যেমন মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ৯

0
262

খুব বেশি সময় গড়ায়নি মাইক্রোসফট তাদের বহু প্রতীক্ষিত উইন্ডোজ ৮ কে উইন্ডোজ ৮.১ এ আপগ্রেড করেছে। এখন উইন্ডোজ ব্যবহারকারীরা দিন গুনছেন উইন্ডোজ ৯ ব্যবহারের জন্য। আবার উইন্ডোজের ৮.১ এর দ্রুত সংস্করণের জন্য কিন্তু এ আশা করা যায় না, খুব শিগগিরই উইন্ডোজ ৯ আসতে যাচ্ছে। তবে গুজব আছে যে, ২০১৫ এর এপ্রিলে মধ্যেই আমরা নতুন উইন্ডোজ পেতে যাচ্ছি।
ফেসবুকে ‘কনজ্যুমার রিপোর্টস’ তাদের ফলোয়ারদের কাছে জানতে চেয়েছিল, উইন্ডোজ ৯ তারা কীভাবে আশা করছেন। নগণ্য সংখ্যক মানুষ এখনো উইন্ডোজ ৭ এবং উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার করেন। বাকিদের চাওয়া, মাইক্রোসফট তাদের এই উইন্ডোজকে ক্রমাগত এগিয়ে নিয়ে যাবে, যাতে থাকবে আরো শক্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা, তথ্যের ক্রুটিহীন উৎস এবং সহজতর ব্যবহার।
ফেসবুকে বিশাল সংখ্যক কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে মতামত নিয়ে ‘কনজ্যুমার রিপোর্টস’ জানাচ্ছে, উইন্ডোজের পরের ভার্সনটি সবাই কেমন দেখতে চান।
আরো ভাল অ্যাপস
বর্তমানের জনপ্রিয় ট্যাবলেট ব্যবহারের মজাটা যদি কম্পিউটারে আনতে হয়, তবে মাইক্রোসফটকে অবশ্যই অ্যাপ্লিকেশন স্টোর বাড়াতে হবে। কারণ গুগলের প্লে এবং অ্যাপলের অ্যাপস স্টোরে মানুষের আগ্রহের কমতি নেই। তেমনই উইন্ডোজকে মারাত্মক কিছু অ্যাপস স্টোরের উৎস সংযোজনের প্রয়োজন আবশ্যিক।
সহজতর আপডেট
সবকিছুর আপডেট আরো সহজ করা জরুরি। অনেক সময়ই আমরা সারা রাত কম্পিউটারটি খুলে ঘুমাতে চাই না। আবার আপডেটের যন্ত্রণা নিয়ে বসেও থাকা যায় না। খুবই ভালো হবে, যদি আপডেট করা অবস্থায় বন্ধ করা হলে মাইক্রোসফট জিজ্ঞাসা করবে যে, আপনি এই আপডেট কি পরে করতে চান?
বিনামূল্যে ক্লাউড স্টোরেজের জায়গা বৃদ্ধি
মাইক্রোসফটের ক্লাউড স্টোরে বর্তমানে বিনামূল্যে দেওয়া ৭ গিগাবাইট অতি নগণ্য। সবাই উইন্ডোজ ৯ এ ২০০ গিগাবাইটের বেশি জায়গা আশা করছেন, যা ওয়ানড্রাইভে পেতে হলে ১০০ ডলার গুনতে হয়।
ডেস্কটপ অথবা টাইল মোডে লক করার ব্যবস্থা
টাইল মোডে উইন্ডোজ ট্যাবলেট ব্যবহারের সময় কি কখনো কোনো ফাইল খুলেছেন এবং সে সময় কি ডেস্কটপের কোনো প্রোগ্রাম খুলেছে? এ কাজ করতে একটি কি-বোর্ড সংযোজন করাটা খুবই বিরক্তিকর ব্যাপার। গতানুগতিক ডেস্কটপে এবং টাইল মোডে কাজ করার জন্য মাইক্রোসফটের ডিফল্ট অ্যাপস পছন্দ করে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া উচিত। তা ছাড়া ডেস্কটপ পর্দার কোনো ফাইল খোলার পর যদি কোনো কি-বোর্ড সংযোগ করা না থাকে, তবে অটোম্যাটিক একটি ভার্চুয়াল কি-বোর্ড পপ-আপের ব্যবস্থা থাকাটা জরুরি।
স্টার্ট বাটন ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা
বহু ব্যবহারকারী আছেন যারা পুরোনো উইন্ডোজেই আছেন। আগামী উইন্ডোজ ৯ এ এমনই ব্যবস্থা করা উচিত, যাতে পুরোনো সংস্করণ ব্যবহারকারীরা ইচ্ছে করলে পুরোনো স্টার্ট বাটনটি ফিরিয়ে আনতে পারবেন।
সময় এবং দিন দেখতে পারা
অনেক সময়ের জন্যই এটি প্রয়োজনের বিষয়। স্টার্ট মোডে চার্ম মেন্যুটি সরালেই কেবল দিন সময় দেখা যায়। এ অবস্থায় মাইক্রোসফটের কাছে সবার অনুরোধ, স্টার্ট পেজে সুইপ এবং স্ক্রল ছাড়াই যেনো সময় ও দিন দেখা যায়।
ক্যালেন্ডার ও মেইল ঠিকঠাক করা
মাইক্রোসফটের মেইলের উচিত পপ৩ মেইল সাপোর্ট করা। ওদিকে ক্যালেন্ডার এতো বেশি সাদা-সিধে যে, তা সবার কাছে বিদঘুটে মনে হয়। সবাই চাইছেন, এসব প্রয়োজনীয় অ্যাপসগুলো সহজে বোঝা যায় এমন ঝকঝকে পরিষ্কার ইন্টারফেস থাকবে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 + 19 =