আপনি কি এখনো বন্ধ হয়ে যাওয়া উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার করছেন? তাহলে আপনাদের জন্য কিছু টিপস

2
518

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এক্সপির সাথে সকল ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। এরফলে উইন্ডোজ এক্সপির ব্যবহারকারীরা মাইক্রোসফটের আর কোন ধরনের সমর্থন কিংবা সহযোগিতা পাবেন না। কিন্তু মজার বিষয় হলো বর্তমান বিশ্বের উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের প্রায় ২৫ শতাংশ উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার করছেন। মাইক্রোসফট এই অবস্থাতেই এক্সপির প্রতি সমর্থন বন্ধ ঘোষণা করে।

windows xp আপনি কি এখনো বন্ধ হয়ে যাওয়া উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার করছেন? তাহলে আপনাদের জন্য কিছু টিপস

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

এমন অবস্থায় আপনি যদি উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তবে হয় আপনাকে এই ওএসটির পরিবর্তন করতে হবে নতুবা এমন কিছু ব্যবস্থা আপনাকে নিতে হবে যেন আপনার ওএসটি ঝুকিমুক্ত থাকে। কারণ এই বন্ধ ঘোষণার ফলে আপনার উইন্ডোজটি আর আপগ্রেড করা যাবে না, মাইক্রোসফটের নিজস্ব ভাইরাস প্রটেকশন ব্যবস্থা কাজ করবে না। ফলে এই খুব সহজেই ভাইরাস এবং ইন্টারনেট বাগ দ্বারা আক্রান্ত হবে। কিভাবে আপনি আপনার উইন্ডোজ এক্সপিকে ভাইরাস থেকে রক্ষা কিংবা নানা ধরনের সিস্টেম ত্রুটি থেকে মুক্ত রাখতে পারেন সে সম্পর্কে জানাবো।

১. আপডেটেড ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহার করুন

ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮ হলো উইন্ডোজ এক্সপি সাথে থাকা মাইক্রোসফটের মূল ব্রাউজার। কিন্তু এটি বেশ পুরোনো সংস্করণের এবং উইন্ডোজ এক্সপির সাথে এটি এখন ব্যবহার করা আর নিরাপদ নয়। এমতবস্থায় আপনি যা করতে পারেন তা হলো আপডেটেড অন্য ব্রাউজার ব্যবহার করা। সবচেয়ে ভালো হয় যদি মজিলা ফায়ারফক্স, গুগল ক্রোম ব্যবহার করেন। কারণ এই দুটি ব্রাউজারের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশ জোরালো। এছাড়াও ব্যবহার করা যেতে পারে অপেরা। ফায়ারফক্স এবং ক্রোম ইন্সটল করার পর ব্রাউজারের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করুন। কিছু ধরনের অ্যাড-অনস রয়েছে যা ম্যালওয়ার যুক্ত জাভাস্ক্রিপ্টকে বন্ধ করে দিতে সক্ষম সেই সকল অ্যাড-অনস ইন্সটল করুন। যেমন ফায়ারফক্সের জন্য গোস্টারি আর ক্রোমের জন্য স্ক্রিপ্টসেফ।

২. ফ্ল্যাশ, জাভা এবং অ্যাডোবি রিডারের বিকল্প ব্যবহার করুন

উইন্ডোজ এক্সপির বর্তমান অবস্থায় অ্যাডোবি তার সকল অ্যাপ্লিকেশন সাপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়াও জাভাও তার সকল সাপোর্ট বন্ধ করে দিবে। এমন অবস্থায় এই সকল অ্যাপ্লিকেশনের বিকল্প ব্যবহার করতে পারেন। ইউটিউব এবং নেটফ্লিক্সের মতো অনেক সাইটেই বর্তমানে এইচটিএমএল৫ ব্যবহৃত হচ্ছে ফলে এই সকল সাইটে ভিডিও দেখার জন্য আপনার ফ্ল্যাশ প্রয়োজন নাও হতে পারে। অ্যাডোবি রিডারের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন নাইট্রো পিডিএফ অথবা ফক্সিট পিডিএফ।

৩. অ্যান্টি ভাইরাসের পুরো সংস্করণ কিনুন

অ্যান্টি ভাইরাসের ক্ষেত্রে আমাদের দেশে ফ্রি সংস্করণটি ব্যবহারের প্রবণতা বেশি। কিন্তু এক্সপির বর্তমান অবস্থায় ফ্রি অ্যান্টিভাইরাসগুলো নিরাপত্তা কতটুকু নিশ্চিত করতে পারবে তা প্রশ্নাতীত। এমন অবস্থায় এক্সপির ব্যবহারকারীরা অ্যান্টিভাইরাসগুলোর পুরো সংস্করণটি ব্যবহার করতে পারেন। বাজারে থাকা অনেক বিক্রিত অ্যান্টিভাইরাসই ব্যবহারকারীদের সিস্টেম নিরাপত্তার সবটুকু দিয়ে থাকেন। এরমধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্যাস্পারিস্কি, নর্টন, সিমেন্টেক সহ আরো অনেক রয়েছে। বাৎসরিক একটি প্যাকেজ নিয়ে পুরো বছর নিরাপদ থাকতে পারেন।

৪. ইন্টারনেট যোগাযোগের বাইরে থাকুন

সবচেয়ে নিশ্চিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা হলো ইন্টারনেট সংযোগবিহীন থাকা যদিও বর্তমান সময়ে এটি প্রায় অসম্ভব। তারপরও আপনার অন্য কোন ডিভাইসের মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযুক্ত থাকতে পারলে আপনার উইন্ডোজ এক্সপিকে ইন্টারনেট সংযোগবিহীন রাখুন।

৫. অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার থেকে আপনার এক্সপি মুক্ত রাখুন

অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার যা আপনার ব্যবহার না করলেও চলে এমন ধরণের সফটওয়্যার আনইন্সটল করুন। এই ধরণের সফটওয়্যার সিস্টেমে জাঙ্ক ফাইল তৈরি করে ফলে তা ভাইরাস কিংবা বাগ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। উইন্ডোজ এক্সপির এই অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার আনইন্সটল করার জন্য রয়েছে বেশ কিছু ভালো আনইন্সটলার তারমধ্যে বেশি জনপ্রিয় আইওবিট, রেভো এবং অ্যাডভান্সড আনইন্সটলার।

উইন্ডোজ এক্সপির এই বন্ধ ঘোষণার মাধ্যমে কম্পিউটারের একটি যুগের অবসান ঘটতে যাচ্ছে। মাইক্রোসফটের সবচেয়ে লাভজনক অপারেটিং সিস্টেম ছিল উইন্ডোজ এক্সপি। উইন্ডোজ এক্সপি ২০০১ সালে বাজারে আসে এবং এর সর্বশেষ আপগ্রেড হয় ২০০৮ সালে। উইকিপিডিয়া তথ্য মতে বাংলাদেশে প্রায় ৯০ শতাংশ পিসি ব্যবহারকারী উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার করেন। আপনি যদি উইন্ডোজ এক্সপি থেকে উইন্ডোজ ৭ আপনার কম্পিউটার আপগ্রেড করতে চান তবে ক্লিক করুন এখানে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

2 মন্তব্য

  1. এক সময় সব সফটওয়্যার, গেমস উইন্ডোজ এক্সপি থেকে সাপোর্ট বন্ধ করে দিবে. তাই এখনি উইন্ডোজ ৭/ ৮.১ এ আপডেট করে ফেলা উচিত.

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

seventeen + seven =