গেমস জোন :: COC – Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)

0
442
এটি 283 পর্বের গেমস জোন সিরিজ টিউনের 235 তম পর্ব
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)

আউটলাস্ট গেমটিতে শার্লক হোমস এর মজা মিক্স করে দিলে এবং হাউস অফ দ্যা ডেড গেমটিও যুক্ত করে দিলে যেমন মজা পাওয়া যায়, গেমটি খেলে তেমনি মজা পেয়েছি আমি! বিশেষ করে ভূতুরে একটি শহরে তদন্ত করতে গিয়ে, পিলে চমকে গিয়েছি কয়েকবার!

Call of Cthulhu: Dark Corners of the Earth একটি সুরভাইবাল হরর ভিডিও গেম নির্মাণ করে হেডফার্স্ট প্রোডাক্টশনস এবং প্রকাশ করেছে ব্যাথেস্ডা সফটওর্য়াকস, ২কে গেমস এবং ঊবিসফট। গেমটি রিয়েল বা বাস্তবিক ফার্স্ট পারসন ধাঁচের হলেও গেমটিতে স্টেলথ উপাদানও রয়েছে। গেমটি ১৯৩৬ সালের “The Shadow over Innsmouth” উপন্যাসটি ঘিরে তৈরি করা হয়েছে।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

গেমটির পটভূমি ১৯২২ সালে সেট করা হয়েছে। গেমটিতে তোমাকে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন প্রাইভেট ডিকেক্টিভ জ্যাক ওয়াল্টারস এর ভূমিকায় খেলতে হবে যেখানে সে ইনসমথ শহরে একজন হারিয়ে যাওয়া মানুষের খোঁজে তদন্ত করতে যায়। ইনসমথ একটি সামুদ্রিক পার্শ্ববর্তী অঞ্চল, যা আমেরিকার এক কোণায় অবস্থিত।

গেমটি নির্মাণে সময় লেগেছে ৬ বছর। গেমটির নির্মাণ কাজ ১৯৯৯ সাল হতে শুরু হয়। মাঝখানে গেমটির প্লে-স্টেশন ২ সংস্করণটি বাদ দিয়ে দেওয়া হয় বাজেট সল্পতার কারণে।

গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)

নির্মাতাঃ

হেডফার্স্ট প্রোডাক্টশন

প্রকাশকঃ

বেথেসডা সফটওর্য়াকস

ডিস্ট্রিবিউটরঃ

২কে গেমস এবং ঊবিসফট

সিরিজঃ

Call of Cthulhu

ইঞ্জিণঃ

হেডফার্ষ্ট কোম্পানির নিজস্ব ইঞ্জিণ

খেলা যাবেঃ

এক্সবক্স,

মাইক্রোসফট উইন্ডোজে

মুক্তি পেয়েছেঃ

২০০৬ সালে জুনে

ধরণঃ

সুরভাইবাল হরর,

ফার্স্ট পারসন শুটার

খেলা ধরণঃ

সিঙ্গেল প্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

পেন্টিয়াম ৪ প্রসেসর,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

রাডিয়ন এক্স১০৫০ গ্রাফিক্স কার্ড,

উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক ২ অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি

গেমটিকে পূর্ণাঙ্গ বাস্তবিক ইফেক্ট দিতে HUD ফিচারটি গেমটিতে একেবারেই নেই। এজন্য গুলির সংখ্যা, হেলথ এর অবস্থা এবং অস্ত্র নির্দেশক গেমটিতে নেই। গেমটির প্রথম কয়েকটি লেভেলে তোমাকে অস্ত্র বিহীনভাবে লুকিয়ে বা পালিয়ে বেরাতে হবে। যা অনেকটা আউটলাস্ট গেমটির মতোই। আর বাকি লেভেলে পাচ্ছ বিভিন্ন ধরণের অস্ত্র। আর পুরো গেম জুড়ে শার্লক হোমসের মজা তো রয়েছেই!

অন্যান্য সুরভাইবাল হরর গেমসগুলোর মতোই গেমটিতে গুলির সংখ্যা খুবই কম তাই অস্ত্রের ব্যবহার খুব দরকার না হলে করাই উচিৎ হবে না।

যেহেতু গেমটিতে HUD নেই তাই প্লেয়ার এর হেলথ ডেমেজ বুঝা যাবে প্লেয়ারের হার্টবিট দেখে! এছাড়া পাঁচ তলা উচু হতে নিচের দিকে তাকালে আমাদের বুকের ভিতর যে ধপ ধপ ইফেক্ট এর সৃষ্টি হয় তা গেমটিতেও পাওয়া যাবে! যা অনেকাংশে মজার আবার বহুকাংশে বিরক্তিকর। এছাড়াও প্নেয়ার এর রয়েছে প্রচন্ত ভয় যা Sanity ফিচার নামে পরিচিত। লাশ, ভূত কিংবা ভয়ংকর অন্য কিছু দেখলেই প্লেয়ারের পুরো শরীলে বিদ্যুৎতের শট এর মতো লাগবে।

কাহিনীচক্রঃ

সেপ্টেম্বর ৬, ১৯১৫।

পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা জ্যাক ওয়াল্টারস একটি কেসের তদন্ত করতে একটি ভূতুরে বাড়িতে যায়। কিন্তু সেখানে সে এমন কিছু জিনিস দেখে যার জন্য সে মানসিক ভাবে পাগল হয়ে যায় এবং প্রায় ৬ বছর মানসিক হাসপাতালে কাটায়।

ছয় বছর মানসিক হাসপাতালে কাটিয়ে ফেব্রুয়ারী ৬, ১৯২২ সালে সে হাসপাতাল হতে অনেকটা সুস্থ হয়ে ছাড়া পায়। পরে সে প্রাইভেট ডিটেক্টিভ হয়ে যায়। তার কাছে একটি কেইস আসে, ইনসমথ শহরে একজন মিসিং লোককে খুঁজতে হবে।

ইনসমথ একটি সামুদ্রিক শহর। এখানকার অধিকাংশ লোক মাছ ধরে – বেঁচে জীবিকা অর্জন করে। শহরটি অনেক নিরব অনেকটা ভূতুরে শহরের মতো। সেখানকার একজন কর্মী নাম ব্রায়ান বার্নহাম যে ফার্স্ট ন্যাশনাল গ্রোসেরি তে কাজ করতো। সে রহস্যজনক ভাবে মিসিং হয়ে যায়।

ইনসমথে জ্যাক পৌছে দেখে যে শহরে বিরাজ করছে কারফিউ এবং প্রচন্ত ভয়ানক নিরবতা। রাস্তার তেমন লোক চলাচল করছে না এবং শহরের অধিকাংশ লোকই অদ্ভুত আচরণ করছে জ্যাকের সাথে। শহরের লোক এমনকি পুলিশের কাছেও ব্রায়ানের কথা বলে তার সর্ম্পকে কিছুই জানতে পারে নি জ্যাক। পরে বাধ্য হয়ে সে চুপিসারে ফার্স্ট ন্যাশনাল গ্রোসেরিতে ঢুকে পরে পুলিশের চোখ এড়িয়ে। সেখানে সে গুপ্ত মর্গ এবং একটি মহিলার ঝুলন্ত লাশ খুঁজে পায়। লাশটি তিন চার মাসের পুরোনো। সেখান থেকে তেমন কোনো প্রমাণ সে খুঁজে পায় না।

ওই রাত্রটি সে শহরের একমাত্র হোটেলে থাকবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু হোটেলে ম্যানেজারের অদ্ভুত আচরণ এবং হোটেলের রান্না ঘরে অনেকগুলো মানুষের বিক্ষিপ্ত শরীলের অংশ পাওয়ায় তার মনে সন্দেহ জাগে।

যাই হোক, সে রাত্রে সে হোটেলের ৪০১ নং রুমে কোনোরকমে ঘুমিয়ে পড়ে। স্বপ্নে সে দেখে যে তাকে মারতে কেউ আসছে। আসলেই তার ঘুম ভেঙ্গে দেখে যে শহরের কিছু উগ্র মানুষ তাকে মারতে আসছে। সে কোনোমতে হোটেলটি থেকে পালিয়ে আসে নিজের জান নিয়ে। হোটেল থেকে রাস্তায়, বিভিন্ন বিল্ডিংয়ে, গভীর খাদে তাকে লুকিয়ে থাকতে হয়।

ঘটনাচক্রে জ্যাক FBI এর একজন তদন্ত কর্মকর্তা (Undercover Agent) এজেন্ট লুকাস ম্যাকলি এর সন্ধান পায় এবং লুকাস জ্যাককে ব্রায়াম এবং শহরটির ব্যাপারে বহু তথ্য দেয়। লুকাস জ্যাককে তথ্য দেয় যে শহরটি ডেগন নামের একটি কালো জাদুকরি গ্রুপের কাছে বন্দি। মাছের ভালো ব্যবসার জন্য ডেগন গ্রুপটি প্রতি বছর সমুদ্রের দৈত্যদের কাছে মানুষ বলি দেয়। তারই ধারাবাহিকতায় এ বছরের জন্য ব্রায়ানকে বেছে নেওয়া হয়েছে এবং ব্রায়ান বর্তমানে শহরের জেলখানায় বন্দি রয়েছে।

ব্রায়ানকে উদ্ধারের জন্য জ্যাক জেলখানায় চুপিসারে যায় এবং ব্রায়ানকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। শহর থেকে ব্রায়ান, তার বান্ধবী এবং জ্যাক ট্রাক যোগে পালিয়ে আসার সময় ডেগন গ্রুপের সদস্যদের ছোঁড়া গুলিতে চালক ব্রায়ানের মৃত্যু হয় এবং ট্রাক টি উল্টিয়ে যায় আর ব্রাস্ট হয়ে যায়। ভাগ্যবশত জ্যাক ট্রাক হতে ছিটকে পড়ে যাওয়ায় সে বেঁচে যায়। পরে তাকে FBI এর কর্মীরা আহত অবস্থায় সেখান থেকে উদ্ধার করে।

ঘটনার দুদিন পর, ফেব্রুয়ারী ৮ তারিখে জ্যাকের জ্ঞান ফিরে এবং তাকে FBI কে সাহায্য করতে হয় এই ডেগন চক্রকে ধরার জন্য। এভাবেই গেমটির কাহিনী এগিয়ে যায়।

গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
ইনসমথ এর মানুষগুলো জানি কেমন!
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
ভূতুরে মন্দির!
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
মর্গে একলা!
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
ইনভেন্টরি
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
গীর্জার গুপ্ত ঘর!
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
ধীরে ধীরে!
গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)
ঠিসা!

ডাউনলোডঃ

ftp://serv1.2fun.ge/games/Call%20of%20Cthulhu%20Dark%20Corners%20of%20the%20Earth/Call%20of%20Cthulhu%20-%20Dark%20Corners%20of%20the%20Earth.iso

Cr@ck:

ftp://serv1.2fun.ge/games/Call%20of%20Cthulhu%20Dark%20Corners%20of%20the%20Earth/Call%20of%20Cthulhu%20-%20Dark%20Corners%20of%20the%20Earth.exel.exe

অথবা, গেমটি সুলভ মূল্যে ঘরে বসেই পেতে চাইলে চলে আসো গেমস জোনের অনলাইন ডিভিডি শপেঃ www.facebook.com/games.zone.bd

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

www.tunerpage.com

www.techtunes.com.bd

> অনলাইন ডিভিডি সার্ভিসটি অনলাইন ডিভিডি শপ “পপকর্ণ” এর দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে এবং এই বিষয়ের কোনো প্রকারের দায়িত্ব গেমস জোন নিবে না।

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন www.facebook.com/talented.fahad

গেমস জোন :: COC - Dark Corners of the Earth (পেন্টিয়াম ৪)

Series Navigation << গেমস জোন :: ম্যাশ ইফেক্ট সমগ্র (২০০৭-২০১২)গেমস জোন :: সাইলেন্ট হিল ৬ (২০০৯) >>
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × 5 =