২০টি সেরা ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগ-ইনস, বিস্তারিত বর্ণনা সহ

0
462

ওয়ার্ডপ্রেস বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এটি অত্যন্ত ইউজার ফ্রেন্ডলি হওয়ায় ব্লগিং এর ক্ষেত্রে ব্লগাররা ওয়ার্ডপ্রেসকে প্রথম চয়েজ হিসেবে রাখে।

এটি অন্যান্য কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম জুমলা, ড্রুপাল বা মডএক্স এর চেয়ে অনেক বেশি ইউজার ফ্রেন্ডলি এবং SEO সহায়ক। আর এই ওয়ার্ডপ্রেস এর প্রাণ বলা চলে বিভিন্ন ধরনের প্লাগইনসকে যেখানে কম্পোনেন্ট এবং মডিউল হচ্ছে জুমলার প্রাণ। আজ আমি আপনাদেরকে এই ওয়ার্ডপ্রেস এর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্লাগইনসের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দিবো যে প্লাগইনসগুলোকে আপনারা আপনাদের ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ব্যবহার করে আপনাদের সাইটকে যেমন করতে পারেন আরো আকর্ষণীয় ঠিক একই ভাবে আপনাদের কাজের গতিকে করতে পারেন আরো গতিশীল।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

ওয়ার্ডপ্রেস এর ২০ টি গুরুত্বপূর্ন এবং জনপ্রিয় প্লাগইনস

১.Askimet: Akismate হচ্ছে স্প্যাম থেকে আপনার সাইটকে মুক্তি দেয়ার একটি জনপ্রিয় প্লাগইনস। যেটা wordpress এ-তে ডিফল্ট অবস্থাতেই পাওয়া যায়। আর আমরা সাধারনত যারা wordpress নিয়ে কাজ করি তারা সবাই মূলত স্প্যাম থেকে মুক্তি দেয়ার এই একটি জনপ্রিয় প্লাগইনসটি সম্পর্কে কম বেশি জানি।

২.All-in-one-seo-pack: আমরা সকলেই চাই যে আমাদের সাইটের পোস্টগুলো যাতে সার্চইঞ্চিনে সবার প্রথমে আসে। আর তাই সাইট বা সাইটের পোস্টগুলোকে সার্চইঞ্জিনে গুরুত্বপূর্ণ করতে যেটি কার্যকর ভূমিকা রাখে তা হলো all-in-one-seo-pack নামক প্লাগইনস। এটা ব্যবহার করে মূলত পেজ ও পোস্টের ডিফল্ট টাইটেল ছাড়াও আলাদা টাইটেল দেয়া যায় পছন্দ মত মেটা কীওয়ার্ড বা ডেসক্রীপশন দেয়া যায়।

৩.Bangla-contact-form: বাংলা ভাষা ব্যবহারকারীদের জন্য এই প্লাগইনসটি খুবই জনপ্রিয় যেটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য বাংলাতে কন্টাক্ট ফরম তৈরী করতে পারবেন।

৪.Buddypress: WordPress ব্যবহারকারীদের নিকট আর একটি জনপ্রিয় প্লাগইনস হচ্ছে buddypress । যেটা ব্যহারের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই প্রায় ফেসবুকের কাছাকাছি সব ধরেনের অপশনের একটি সোশ্যাল সাইট তৈরী করতে পারবেন।

৫.Contact-form-7.3.4: আপনি যদি নিজের মনের মতো করে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য কন্টাক্ট ফরম তৈরী করে তাতে নিজের ইচ্ছে মতো রেডিও বাটন, টেক্সট বক্স, চেক বক্স অপশন রাখতে চান তাহলে অপনি ব্যবহার করেত পারেন এই contact-form-7.3.4 নামক এই প্লাগইনসটি।

৬.Creative-clans-slideshow: আপনি যদি উইডজেটে সাইটের আপলোড কৃত বিভিন্ন ধরনের ছবি দিয়ে চমৎকার একটি স্লাইডশো তৈরী করতে চান তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই creative-clans-slideshow নামক প্লাগইনসটি।

৭.Glass: আপনার সাইটের যেকোন ছবি বা ইমেজ কে আরো আকর্ষনীয় করতে আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই glass নামক প্লাগইনসটি। এটি মূলত ম্যাগনিফাইং গ্লাসের মত কাজ করে। এটি ব্যবহার করলে আপনার সাইটেরে যে কোন পোস্টের ছবির উপর মাউসের কার্সর নিয়ে গেলে সেখানে ছবিটির উপর ম্যাগনিফাইং গ্লাসের মত একটি টুল শো করবে যা দ্বারা সেই ছবিটি আরো স্পষ্ট দেখা যাবে। তাছাড়াও এতে রয়েছে পিক্সেল কমানো বা বাড়ানো মতো সুবিধা।

৮.Google-XML-sitemap: WordPress সাইটের সাইটম্যাপ তৈরী করা ও তা আপডেট করার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন একটি প্লাগইনস হচ্ছে google-XML-sitemap নামক প্লাগইনস।

৯.Hupso Share Buttons for Twitter, Facebook & Google+: আপনার WordPress সাইটে কিংবা ব্লগে সোশ্যাল বা সামাজিক ওয়েব সাইটের শেয়ার বাটন যোগ করার জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই প্লাগইনসটি ।

১০.Marquee: আপনি যদি আপনার সোইটে খবরের হেডলাইনের মত চলন্ত আকারে চমৎকার ভাবে লেখা প্রদর্শন করাতে চান তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই marquee নামক প্লাগইনসটি।

১১.Nivo-slider: WordPress সাইটের ঠিক হেডারের নীচে একাধিক ইমেজ এর সাহায্যে চমৎকার ভাবে জে-কুয়েরী স্লাইডশো এড করার জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই প্লাগইনসটি।

১২.Popular-post-widget: wordpress সাইটের উইডজেটে আপনি যদি সবচেয়ে বেশীবার পড়া পোস্টগুলোর টাইটেল দেখাতে চান তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন popular-post-widget নামক প্লাগইনসটি।

১৩.Quick-bangla-installer: আপনি যদি আপনার সাইট ও dashboard কে বাংলায় রূপান্তর করতে চান তাহলে ব্যবহার করতে পারেন quick-bangla-installer নামক প্লাগইনস।

১৪.Recently-viewed-post: এই recently-viewed-post প্লাগইনসটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার সর্বশেষ দেখা পোস্ট গুলোর টাইটেল উইডজেট থেকে সাইটে দেখাতে পারবেন।

১৫.Simple-top-commenter: এই প্লাগইনসটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার সাইটে সর্বোচ্চ মন্তব্যকারীদের একটি উইডজেট আপনার সাইটে দেখাতে পারবেন।

১৬.Super-transition-slidesho: super-transition-slideshow স্লাইড শো এর জন্য আর একটি জনপ্রিয় একটি প্লাগইনসটি।

১৭.Top-authors: আপনি যদি আপনার সাইটে সর্বোচ্চ সংখ্যক লেখা প্রদান কারীকে দেখাতে চান তাহলে আপনি ব্যবহার করেত পারেন top-authors নামক প্লাগইনসটি। এটি মূলত আপনার সাইটে সর্বোচ্চ সংখ্যক লেখা প্রদান কারীকে দেখাবে।

১৮.W3-total-cache: ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবাহরকারীদের নিকট আরেকটি খুবই জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ন প্লাগইনস হচ্ছে w3-total-cache নামক প্লাগইনস। এটা একটি Cache প্লাগিনস যার এর সাহায্যে মূলত JavaScript, HTML, CSS, Image ইত্যাদি ব্রাউজার এ অস্থায়ী ভাবে Cache করে রাখা হয় । ফলে সাইট লোড হতে অত্যন্ত কম সময় লাগে ।তাছাড়াও View Source কে ছোট করা যায় এর মাধ্যমে।

১৯.wp-pagenavi: এটি ব্যবহার করে মূলত পেজ এ নাম্বারিং দেয়া যায় যাতে পুরনো পোস্ট গুলো দেখা যায় অর্থাৎ এটি পেজ নেভীগশনের জন্য ব্যবহার করা হয়।

২০.wp-poll: এটি ব্যবাহর করে আপনি আপনার সাইটের উইডজেটে দর্শক জরিপ এড করতে পারেন।

আপনারা যদি উল্লেখিত প্লাগইনসগুলো ব্যবহার করতে চান তাহলে http://wordpress.org/extend/plugins/ ঠিকানায় গিয়ে সার্চবক্সে আপনার পছন্দের প্লাগইনসটির নাম লিখে সার্চ করুন তাহলেই পেয়ে যাবেন আপনাদের কাঙ্ক্ষিত প্লাগইনসটি । তারপর তা ব্যবহারের জন্য ইন্সটল করে একটিভ করুন।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × 1 =