগতে মোট চাঁদের সংখ্যা নেহাত কম নয়, ১৪৬। নাসার সূত্রমতে আরো ২৭টি চাঁদ ‘পরিচয়পত্র’ পাওয়ার অপেক্ষায় আছে। এসব চাঁদের কোনটিতে ফুটবল খেলা যেতে পারে? এই প্রশ্নের উত্তর হবে কোনোটিতেই নয়। কেন নয়, এবার সে কথা বলছি।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

চাঁদের দেশে ফুটবল চাঁদের দেশে ফুটবল

আগেই বলেছি, বুধ ও শুক্র গ্রহের কোনো চাঁদ নেই। ওদের কথা তাই বাদ। পৃথিবীর চাঁদ একটি। এই চাঁদে অভিকর্ষজ ত্বরণের (জি) মান পৃথিবীর এক ষষ্ঠাংশ। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগে প্রকাশিত ‘অন্য গ্রহে ফুটবল কীভাবে সম্ভব’ শিরোনামের লেখায় জি-এর ব্যাখ্যা করেছিলাম। কোনো কিছু যে কারণে কেন্দ্রের দিকে পড়ে বা পড়তে চায় তার কারণ হলো জি। পৃথিবীর জিকে ছয় দিয়ে ভাগ করলে চাঁদের জি পাওয়া যায়। একটা ফুটবল বাতাসে ভেসে উপরে ওঠার পর তাকে যে বল পৃথিবী নিজ কেন্দ্রের দিকে টেনে আনবে, চাঁদ তার চেয়ে ছয়ভাগের একভাগ বলে ফুটবলকে নিজ কেন্দ্রের দিকে টানবে। অর্থাৎ চাঁদে ফুটবলে কিক করলে ফুটবলটি পৃথিবীর মাঠের তুলনায় ছয়গুণ ওপরে উঠে যেতে পারে। ফলে বলটি পুনরায় নেমে আসার আগেই চাইলে খেলোয়াড় বদল পর্যন্ত করে নেয়া সম্ভব! আর গোলরক্ষক যদি কিক করে তাহলে তা উড়তে উড়তে পৃথিবীর যে কোনো মাঠের চেয়ে কয়েকগুণ বড় এমন দূরত্বে গিয়ে মাটিতে পড়বে। অর্থাৎ চাঁদে খেলতে হলে মাঠটি পৃথিবীর মাঠের চেয়ে ছয়গুণ পর্যন্ত বড় করতে হবে। এরকম মাঠে ‘সর্ট পাস’ বলে কিছু থাকবে কি? লং পাসে যারা খেলে অভ্যস্ত তারা হয়ত কিছুটা বাড়তি সুবিধা পাবেন। কিন্তু সমস্যা হলো, অনেক দূরে থাকা নিজ দলের খেলোয়াড়ের কাছে বল পাস করা কঠিন হবে। কারণ অতদূরে কে কোথায় আছে তা মুহূর্তেই ঠাহর করা সহজ হবে না। এবার বেচারি রেফারির কথা ভাবুন, দৌড়াতে দৌড়াতে তার জীবনে বাজার মতো আর কোনো ঘড়ি বা সময় থাকবে না! সামান্য পৃথিবীর মাঠেই সবকিছু পরিস্কার দেখা বা বোঝা যায় না বলে অনেক সময় রেফারির বাঁশি থেকে ভুল সিদ্ধান্ত আসে। এখানে সেই ভুলের আশঙ্কা বাড়বে এটা প্রায় নিশ্চিত।

১৯৭১ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি, চাঁদে অবতরণ করেছিল চন্দ্রযান অ্যাপোলো-১৪। সঙ্গে গোপন একটা ব্যাগ। গোপন এই কারণে যে মিশন নিয়ন্ত্রক বিষয়টা জানতেন না। না, সেটা সোভিয়েত ইউনিয়নের গোপন ক্যামেরা ছিল না। ওই অভিযানে নভোচারী হিসেবে ছিলেন অ্যালান শেফার্ড। তার ইচ্ছা ছিল চাঁদে গলফ খেলার। তাই গলফ খেলার সরঞ্জামাদি নিয়ে গিয়েছিলেন সঙ্গে। এবং চাঁদে গলফ খেলেছিলেন তিনি। দুটো বল তিনি হিট করেছিলেন। যেহেতু একহাত পোশাকের সঙ্গে আঁটোসাঁটোভাবে লেগেছিল, ফলে একহাত দিয়েই তাকে গলফ খেলতে হয়েছিল। শেফার্ড চাঁদ থেকে ফিরে এসে গল্প করে বলেছিলেন, একহাত দিয়ে আঘাত করলেও, দ্বিতীয় বলটা নাকি মাইলকে মাইল দূরে গিয়ে পড়েছিল। এটা অবশ্য সত্যের অতিরঞ্জন। পরে হিসেব কষে জানা যায়, গলফ বলটা ১৮০ থেকে ৩৭০ মিটার পর্যন্ত দূরে গিয়ে পড়েছিল।
কিন্তু এই দূরত্বই বা কম কীসে? ফুটবল মাঠ তো ১২০ মিটারের বড় হয় না। তাহলে চিন্তা করুন, সামান্য একহাতের জোরে একটা গলফ বল যদি সাধারণ ফুটবল মাঠের ২-৩ গুণ দূরে বাতাসে ভেসে যেতে পারে তাহলে ফুটবলে কিক নেওয়ার পর তা কত দূর যাবে! অতএব, চাঁদে ফুটবল খেলা সম্ভব নয়।

এখানে ১৪৬টি চাঁদ নিয়ে আলাদা করে আলোচনা বাতুলতা মাত্র। আমরা বৃহস্পতি গ্রহের দুটো চাঁদ নিয়ে কথা বলে আলোচনায় ইতি টানব।

১৬১০ সালে জ্যোতির্বিদ গ্যালিলিও গ্যালিলি নিজ হাতে বানানো টেলিস্কোপে বৃহস্পতির যে চারটি চাঁদ দেখেছিলেন তাদের মধ্যে সবচেয়ে ছোটটি ইউরোপা। এর পৃষ্ঠ বরফে আচ্ছাদিত। যেমনটা দেখা যায় আমাদের পৃথিবীর উত্তর মেরুর ক্ষেত্রে। কিন্তু ইউরোপার বেলায় বরফ পৃষ্ঠ এমন যে, যে কোনো সময় সেখানে চিড় ধরতে পারে। ওরকম মাঠে ফুটবল খেলা হবে কী করে?

গ্যালিলিও আবিষ্কৃত চারটি চাঁদের আরেকটি হলো আইও। এখানেও ফুটবল খেলার আয়োজন অসম্ভব। কারণ, সৌরজগতের চতুর্থ বৃহৎ এই চাঁদ ‘আগ্নেয়-চাঁদ’ হিসেবে পরিচিত। যে কোনো সময় আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত ঘটতে পারে এই চাঁদে। জীবন বিনাশের শতভাগ নিশ্চয়তা নিয়ে আর যাই হোক, ফুটবল খেলতে কেউ রাজি হবেন না। সুতরাং আমাদের চাঁদে গলফ খেলার কথা সত্য হতে পারে, কিন্তু সৌরজগতের কোনো চাঁদেই ফুটবল খেলা সম্ভব নয়, অন্তত যুক্তি তাই বলে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × three =