অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস গতিময় রাখার পাঁচটি কার্যকারী টিপস

0
347

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত ডিভাইস এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। সহজলভ্য অ্যাপস এবং সাবলীল হওয়ার কারণে ব্যবহারকারীরা ঝুঁকছে অ্যান্ড্রয়েডের দিকে। তবে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে না পারলে ডিভাইসটির গতি কমে যায় উল্লেখযোগ্য হারে।

ডিভাইসের গতি কমে গেলে তা বিরক্তি তৈরি করে। চাইলে সহজে এমন পরিস্থিতি এড়ানো সম্ভব। এ টিউটোরিয়ালে ডিভাইসটি গতিশীল রাখতে পাঁচটি ট্রিপস তুলে ধরা হলো।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

tunerpage-apps অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস গতিময় রাখার পাঁচটি কার্যকারী টিপস

অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটির ফার্মওয়্যার সব সময় আপডেট করে রাখতে হবে। আপডেটেড ফার্মওয়্যার অনেক ক্ষেত্রে বেশ কিছু ক্রুটি মুক্ত রাখার পাশাপাশি ডিভাইসটির গতি কমে যাওয়ার সমস্যা দূর করে থাকে।

মাঝে মাঝেই ডিভাইসটির ইন্টারনাল স্টোরেজ চেক করা উচিত। স্মার্টফোনের স্টোরেজের পরিমাণ কমে গেলে গতি কমে যায়। তাই মাঝে মধ্যে ইন্টারনাল ফাইলে জমে থাকা গেমস, অ্যাপলিকেশন, মিডিয়া ফাইল এক্সটার্নাল স্টোরেজ তথা মেমরি কার্ডে ট্রান্সফার করতে হবে। এতে ইন্টারনাল স্টোরেজ খালি হলে ধীর গতির সমস্যা কেটে যাবে।

অপ্রয়োজনীয় অ্যাপলিকেশনগুলো মুছে ফেললে স্মার্টফোনের র‍্যাম ফ্রি থাকবে। ফলে ডিভাইস আগের তুলনায় কিছুটা হলেও গতিশীল হবে।

ডিভাইসটি বুট বা রিস্টার্ট হবার সময় নির্ধারণ করে দেওয়া এবং কোন অ্যাপলিকেশনগুলো সক্রিয় হবে ও কোনগুলো নিষ্ক্রিয় থাকবে তা ঠিক করার জন্য ‘start up manager’ এর মত কিছু অ্যাপলিকেশন আছে। এ অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

ভালো মানের একটি এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার করলে ডিভাইসটি যেমন ভাইরাস এবং ম্যালওয়্যার থেকে নিরাপদ থাকবে, তেমনি ধীর গতির সমস্যা দূর করবে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty − 12 =