ফ্রিল্যান্সিং / আউটসোর্সিং কারিয়ারে সফল হওয়ার উপায়

2
423

বর্তমানে তরুণদের আরেকটি স্মার্ট পেশা হলো ফ্রিল্যান্সিং, দিন যত যায় ততই আমরা আধুনিকার ছোয়া পাচ্ছি এবং সুযোগ সুবিধাগুলো কাজে লাগিয়ে জীবনকে আরো সহজতর করছি, এখন যেকেউ ঘরে বসে কোন পণ্য অর্ডার করলেই পন্য পৌছে যায়, আবার মোবাইলে মোবাইলে মুহুর্তের মধ্যেই পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে টাকা চলে আসে, ঠিক তেমনি আপনার একটা ইন্টারনেট সংযুক্ত পিসি থাকলেই আপনি ঘরে বসেই এই স্মার্ট পেশায় নিজের ক্যারিয়ার নিজের ইচ্ছে মত গড়ে তুলতে পারেন তথা দেশের জন্য প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আনতে পারেন, অনলাইনে দেশ বিদেশের যেকোন জায়গা থেকে নিজের ইচ্ছেমত কেনা কাটা করতে পারেন। সবচেয়ে বড় কথা হলো এখানে আপনি সম্পূর্ণ স্বাধীন বন্ধুর মাঝে আড্ডায়, কোথাও বেড়াতে গেলেন অথার্ৎ যেকোথাও বসে আপনি কাজ করতে পারেন। মনে আছে ২০১১ সালে চিটাগাং এডমিশন টেস্ট দিতে যাচ্ছি, ঔই সময় একটা পুরাতন বায়ারের জরুরী একটা কাজ করে ঔইদিন করে দেওয়ার জন্য অনেক রিকুয়েস্ট করছিলো, গিফ্টও দিবে বলেছে, তাই ঔই সময় ট্রেনে বসেই ৮৫ ডলারে কাজটা শেষ করলাম ৪ ঘন্টায়, কাজ শেষে বায়ার খুশি হয়ে ১৫ ডলার বোনাসও দিলো।

 

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

আমরা যা শিখি:

অনলাইনে “ফ্রিল্যান্সিং” নাম কাজে লাগিয়ে অনেকেই এটাকে বিভিন্ন অসৎ পথে পরিচালনা করার চেষ্টা করেছেন যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, ডোল্যান্সার, স্পিকএশিয়া, সাইটটক, ইউনিপেটুইউ, আবার দেখা যায় দেশের বিভিন্ন জেলায় আউটসোর্সিং/ফ্রিল্যান্সিং নাম কাজে লাগিয়ে কোন রেফারেল লিংক কিংবা পিটিসি সাইটগুলোতে ভিজিট/ক্লিক করতে বলেন, অনেকে আবার ঠিকই সত্যিকার ফ্রিল্যানিসিং মার্কেট প্লেস যেমন ওডেস্ক, ইল্যান্স, ফ্রিল্যান্সার ইত্যাদিতে একটা একাউন্ট খুলেই নিজের দায়িত্ব শেষ করেন। অথচ তারা নিজেরাও কখনো এখানে কাজের অভিজ্ঞতা রাখেন না। কিন্তু বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে, সত্যিকার ফ্রিল্যান্সিং এ আগ্রহী যুবদের প্ররোচিত করে।

 

এই শেখার ফলাফল:

এইভাবে দেশের অধিকাংশ জেলায় ফ্রিল্যান্সিং এ আগ্রহী যুবকদেরকে এ সকল অদক্ষ এবং অনভিজ্ঞতা সম্পন্ন লোকদের মাধ্যমে দু-চারটা ধারণা দিয়ে কিংবা একটা একাউন্ট খুলে দু-চার ক্লাস নিয়ে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়, এভাবে ঐসকল প্রতিষ্ঠানের শেখানো প্রক্রিয়ায় এক দুই মাস কাজে এপলাই করে কিংবা পিটিসি সাইটে এক দুই মাস ক্লিক করে এক সময় তারা হতাশা এবং একগেয়েমি অনুভব করে, যার ফলে তারা ধীরে ধীরে ফ্রিল্যান্সিংএর প্রতি আস্থা হারিয়ে হতাশ হয়ে পড়ে এবং পরবতীতে ফ্রিল্যান্সিংয়ের কথা শুনলে তাদের মাঝে একটা নেতিবাচক ধারণার সৃষ্টি হয় কিংবা যারা কাজ করেন নি, তারাও ডোল্যান্সার, স্পিকএশিয়া, সাইটটক, ইউনিপেটুইউ এগুলোর জন্য এটাকে এক ধরণের ধান্দা মনে করেন। এসবের জন্য অনেকে আবার ইচ্ছে থাকলেও পরবর্তীতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন।আমার জানা এ রকম অসংখ্য প্রতিষ্ঠান রয়েছে এবং আমাদের অনেক স্টুডেন্ট এ ধরণের প্রতারণার শিকার হয়েছেন। এইসবের জন্য অনেকে ফ্রিল্যান্সিংর উপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলছেন কিংবা এটাকে মুল পেশা হিসেবে অথাব পার্টটাইম হিসেবে নিতে পারছেন না।

 

যা করণীয়:

আমাকে অনেকে প্রশ্ন করে, “ভাই একাউন্ট করতে কত টাকা লাগে?”, প্রশ্নটা যারা সত্যিকার ফ্রিল্যান্সিং করেন তাদের জন্য হাস্যকর কিন্তু যারা সত্যিকার ফ্রিল্যান্সিং এর ছোঁয়া পাননি তাদের জন্য উদ্বেগের। ভাই, সত্যিকার ফ্রিল্যান্সিং কোন টাকা লাগে না, একটা পয়সাও না, এখানে কোন প্রকার বিনিয়োগ করতে হবে না।ফ্রিল্যান্সিং এর প্রথম শর্ত হলো আপনাকে কোন একটা কাজ খুব ভালো জানতে হবে যেমন ওযেব ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা, এসইও, ইমেইল মার্কেটিং, আর্টিকেল রাইটিং ইত্যাদি। এগুলোর যেকোন একটি কাজ আপনি জানলে এবং বায়ারের সাথে যোগাযোগের মত ইংরেজী জানা থাকলে আপনি নিজেকে একটি নতুন জগতে আবিষ্কার করতে পারবেন। সকল হতাশা দুর হয়ে আপনি নিজেকে মুল্যায়ন করতে শিখবেন। তবে এতেও কাজ পাওয়ার কিছু কৌশন আছে।

 

যেভাবে নিজেকে সফল করবেন:

উপরোক্ত সমস্যাগুলোর কথা এবং ফ্রিল্যান্সিং এ আগ্রহী তরুণদের জন্য আমরা সরাদেশে/প্রতিটি জেলার তরুণদের ফ্রিল্যান্সিং শেখানোর উদ্যোগ নিয়েছি, যেহেতু ফ্রিল্যান্সিং করতে আপনাকে যেকোন একটা একটি প্রোগ্রাম ভালোবাসে জানতে হবে, তাই আমরা ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট প্লেসে চাহিদা সম্পন্ন কোর্সগুলো এবং মার্কেটপ্লেস যেমন ওডেস্ক এ কাজ পাওয়ার কৌশলসহ আপনাকে বিস্তারিত শেখানো হবে।বিস্তারিত আমাদের সিলাবাস দেখুন। তবে দু:খের বিষয় হলো এখানে শুধুমাত্র যাদের ইন্টারনেট সংযুক্ত কম্পিউটার আছে তারাই অংশ নিতে পারবেন। কারণ কোর্সটি হবে অনলাইনে। আপনার একটি কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট স্পিড ৫১২ কেবিপিএস হলে আপনি দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে ঘরে বসেই আমাদের এই কোর্স করতে পারেন। আমরাই বাংলাদেশে প্রথম সারাদেশে শিক্ষিত তরুণদের অনলাইন ভিত্তিক ফ্রিল্যান্সিং শেখানোর উদ্যোগ নিয়েছি, যেটা গত ৪ মার্চ প্রথম আলো তার কম্পিউটার প্রতিদিন পেইজে দিয়েছিলো “বিনামুল্যে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ শিরোনামে” http://eprothomalo.com/index.php?opt=view&page=1&date=2013-03-04 ইতোমধ্যে আমাদের মেম্বার সংখ্যা সাড়ে একুশ হাজারের (21500 member) ছাড়িয়ে গেছে এবং প্রতিদিন ১০০ এর উপর মেম্বার জয়েন করছেন।

যেভাবে অংশ নিবেন:

আমাদের প্রতিষ্ঠানের নাম ইনফোনেট, কোর্সে অংশ নিতে হলে আপনাকে আমাদের ফেসবুকগ্রুপhttps://www.facebook.com/groups/infonetbd/

তে জয়েন করতে হবে এরপর আমাদের আপনি শিখতে চাইলে সেখানে রেজিস্ট্রেশনের জন্য

আমাদের ওয়েবসাইট লিংক( http://www.infonetbd.org/registration/)

দেওয়া আছে সেখানে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন

আরো বিস্তারিত: গত ২২ জানুয়ারীর প্রথম আলোতে http://www.prothom-alo.com/technology/article/129070/%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%82%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A7%87_%E0%A6%AB%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%82_%E0%A6%B6%E0%A7%87%E0%A6%96%E0%A6%BE%E0%A6%B0_%E0%A6%B8%E0%A7%81%E0%A6%AF%E0%A7%8B%E0%A6%97

রেজিস্ট্রেশনের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনাকে আমাদের স্টুডেন্ট গ্রুপে যোগ করা হবে এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট এবং ফাইল দেওয়া হবে। সেগুলো সেট-আপের টিউটোরিয়ালও পাবেন। এরপর আপনাকে ক্লাস ও ব্যাচের সময়সীমা বলে দেওয়া হবে। এখানে চাকরীজীবীরাও অংশ নিতে পারবেন কারণ রাত ১১টা পর্যন্ত আমাদের ব্যাচ আছে

যেকোর্সগুলো শেখানো হবে:

ওয়েব ডিজাইন(এইচটিএমএল, সিএসএস, পিএসডি টু এইচটিএমএল, টেমপ্লেট ডিজাইন, আরো বিস্তারিত গ্রুপের সিলেবাসে)।

ওয়ার্ডপ্রেস (ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট, আরো বিস্তারিত গ্রুপের সিলেবাসে)।

ফটোশপ(লোগো ডিজাইন, বিজনেসকার্ড ডিজাইন এবং ফটোশপ সর্ম্পকিত অন্যান্য কাজ, আরো বিস্তারিত গ্রুপের সিলেবাসে)।

এসইও (বিস্তারিত সিলেবাস)ইমেইল মার্কেটিং(আরো বিস্তারিত গ্রুপের সিলেবাসে)শুধু ওডেস্ক (যারা কাজ জানেন বা একাউন্ট আছে সফল হচ্ছেন না, এটা তাদের জন্য )।

 

প্রতিটি প্রোগ্রাম আলাদা আলাদা,মোট প্রোগ্রাম: ৬টি,প্রতিটি প্রোগ্রামে: ১৫টি লেকচার/ক্লাস। (প্রোগ্রামের উপর ১২+ ফ্রিল্যান্সিং ৩)।

প্রতিটি প্রোগ্রামের সময়: ৪৫ দিন।

যা যা দেওয়া হবে:

আজীবন মেম্বারশীপ(স্টুডেন্ট গ্রুপে), লেকচারশীট এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা।কোর্স ফি: অন্যান্য ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে এই কোর্সগুলোর মূল্য ১৫০০০ থেকে ৩০০০০ টাকাও আছে এর সাথে আপনার বাসা থেকে আসা যাওয়ার সময়+ভাড়া অন্তভুর্ক্ত।আমরা প্রথমে বিনামুল্যে শিখানোর উদ্যোগ নিয়েছিলাম এবং সেখানে অনেকগুলো শর্ত ছিলো, তবে তাতে সমস্যার সৃষ্টি হওয়ায় বর্তমানে কোন শর্ত ছাড়াই আমরা সবার করার সুযোগ করে দিতে শুধুমাত্র ৫০০ টাকায় কোর্স করার সুযোগ করে দিয়েছি। শুধু ওডেস্ক ৩০০ টাকা।

যেভাবে কোর্সে অংশ নিবেন:

আমাদের উল্লেখিত ৬টি কোর্সের যেকোনটিতে আপনি অংশ নিতে পারেন।প্রতিটি কোর্স ফি ৫০০টাকা। শুধু ওডেস্ক ৩০০ টাকা।

কোর্সে অংশ নিতে আমাদের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করুন: www.infonetbd.org/registration/

রেজিস্ট্রেশনের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া ওখানে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

আপনি বিকাশ কিংবা ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে আমাদের কাছে টাকা পাঠাতে পারবেন। টাকা পাঠানোর পর যে নাম্বার থেকে টাকা পাঠিয়েছেন উক্ত নাম্বারটি এবং ট্রান্সাক্শন নাম্বারটি মনে রাখুন( সংরক্ষণ করুন।)

বিকাশ১ নাম্বার: ০১৬৭৯৮২৪১৯৫/01679824195 (personal)

বিকাশ২ নাম্বার: ০১৯৪৮৮৫৮২৫৮/01948858258(personal)

ডাচ-বাংলা নাম্বার: ০১৯৪৮৮৫৮২৫৮৮/019488582588

রেজিস্ট্রেশন ফর্মে আরো কিছু পেমেন্ট সিস্টেম রয়েছে। প্রবাসী বাংলাদেশীগণ বিদেশ থেকে টাকা পাঠানোর জন্য বাংলাদেশে অবস্থিত কোন আত্নীয়দের মাধ্যমে বিকাশে পাঠাতে পারেন।

সাইটের রেজিস্ট্রেশন ফর্মটি পুরণ করুন।সবগুলো ফিল্ড ইংরেজীতে পুরণ করুন।এবার আপনার পুর্ণনাম,ইমেইল,মোবাইল(ব্যক্তিগত নাম্বার),ঠিকানা, অবশ্যই জেলা, উপজেলার নাম লিখতে হবে।ট্রান্জাকশন নাম্বারের জায়গায় যে নাম্বার থেকে টাকা পাঠিয়েছেন উক্ত নাম্বারটি উল্লেখ করুন।আপনি যদি আমাদের ফেসবুক গ্রুপের সদস্য না হন, তাহলে রেজিস্ট্রেশনের পর আপনাকে আমাদের ফেসবুক গ্রুপ: https://www.facebook.com/groups/infonetbd/ এর মেম্বার হতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সেখান থেকে শুধুমাত্র স্টুডেন্ট এর জন্য আমাদের আরেকটি গ্রুপ আছে সেখানে আপনাকে এড করবো।আপনার ব্যাচ নং, কোর্সের সময়, সিলাবাস, লেকচারশীট কোর্সের জন্য প্রয়োজনীয় সফ্টওয়্যার ও ডকুমেন্ট ঔই গ্রুপে পাবেন।এছাড়া আপনার পার্সোনাল কিছু বলার থাকলে আমাদের ফ্যানপেইজ: https://www.facebook.com/infonet13 তে মেসেজ করে জানাতে পারবেন।কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করে জানাবেন:

 

কিছু ব্যতিক্রমি সুবিধা:

অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকে আমাদের প্রতিষ্ঠানটি সর্ম্পূণ আলাদা। কারণ এখানে আছে সুদক্ষ শিক্ষক, পেশাদার ফ্রিল্যান্সার এবং প্রশিক্ষক। অন্যান্য প্রতিষ্ঠান যেখানে তত্ত্বীয় জ্ঞানই বেশী দিয়ে থাকে, সেখানে আমরা দিচ্ছি প্রতিটি লেকচারের কনটেন্স শেখানোর পর উক্ত লেকচারের উপর প্রজেক্টভিত্তিক বাস্তব প্রয়োগ। আপনি যদি কোন ক্লাস মিস করেন তবে পরবর্তী ক্লাসের উক্ত ক্লাসটির অংশ নেওয়ার সুযোগ থাকবে। আমাদের এখানে শিক্ষার্থীগণও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান তথা আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন। কারণ এখানে আছে বাংলাদেশের ৬৪ জেলার শিক্ষার্থী, আছে কলেজ শিক্ষক, ব্যাংকার, সাংবাদিক থেকে শুরু করে সব পেশার মানুষ। তেমনি আছে ১৮ বছরের তরুণ থেকে ৫০ বছরের যুবক। যারা চাকরী বা পড়াশুনার পর অবসর সময়গুলো নির্মল আনন্দের এই কাজের মাধ্যমে ব্যয় করতে চান। সবচেয়ে বড় কথা হলো শুধু বাংলাদেশ নয় আমাদের ২০% শিক্ষার্থী প্রবাসী যারা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আমাদের কোর্সে অংশ নিচ্ছেন।

 

অন্য প্রতিষ্ঠান থেকে আমাদের আলাদা সুবিধা সমুহ:

আমরা দিচ্ছি প্রতিটি লাইভ ক্লাসের সাথে সাথে সাথে প্রতিটি ক্লাসের উপর লেকচারশীটপ্রতিটি ক্লাস শেষে উক্ত ক্লাসের প্রাকটিজ ফাইল জমা এবং ভুল থাকলে তা সংশোধন, তথা উক্ত প্রাকটিজ ফাইলের উপর নাম্বার।প্রতিটি ক্লাসের শুরুতে আগের ক্লাসের উপর সমস্যা নিয়ে ১৫ মিনিট আলোচনা। কেউ ক্লাস মিস করলে / বিদ্যুৎজনিত সমস্যায় পড়লে পরবর্তী ক্লাসে অংশ নেওয়ার সুযোগ।প্রতিটি ক্লাসের প্রাকটিজের পর আমাদের সাইটে উক্ত লেকচারের উপর কুইজের ব্যবস্থা।প্রতিটি লেকচারের ভিডিও টিউটোরিয়াল প্রদান। কোর্স শেষে উক্ত কোর্সের উপর একাধিক প্রজেক্ট সম্পন্ন করা দেখানো।প্রতিটি প্রজেক্ট এর উপর এসাইনমেন্ট এবং এসাইনমেন্ট সমাধানের উপর ক্লাস।প্রতিটি শিক্ষার্থীদের জন্য ওডেস্ক এর উপর ক্লাস ফ্রি। ওডেস্ক এ কাজ করার উপর রয়েছে দীর্ঘ এক সপ্তাহব্যাপী ক্লাস

 

একসাথে কাজের সুযোগ:

বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারদের ক্ষেত্রে বড় অসুবিধা হলো সময়মত কাজ দিতে না পারা আর কাজটি না পারলেও বিড করা। এক্ষেত্রে আপনি যদি ওডেস্ক থেকে পাওয়া কাজ দুঘর্টনাবশত কিংবা কোন কারণে সময়মত সম্পন্ন করতে না পারেন, তবে আমাদের স্টুডেন্ট গ্রুপে আমাদের অন্য শিক্ষার্থীগণ সেটা সম্পন্ন করে দিতে বাধ্য থাকবে। তবে সেক্ষেত্রে সে চাইলে আপনি তাকে কাজের উপর ভিত্তি করে সম্মানী দিতে হবে। কেউ করতে সক্ষম না হলে আমাদের ওর্য়াকারগণ আপনার কাজ করে দিবেন। তাছাড়া আপনি কোন কাজ পেলেন কিন্তু উক্ত কাজের কিছু অংশ বুঝতে সমস্যা হচ্ছে, সেক্ষেত্রেও আমরা আপনাকে সহযোগীতা করবো।

 

**নিজস্ব পোর্টফলিও**:

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য একটি বড় সমস্যা হলো পোর্টফলিও। কারণ প্রায় ৯৯% ক্লায়েন্ট আপনার পুর্বের কাজের স্যাম্পল চায়, কিন্তু নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য পোর্টফলিও রাখার মত মাধ্যম খুব একটা নেই। কিছু ফ্রি ডোমেইন হোস্টিং সাইট থাকলেও সেগুলো নিজেদের প্রয়োজনে যেকোন সময় আপনার ডাটাগুলো মুছে দিয়ে আপনার ডোমেইন ডিএকটিভ করে দিবে। তাই আমরা আপনাকে দিচ্ছি আমাদের সাইটে আপনার কাজের স্যাম্পল তথা পোর্টফলিও রাখার সুবিধা। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের জন্য আরেকটি বড় সুবিধা হলো আপনার প্রোফাইলের সাথে আপনার পরীক্ষার মার্ক, নিয়মিত উপস্থিতি, প্রাকটিজ ফাইল, এসাইনমেন্ট এর উপর ভিত্তি করে করে একটা রেটিং দেওয়া হবে যেটা আপনার প্রোফাইলের সাথে দেখাবে।বাংলাদেশী অনেক ক্লায়েন্টদের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, উনারা বিদেশী ফ্রিল্যান্সারদের হায়ার করছেন, আবার অনেক কম্পানি তার তার ডিপার্টমেন্ট এর জন্য ভালো আইডি স্পেশালিস্ট চায়, এজন্য ইনফোনেট এ সকল শিক্ষার্থীদের রেটিং এর উপর ভিত্তি করে আমাদের সাইটে রেটিংসহ একটি প্রোফাইল থাকবে, সেখান থেকে যেকেউ আপনার রেটিং এর উপর ভিত্তি করে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে অথবা দেশীয় যেকোন আইটি ফার্মের জন্য নিয়োগ করতে পারবে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

2 মন্তব্য

  1. ভাইয়া দারুন লিখেছেন। ভাইয়া এই পোস্টটা সহ আমার ব্লগেও নিয়মিত পোস্ট করতে পারেন। আমার ব্লগেও অনেক ভিজিটর বিশ্বাস না হলে দেখে আসুন। আর এখন আমি প্রতি ব্লগের জন্য ৫ টাকা করে দেই। সুতরাং দেখে আসুন আর ব্লগ করা শুরু করুন এক্ষুনি। Techalarmbd.com

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

five × 1 =