[Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

2
7151
[Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

আতিফ

আমার পোস্ট সম্পর্কিত কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জিজ্ঞাসা করুন অথবা মেইল করুনঃ sfv666@gmail.com

মেইল করলে, যদি পারেন পোস্টের নাম অথবা লিঙ্ক উল্লেখ করে দিলে ভালো হয়। ধন্যবাদ
[Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

এন্ড্রয়েড ফোন কেনার পর সবার চিন্তা থাকে কিভাবে রুট করবেন। অনেকে হয়তো হুজুগে পড়ে রুট করেও ফেলেছেন। এখন আর বুঝতে পারছেন না কি করবেন। রুট করার পর কি করতে হয় এবং কি করা যায় সেটা নিয়েই এই পোস্ট। 

Superuser/ SpuerSU:

রুট করা মানে হচ্ছে ফোনের এডমিনিস্ট্রেটিভ (administrative) পারমিশন নেওয়া। এই পারমিশন ম্যানেজ করার জন্য আপনার যে অ্যাপ্লিকেশন দরকার সেটা হচ্ছে – Superuser বা SpuerSU.

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

android-reverse-tethering2 [Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

রুট করার সময় এটি নিজে থেকেই ইন্সটল হয়ে যাবে। যদি কোন কারনে ইন্সটল না হয় তাহলে প্লে-স্টোর থেকে আপনি ফ্রিতে এটা ডাউনলোড করতে পারবেন। লিঙ্কঃ

Superuser (Developer – ChainsDD)

Superuser (Developer – Clockworkmod)

SuperSU (Developer – Chainfire)

Backup এবং Custom Recovery (CWM/TWRP):

এবার আপনার কাজ হবে আপনার ফোনের কারেন্ট রমের একটি ব্যাকআপ তৈরি করা। ব্যাকআপ (Backup) তৈরি করা মানে হচ্ছে আপনার ফোনের সিস্টেম ফার্মওয়্যারের একটা হুবহু কপি তৈরি করা।

যেহেতু আপনার ফোন রুট করা সেহেতু আপনি যা ইচ্ছা তাই করতে পারবেন। কিছু না বুঝে ভুল করে ফেললে আপনার ফোন সফট ব্রিক হয়ে যেতে পারে। তখন ডিভাইস শুধু বুট এনিমেশনে এসে আটকে যাবে। ব্যাকআপ নেওয়া থাকলে সেটা রিস্টোর করলেই আপনার ফোন আগের অবস্থায় ফিরে যাবে।

ব্যাকআপ নেওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে যেকোন একটি কাস্টম রিকভারি ইন্সটল করা। সংক্ষেপে রিকভারি হচ্ছে ফোনের একটা বুট-মোড যেখান থেকে আপনি ফোনের পুরো পার্টিশন ফরম্যাট করতে পারবেন অথবা মেমোরি কার্ডে থাকা update.zip ফাইল দিয়ে ফোন আপডেট করতে পারবেন।

সব এন্ড্রয়েডে একটা স্টক রিকভারি থাকে, তবে সেটাতে অনেক অপশন নেই। তার জন্য দরকার কাস্টম রিকভারি।

Unroot Nexus 4 to Stock 4.2.Still013 [Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

 

Stock Recovery

IMG_20140105_232148 [Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

 

Custom Recovery

কাস্টম রিকভারি ইনস্টল করার অনেক পদ্ধতি আছে। এর মধ্যে MTK Chipset ফোনগুলোর জন্য একটা হচ্ছেঃ

১. প্রথমে আপনার ফোনের জন্য বানানো কাস্টম রিকভারি ফাইল ডাউনলোড করুন। ফরম্যাট হবে .img। কোন জিপ ফাইল থাকলে এক্সট্র্যাক্ট করে .img ফাইলটি সংগ্রহ করুন

২. ফাইলটি আপনার ফোনের মেমোরি কার্ডে রাখুন

৩. এরপর প্লে-স্টোর থেকে Mobileuncle Tools অ্যাপ্লিকেশনটি ইনস্টল করে নিন। লিঙ্কঃ https://play.google.com/store/apps/details?id=com.mobileuncle.toolbox

৪. তারপর Recovery update অপশন থেকে রিকভারি ফ্ল্যাশ করুন

ROM Manager:

রম ম্যানেজার সব ব্র্যান্ডেড ফোন এবং কিছু অফ-ব্র্যান্ড ফোন সাপোর্ট করে। রম ম্যানেজার ইনস্টল করে আপনি নেট থেকে আপনার ফোনের জন্য CWM রিকভারি ডাউনলোড করে ফ্ল্যাশ করতে পারবেন।

Download Link: http://www.appsapk.com/rom-manager/

ADB থেকে ফ্ল্যাশঃ

এ পদ্ধতিতে যেসকল ডিভাইসে বুটলোডার থাকে এবং ফাস্টবুট (fastboot) এর মাধ্যমে কমান্ড দেওয়া যায় শুধু মাত্র সে সকল ডিভাইসে রিকভারি ফ্ল্যাশ করা যাবে। বেশির ভাগ চাইনিজ / অফ-ব্র্যান্ড ফোনের বুটলোডার থাকে না, তাই এই পদ্ধতি কাজ করবে না।

১. প্রথমে SDK file ডাউনলোড করুনঃ http://www.android.net/forum/downloads.php?do=file&id=67

২. SDK_tools.zip ফাইল টি এক্সট্রাক্ট করুন

৩. SDK_tools ফোল্ডার কপি করুন। পিসির C:\ ড্রাইভে যান। ফোল্ডার পেস্ট করুন

৪. আপনার ফোনের রিকভারি ইমেজটি SDK_tools ফোল্ডারে কপি করুন

৫. ফোনের USB Debugging অন করুন। Settings > Developer Options

৬. USB কেবল দিয়ে ফোন কানেক্ট করুন

৭. Windows Command Prompt ওপেন করুন। Start বাটনে ক্লিক করে cmd লিখুন পেয়ে যাবেন। অথবা Win key + R চাপুন, Run ওপেন হবে। সেখানে cmd লিখে এন্টার করুন। এরপর নিচের কমান্ড লিখুনঃ

cd C:\ SDK_tools

এরপর লিখুনঃ

adb devices

List of Devices এ কিছু সংখ্যা দেখাবে।

ADB [Android Guide]: রুট করার পর কি করবেন?

তারমানে ডিভাইস পিসিতে কানেক্ট হয়েছে ঠিকমত। এরপর এই কমান্ড গুলো দিনঃ

adb reboot bootloader

fastboot oem unlock

fastboot reboot

ফোন রিবুট হওয়ার পর USB Debugging অন করা আছে নাকি সিউর হয়ে নিন। এরপর আবার কমান্ড প্রম্পটে লিখুনঃ

cd C:\SDK_tools

adb reboot bootloader

fastboot flash recovery recovery.img

ফ্ল্যাশ হওয়ার ভেরিফিকেশন দেখালে ডিভাইস রিবুট করুন fastboot reboot  কমান্ডের মাধ্যমে।

fastboot oem unlock এই কমান্ড দেওয়ার পর আপনার ডিভাইসের সমস্ত ডাটা মুছে যাবে

ব্যাকআপ নেওয়াঃ

হয়ে গেল আপনার রিকভারি ফ্ল্যাশ করা। এবার আপনার কাস্টম রিকভারিতে যান। প্রায় সব এন্ড্রয়েডে রিকভারিতে যাওয়ার সিস্টেম হচ্ছে ডিভাইস অফ করে Voulme up button + Power Button চেপে ধরে অন করা। গুগলে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন কিভাবে আপনার ডিভাইসের রিকভারিতে যেতে হয়। ব্যাকআপ এক্সটার্নাল মেমোরি/ মেমোরি কার্ডে রাখা ভালো।

রিকভারিতে গেলে আপনি অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন। এরমধ্যে backup and restore সিলেক্ট করেন। তারপর backup সিলেক্ট করলেই আপনার ফোনের ব্যাকআপ শুরু হবে। শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করুন।

ব্যাকআপ নেওয়া শেষ হলে ডিভাইস রিকভারি থেকে রিবুট দিন। মেমোরি কার্ডে রিকভারির নামে একটা ফোল্ডারে আপনার ব্যাকআপ পাবেন।

 

Application:

এবার আসি অ্যাপ্লিকেশনের কথায়। রুট করেছেন, এখন বিভিন্ন রকম অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আপনার ডিভাইস কাস্টমাইজ করতে পারবেন। কিছু ইউজফুল অ্যাপ্লিকেশনের নাম নিচে দেওয়া হলঃ

  • Root Explorer: ডিভাইস কাস্টমাইজ করতে গিয়ে বা ডিভাইস সম্পর্কে কোন তথ্য জানতে হলে অনেক সময় সিস্টেম ফাইল ব্রাউজ করার দরকার হয় যা সাধারন ফাইল ব্রাউজার দিয়ে করা যায় না। এই কাজের জন্য দরকার Root Explorer.
    Download
  • ES File Explorer: এটা রুট ছাড়াও কাজ করে। তবে এটার ইউজার ইন্টারফেসটি বোঝা সহজ। রুট এক্সপ্লোরার (Root Explorer) অন করলে এটা থেকেও সিস্টেম ফাইল ব্রাউজ করা যাবে। প্লে-স্টোর থেকে ফ্রিতে নামাতে পারবেন।
    Play Store link
    Direct Download

  • Titanium Backup:  টাইটেনিয়াম ব্যাকআপ দিয়ে আপনার ডিভাইসের অ্যাপ্লিকেশনের ব্যাকআপ, সিস্টেম অ্যাপ্লিকেশন ফ্রিজ (Freeze), আন-ইন্সটল (Un-install), কোন অ্যাপ্লিকেশনকে সিস্টেম অ্যাপ বানাতে পারবেন। প্লে-স্টোর থেকে ফ্রি ভার্সন নামিয়ে ইনস্টল করতে পারবেন। এডভান্সড কাজ করতে প্রো (Pro) ভার্সন লাগবে।
    Play Store link
    Direct Download
    Titamium Backup Pro

  • Greenify: গ্রিনিফাইয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন হাইবারনেট করে রাখতে পারবেন। তাহলে র‍্যাম ইউসেজ অনেকটাই কমে যাবে। ফলে ডিভাইস ফাস্ট এবং স্মুথ চলবে। গ্রিনিফাইয়ের নতুন ভার্সন রুট ছাড়াই কাজ করে।
    Play Store
    Direct Download

  • Link2SD: ডিভাইসের রম/ ইন্টার্নাল স্টোরেজ স্পেস বাড়ানোর জন্য এটা ব্যবহার করতে পারেন।
    Play Store
    Direct Download
    Tutorial

  • ROEHSOFT RAM Expander: এই অ্যাপ্লিকেশন দিয়ে ডিভাইসের র‍্যাম বাড়ানো যায়। তবে ফোন সোয়াপ সাপোর্টেড হত হবে
    Download
    SWAP Check
    Direct Download
    Tutorial

    অনেক অ্যাপ্লিকেশন বা ওয়েব পেইজ বিরক্তিকর এড দেখায়, এটা বন্ধ করতে নিচের অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করতে পারেন।
  • Adfree
  • Adaway
  • Ad Block Plus

  • Clean Master: 
    Play Store link
    Direct Download

  • Set-CPU: ডিভাইসের সিপিইউ (CPU) এর স্পিড বাড়াতে হলে এই অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করে নিন।
    Download

  • Tasker: এন্ড্রয়েডে যেসকল কাজ নিয়মিত করতে হয় সেগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে করার জন্য Tasker. এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন টাস্ক কনফিগার করে রাখতে পারবেন যাতে নির্দিষ্ট সময়ে সেগুলো আপনার করতে হবে না, নিজে থেকেই চালু হবে।
    Download

  • Tasker App Factory: এটা Tasker এ বানানো অটোমেটেড স্ক্রিপ্টগুলোকে ডিস্ট্রিবিউটেবল apk ফাইলে কনভার্ট করতে পারে।
    Download

  • Busybox: এন্ড্রয়েড লিনাক্স ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম হলেও লিনাক্সের সব কমান্ড ব্যবহার করা যায় না। তবে Busybox ইনস্টল করলে সে সকল কমান্ডও ব্যবহার করতে পারবেন।
    Play Store
    Download

  • Roundr: ডিভাইসের স্ক্রিনের কোনা গুলোকে রাউন্ড বানাতে চাইলে এটা ইনস্টল করুন।
    Download

  • ROM Toolbox

  • DiskDigger: ফোনের ডিলিট হয়ে যাওয়া ফাইল রিকভার করার অ্যাপ্লিকেশন
    Play Store
    Download

  • BetterBatteryStats

  • LMT Launcher

  • FPS Meter: গেমসের FPS (Frame Per Second) দেখার অ্যাপ্লিকেশন।
    Play Store link
    Download

  • StickMount: USB Flash Drive মাউন্ট করার জন্য
    Download

  • Droidwall: ডাটা রেস্ট্রিক্ট করার জন্য
    Play Store
    Direct Download

  • Screencast – Screen recorder
     

ROM Customization:

অনেক অ্যাপ্লিকেশন দেখলাম। এবার আসি রম কাস্টমাইজেশনে। আপনার ডিভাইসে বিভিন্ন রকম ফিচার যুক্ত করতে চাইলে এবং রমের বিভিন্ন কাস্টমাইজেশনের সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে Xposed Framework এবং Xposed Module ব্যবহার করা।

Xposed Framework হচ্ছে একটা অ্যাপ্লিকেশন যার মাধ্যমে আপনি রম মডিফাই করতে পারবেন – কোন রকম apk এডিট বা কোন কিছু ফ্ল্যাশ করা ছাড়াই। আর Xposed Modules হচ্ছে মডিফাই করার অ্যাপ্লিকেশন যেটা Xposed Framework থেকে এনেবল  করে নিতে হয়।

Original thread from XDA-forum

উপরের লিঙ্ক থেকে Xposed Framework ডাউনলোড করতে পারবেন এবং কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা জানতে পারবেন।

নিচের লিঙ্কে Xposed Modules এর বিশাল লিস্ট আছে। সেই সঙ্গে আছে কোন মডিউল দিয়ে কি করা যায় তার সংক্ষিপ্ত বিবরণ।

Collection of XPOSED Modules

Custom ROM:

কাস্টম রম মানে হচ্ছে কাস্টমাইজড রম। স্টক রম এডিট করে এটা রিলিজ করা হয়। বিস্তারিতঃ

Android]: Custom ROM কি? কেন ও কিভাবে Custom ROM ইন্সটল করবেন?

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

6 − two =