কাটাবনে রহস্য [পর্ব-০১]

4
241

+পূর্বে আলোর নিশানে প্রকাশিত
এক
কাটাবনটার সামনে এসে দাড়ালাম আমি আর শিলু ।এমনিতে দিনের আলোয় বিশেষ কিছু চোখে পড়ল না ।আর সব কাটাবন যেরকম এটাওঠিক সেরকম ।তবে শুধু দিনের বেলায় ।রাতের আঁধারে ওটার রূপ সম্পূর্ন বদলে যায় ।একদম বদলে যায় ।শিলুর দিকে আরচোখে তাকালাম আমি ।গায়ে ওর লম্বা একটা স্যুট রং কালো ।কুচকুচে কালো ।ঢিলে ঢালা একটা প্যান্ট কালো তবে কুচকুচে নয় ।কেমন যেন একটা লালচে লালচে ভাব আছেওটার মাঝে ।মাথায় একটা হ্যাট ।একহাত পকেটে অন্য হাতের আঙুল দিয়ে ঠোট চিপটাচ্ছে ।বেশ জোরে জোরেই ।তারমানে ও কিছু একটা ভাবছে ।অনেক গভির ভাবে ভাবছে ও কোনকিছু ।কিভাবছে সেটা আঁচ করতে পারলাম না ।
:স্যার মাল পত্তর কি বাংলোয় নিয়ে যাব ?
পিছন থেকে বাংলোর কেয়ার টেকার রহিমুদ্দিন কথা শুনে বাস্তব দুনিয়াই ফিরে এল শিলু ।দুটো হাতই গোজে দিলু পকেটে ।
তারপর একবার আমার দিকে রহিমুদ্দিনের দিকে বললঃ নিয়ে যাও ।
:আপনার আসবেন না ?
:আসছি একটু কাটাবনটা দেখেই আসছি ।বললাম আমি ।
দুই
শীতের সকাল ।লেপের নিচে ভালমতো সেটিয়ে আরামের ঘুম দিয়েছি অমনি কলিং বেলটা বেঁজে উঠলো ।একবার ।দুবার ।তিনবার ।
:-অভি দেখতো কে এসেছে ?
রান্নাঘর থেকে মায়ের গলা পেলাম ।অনিচ্ছা সত্ত্বেওলেপের নিচে দু তিনটা পাক দিয়ে উঠে গেলাম ।ঘুম জড়ানো চোখে দরজা খোললাম ।শিলু দাড়িয়ে আছে ।
:-কিরে শিলু এসময় ?কোন কাছ আছে নাকি ? নাকি নতুনকোন রহস্য ?
আড়মোড়া ভাঙতে ভাঙ্খতে এক শ্বাসে বললাম আমি ।
শিলু তেমন কিছু বলল না ।ঘরেও এলোনা ।শুধু জানিয়ে দিয়ে গেল ১২টার দিকে এক সপ্তাহ বেড়ানো যায় এমন কাপড় নিয়ে মায়ের অনুমতি সহকারে যেন ওর বাড়িতে উপস্থিত থাকি ।
বুঝলাম নতুন আরেকটা রহস্যের আঁধারে ডুব দিতে যাচ্ছি আমি কিংবা আমরা ।আমি আর শিলু ।
তিন
১২ টার আগেই পৌছে গিয়েছিলাম শিলুদের বাড়ি ।সেখান থেকে ট্রেনে চেপে সোজা সোনার টেঁকে ।জায়গাটা বেশ চমত্কার ।ঢাকা থেকে এত কাছে এত সুন্দর একটা জায়গা আছে ভাবা যায়না ।
নিজের অজান্তেই চেচিয়ে উঠলামঃ জায়গাটাতো বেশ চমত্কার !!!
:-আমাদের নতুন রহস্যটাও কিন্তু দারুন ।মুচকি হেসে বলল অভি ।
:-মানে ? ।নাক কুচকালাম আমি ।
*** ***
:-এই কি সেই কাটাবন ?
কাটাবনটার সামনে পৌছে শিলুকে প্রশ্ন করলাম আমি ।
:-হ্যা ।ছোট্ট উত্তর শিলুর ।
:-এর মধ্যে আমার কি রহস্য দেখলি তুই ?
:-রহস্য তো অবশ্যই আছে ।তবে কিনা তা রাতের আঁধারে লুকানো ।দিনের আলোয় দেখা যায়না ।
শিলুর কথার মাথা মুন্ড কিছুই বুঝতে পারলাম না আমি ।
তাই আর কথাও বাড়ালাম না বেশি ।কি জানি কখন ‘গাধা’বলে বসে ।আজকাল ও বড্ড বেশি বেশি বিদখুটে প্রাণীটার নামে আমাকে সম্বোধন করে সে ।
চলবে …
[লেখাটা শ্রদ্ধেহ মুন আপুকে উত্সর্গ করলাম]

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

4 মন্তব্য

  1. অসাধারন লিখেছেন… পরেরটুকু কবে লিখবেন? ধন্যবাদ

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + seventeen =