অ্যাপেলের স্পেস শিপ

1
1094

apples-new-spaceship-campus-bears-a-freaky-resemblance-to-the-uks-nsa অ্যাপেলের স্পেস শিপ

 

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

সর্বদাই নতুন কিছু করার উদ্যোগ নিয়ে থাকে অ্যাপেল, এবার নতুন আইফোন নয়। এবারের গুজব অ্যাপেলের স্টেট-অফ-দ্যা-আর্ট, নতুন হেড কোয়াটার – অ্যাপেল ক্যাম্পাস ২। অ্যাপেলের পূর্ব প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস যার বিবরণ দিয়েছিলেন “স্পেস শিপ” হিসেবে।

টেক কোম্পানির মডেলটি নিয়ে গত দুই বছর যাবত কাজ চলছে। অ্যাপেল দর্শকদের জন্য গত শুক্রবার সান জোওস মার্কারি নিউজের মাধ্যমে ইন্টারনেটের এই প্রজেক্টের মডেল প্রকাশ করেছে। কুপারটিনো সিটি কাউন্সিলে আগামি মঙ্গলবার এই প্রোজেক্টটির দাখিলা দেয়া হবে।

 

apple-spaceship-campus-2 অ্যাপেলের স্পেস শিপ

 

এই আকর্ষণীয় স্পেসশিপের মত ২.৮ মিলিয়ন স্কোয়ার ফিটের চারতলা বিল্ডিং মডেলটিতে ১৩,০০০ কর্মচারী কাজ করতে পারবেন। এই প্রোজেক্টের জমির জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে প্রায় ১৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং সম্পূর্ণ প্রোজেক্টে খরচ পড়ছে প্রায় ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। অ্যাপেল আরও ৯৮ একর জমি, এইচ পি – এর কাছ থেকে কিনে নিয়েছে এই প্রোজেক্টের জন্য। এই মডেলের মেইন বিল্ডিং এর গ্লাসশিটগুলোকে এমনভাবে বসানো হবে যাতে এটি দেখতে একটি Mother ship এর মত দেখায়। মডেলটিতে অডিটোরিয়াম, ফিটনেস সেন্টার, জগিং পার্ক থাকবে এবং এটি অনেক বেশি ইকো ফ্রেন্ডলি হবে। প্রোজেক্টের আন্ডারগ্রাউন্ড পার্কিং –এ ২৪০০ গাড়ি পার্কিং –এর সুবিধা এবং ক্যাফেতে ৩০০০ জনের বসার ব্যবস্থা রাখা হবে।

 

apple_campus_2_cafe অ্যাপেলের স্পেস শিপ

 

অ্যাপেলের চিফ ফাইনান্সিয়াল অফিসার পিটার অপেনহেইমর এই সম্পর্কে জানান, এইটি হবে টেক ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে বড় উদ্ভাবক এবং সহযোগিতামূলক টিমের বাসস্থান।

বিল্ডিংটি শুধুমাত্র সিভিল ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য আই-ক্যান্ডি নয়, বরং “এনার্জি এফিশিয়েন্ট বিল্ডিং” গুলোর রোল মডেল হিসেবে ধারনা করা হচ্ছে। এই বিল্ডিংএর পাকা ছাদে সম্পূর্ণ সোলার প্যানেলের আবরণ রাখা হবে বলে জানা যায়।

অ্যাপেলের এই টপ সিক্রেট প্রোজেক্টের ইন্টেরিওরের সম্পূর্ণ বিবরণও প্রকাশ পেয়েছে। মার্কিনরা এই প্রোজেক্টটিকে ৮ম আশ্চর্য হিসেবে ধারণা করছেন।

 

apple-spaceship-complex অ্যাপেলের স্পেস শিপ

 

কমপ্লেক্সে কোম্পানি কর্মচারীদের বাসস্থানেরও ব্যবস্থা করা হবে এবং স্পেসশিপ বিল্ডিংটি কমপ্লেক্সের মেইন বিল্ডিং হবে। ডিজাইনটি প্ল্যানের সর্বশেষ পর্যায়ে আছে এবং অ্যাপেল রিপ্রেসেন্টেটিভরা এটিকে নতুন টেক-ভেঞ্চার হিসেবেই দেখছেন। ডিজাইনটি নভেম্বর ১৯, ২০১৪ তে অনুমোদন পেলেই অ্যাপেল কমপ্লেক্সটির রুপায়নের কাজ শুরু হবে। ২০১৬ নাগাদ অ্যাপেলের এই Mothership –টিকে বাস্তবে দেখা যেতে পারে বলে সবাই আশা করছেন। অ্যাপেল কোম্পানি কুপারটিনো বাসিন্দাদের কাছে এই কর্পোরেট অফিসটির অনুমোদনের পক্ষে ভোট চেয়েছেন।

অ্যাপেল এই স্পেসশিপ ডিজাইনের কর্পোরেট হেড কোয়াটার নির্মাণে সক্ষম হলে, টেক লিডার কোম্পানি হিসেবে অ্যাপেল নতুন কৃতিত্ব অর্জন করবে।

Advertisement -
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 5 =