গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

0
551
এটি 283 পর্বের গেমস জোন সিরিজ টিউনের 218 তম পর্ব
গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গ্রান্ড থেফট অটো সিরিজের প্রথম থ্রিডি গেম, জিটিএ ৩! অনেকেই গেমটি খেলেছেন আবার বেশির ভাগই খেলেন নি। ভাইস সিটির আগের সংস্করণ হলেও গ্রাফিক্স এর দিক থেকে জিটিএ ৩ ভাইস সিটির চেয়ে এগিয়ে আছে, এটা আমার মত। সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি টেকটিউনস এর সবচেয়ে বড় এবং লং রানিং চেইন টিউন “গেমস জোন” এ। হোস্ট হিসেবে আমি গেমওয়ালা তো রয়েছেই বরাবরের মতোই। আজকের ১৭১ তম পর্বে রয়েছে গ্রান্ড থেফট অটো সিরিজে প্রথম থিড্রি গেম জিটিএ ৩।

 

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

২০০১ সালের ওপেন ওর্য়াল্ড একশন এডভেঞ্চার ভিডিও গেম গ্রান্ড খেফট অটো ৩ নির্মাণ করেছে রকস্টার নর্থ এবং প্রকাশ করেছে রকস্টার গেমস।

 

গ্রান্ড থেফট অটো ৩ গেমটির পটভূমি সেট করা হয়েছে “লির্বাটি সিটি” তে। এটি একটি কাল্পনিক শহর যা “নিউ ইয়র্ক সিটি”র আদলে তৈরি। ‍গেমটির কাহিনীতে রয়েছে একজন ক্রিমিনাল “ক্ল্যাউড” এর কাহিনী, যে কাহিনীর শুরু হয় একটি ব্যাংক ডাকাতি থেকে। সেখানে ক্ল্যাড এর মেয়ে বন্ধু তার সাথে বৈঈমানী করে, অতপর ক্ল্যাউড শহরের বিভিন্ন ক্রাইম চক্রের সাথে কাজ করতে থাকে, মেয়ে বন্ধুর সাথে প্রতিশোধ নিতে। গেমটির মূখ্য গেম-প্লে হচ্ছে ড্রাইভিং এবং থার্ড পারসন শুটার।

 

গেমটি সিরিজের প্রথম থ্রিডি গেমস হওয়াতে, গেমটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। ২০০১ সালের গেম অফ দ্যা ইয়ার এটি। এছাড়াও ২০০১ সালের সর্বোচ্চ বিক্রিত গেম এটি। যেমনটি জনপ্রিয়তা পায় ২০০৮ সালের জিটিএ ৪ গেমটি। আর বর্তমানে তো জিটিএ ৫ তুমুল জনপ্রিয়। ২০০৮ সালের জিটিএ ৪ গেমটির আগে আরো ৫টি গেমস মুক্তি পেয়েছে গ্রান্ড থেফট অটো ৩ গেমটির প্রিকোয়েল কাহিনীসমূহ নিয়ে।

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

নির্মাতাঃ

ডিএমএ ডিজাইন (বর্তমানে রকস্টার নর্থ),

রকস্টার ভিয়েনা (এক্সবক্স সংস্করণ),

ওয়ার ড্রাম স্টুডিওস (এন্ড্রয়েড এবং আইফোন সংস্করণ)

প্রকাশ করেছেঃ

রকস্টার গেমস,

ক্যাপকম (জাপানে)

ডিস্ট্রিবিউটরঃ

টেক-টু ইন্টারএকটিভ,

ক্যাপকম (জাপানে)

পরিচালকঃ

এডাম ফ্লোলার

অবি ভারমেইজ

প্রযোজকঃ

লেসলিই বেনজিইস

ড্যান হাউজার

সিরিজঃ

গ্রান্ড থেফট অটো

ইঞ্জিণঃ

RenderWare

মুক্তি পেয়েছেঃ

অক্টোবর, ২০০১

ধরণঃ

একশন-এডভেঞ্চার

খেলার ধরণঃ

সিঙ্গেল প্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

পেন্টিয়াম ৪ প্রসেসর,

১ গিগাবাইট র‌্যাম,

২৫৬ মেগাবাইট ভিজিএ,

১ দশমিক ৫ ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস,

ডাইরেক্ট এক্স ৮.১,

মাইক্রোসফট উইন্ডোজের যেকোনো সংস্করণ (৯৫,৯৮ বাদে)

গেমটিতে ক্ল্যাউডের কাহিনীতে ব্যাপকতা আনতে, নির্মাতারা গেমটিতে অনেকগুলো চরিত্রের সমন্বয় ঘটিয়েছেন। এদের বেশিরভাগই ক্ল্যাউডের সাথে বিভিন্ন কাটসিনে কথা বলতে দেখা যাবে। তবে মজার বিষয় হলো, গেমটির কোথায়ও প্লেয়ার চরিত্র “ক্ল্যাউড”কে কথা বলতে দেখা যাবে না!!

তবে গেমটির বেশিরভাগ চরিত্র সমূহ শহরের নতুন একটি ড্রাগ “SPANK” নিয়ে কথা বলবে।

গেমটির সাফল্যের ফলে গেমটির অনেক চরিত্র এবং তাদের আত্নীয়রা ভবিষ্যৎ এর বিভিন্ন গ্র্যান্ড থেফট অটো গেমসমূহে দেখা যাবে।

কাহিনীচক্রঃ

পটভূমিঃ

গ্রান্ড থেফট অটো ৩ গেমটি পটভূমি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে “কাল্পনিক” লির্বাটি সিটিকে। এটি আমেরিকার ইস্ট কোস্টের একটি শহর। সবমিলিয়ে পুরো শহরের আয়তন হচ্ছে তিন স্কোয়ার মাইলস। উল্লেখ্য যে, সিরিজের অন্যান্য গেমস যেমন: লির্বাটি সিটি স্টোরিস, এডভান্স এর পটভূটি এবং স্যান এন্ডড্রেস গেমটির একটি মিশন এই লির্বাটি সিটিতে হোস্ট করা হয়েছে।

গেমটির কাহিনী সেট করা হয়েছে ২০০১ সালেই, যখন গেমটি মুক্তি দেওয়া হয়।

চিত্রনাট্যঃ

২০০১ সালের অক্টোবর মাস।লিবার্টি সিটির কুখ্যাত সন্ত্রাসী এবং চোর “ক্ল্যাউড” তার বান্ধবী “ক্যাটালিনা” সহ তার গ্যাঙ্গ শহরের ব্যাংকে লুটপাট চালায়। গেমটির শুরুর কাটসিনে তাদেরকে দেখা যাবে ব্যাংক লুট করে পালিয়ে যাচ্ছে। তবে গাড়িতে উঠার আগেই ক্যাটালিনা ক্ল্যাউড কে গুলি করে। উদ্দেশ্য হলো টাকার পূর্ণ অংশ ভোগ করা। ক্ল্যাউড কে গুলি করে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে ক্যাটালিনা সেখান খেকে কেটে পড়ে। ক্ল্যাউড গ্রেফতার হয় এবং ১০ বছরের কারাদন্ড পায়।

ক্ল্যাউডকে জেলখানায় পাঠানোর সময় ক্যালাহান ব্রিজে তাদের জেলট্রাকে কলাম্বিয়ান সন্ত্রাসীরা আক্রমণ চালায় একজন জেলবন্দির জন্য। সুভাগ্য বশত সেখান থেকে ক্ল্যাউড এবং আরেকজন জেলবন্দি “৮ বল” গাড়ি থেকে নেমে যায়। কিছুক্ষণ পর ব্রিজটিতে বোম ফুটে এবং ব্রিজটি দুঃখন্ডে ভাগ হয়ে যায় এবং সবাই মারা যায়। সেখান থেকে ক্ল্যাউড এবং “৮ বল” পালিয়ে আসে পোর্টল্যান্ডের একটি সেইফহাউসে। সেখানে নিজেদের জেলখানার পোষাক বদলিয়ে “৮-বল” ক্ল্যাউডে নিয়ে আসে শহরের লিওন মাফিয়া এবং “সেক্স ক্লাব ৭” এর মালিক “লুইগি গোটেরেল্লি”, “স্যালভাটোরি লিও “ তার ক্যাপো “টনি কিপ্রিয়ানি” এবং ডনের ছেলে “জয়ি লিওন” এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।

ক্যাটালিনার বৈঈমানীর প্রতিশোধ নিতে ক্ল্যাউড শহরের লিওন মাফিয়ার হয়ে কাজ করা শুরু করে। তাদের সাথে কাজ করতে করতে ক্ল্যাউড এর সাথে যুদ্ধ হয় কলাম্বিয়ানদের সাথে। উল্লেখ্য যে কলাম্বিয়ানদের লিডার হলো ক্যাটালিনা। ওদিকে ক্ল্যাউড এর ফ্রেশ এবং দুদার্ন্ত কাজসমূহ দেখে লিওন মাফিয়ার ডনের স্ত্রী “মারিয়া” ক্ল্যাউডকে পছন্দ করা শুরু করে। ওদিকে ডন স্যালভাটোরি তার স্ত্রী এবং ক্ল্যাউড এর মাঝে “সম্ভাব্য” সর্ম্পকের আভাস পায় এবং প্রচুর ক্ষেপে যায়। ডন স্যালভাটোরি ক্ল্যাউডকে হত্যার জন্য জাল ফেলে। কিন্তু ডনের স্ত্রী মারিফা ক্ল্যাউডকে সেখান থেকে বাঁচায় এবং তাকে নিয়ে শহরের স্ট্যাউনটন আইল্যান্ড প্রদেশে পালিয়ে যায়।

স্ট্যাউনটন আইল্যান্ডে ক্ল্যাউড শহরের “ইয়াকুজা” দলের হয়ে কাজ করা শুরু করে।ইয়াকুজা দলের লিডার “আসুকা কেইসেন” হলো মারিয়ার ক্লোজ ফ্রেন্ড এবং সে ক্ল্যাউডকে দিয়ে স্যালভাটরিকে হত্যার পরিকল্পনা করে। ক্ল্যাউড লিওন মাফিয়া পরিবারের লিডারকে হত্যার মাধ্যমে মাফিয়ার সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছেদ করে এবং মাফিয়ার দুশমন হিসেবে নিজেকে আত্মপ্রকাশ করে।

স্ট্যাউন আইল্যান্ডে কাজ করার সুবাদে ক্ল্যাউডের সাথে আরো অনেকজনের পরিচয় হয়, যেমন দুর্নীতিগ্রস্থ পুলিশ অফিসার “রেই মেস্কোকি”, মিডিয়া কর্মী “ডোনান্ড লাভ” ইত্যাদির সাথে।

এবার ডোনাল্ড কে কিছু সাহায্য করে ক্ল্যাউড তাকে নিয়ে ইয়াকুজা এবং কার্টেলের মাঝে কিভাবে যুদ্ধ সংঘটিত করা যায় তার পরিকল্পনা করছে। ডোনাল্ড এর পরিকল্পনা মতে ক্ল্যাউড আসুকার ভাই “কেনজি কেইসেন” কে হত্যা করবে কিন্তু দোষ গিয়ে পড়বে কার্টেল এর উপর।

এভাবেই কাহিনী এগিয়ে যেতে থাকে। অবশেষে গল্পের শেষের দিকে ক্যাটালিনার সাথে ক্ল্যাউডের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ক্যাটালিনা হেলিক্পটারে করে পালিয়ে যাবার সময় ক্ল্যাউডের ছোঁড়া রকেট লাঞ্চারের আঘাতে হেলিক্পটারটি ধ্বংস হয় এবং ক্যাটালিনা মৃত্যু বরন করে।

গেমের শেষের দিকে দেখা যায় যে, ক্ল্যাউড এবং মাফিয়া সুস্থ মতো বাড়ি ফিরে যাচ্ছে, কিন্তু সেই বন্দুক যুদ্ধের নিউজ রির্পোট যখন দেখায় তখন রহস্যজনক একটি গুলির আওয়াজ আসে এবং মারিয়ার আওয়াজ বন্ধ হয়ে যায় . . . . . .

 

গেমপ্লেঃ

গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ গেমটি সিরিজের আগের দুটি গেম জিটিএ এবং জিটিএ ২ থেকে অনেকটা ব্যতিক্রমী গেমপ্লে ফিচার করে। গেমটিতে থার্ড পারসন শুটার এবং ড্রাইভিং কে মিক্স করে নতুন থিড্রি ইঞ্জিণ মিশিয়ে গেমপ্লে সাজানো হয়েছে। তবে যখনকার যুগে থিড্রি ইঞ্জিণ দিয়ে গেম নতুন কথা ছিলো না। জিটিএ এর মতোই একটি গেম “হান্টার” মুক্তি দেওয়া হয় ১৯৯১ সালে শুধুমাত্র Commodore Amiga & Atari ST হোম কম্পিউটারে। এছাড়াও ১৯৯৮ সালের “বডি হার্ভেষ্ট”, ১৯৯৫ সালের “স্পেসওর্য়াল্ড” ইত্যাদি গেমটিতেও থিড্রি ইঞ্জিণ ব্যবহার করা হয়েছিল। তবে কোনটিই কিন্তু জিটিএ ৩ গেমটির মতো জনপ্রিয়তা এবং বিক্রি হয় নি।

গেমটিতে হাটা-চলা, দৌড়ানো, লাফ দেওয়া ইত্যদি করা গেলেও সাঁতার কাটা যাবে না। উল্লেখ্য যে সাঁতার কাটার ফিচারটি প্রথম জিটিএ সিরিজে আনা হয় “স্যান এনড্রেস” গেমটিতে। গেমটিতে অস্ত্র ব্যবহার করা যাবে এবং হ্যান্ড-টু-হ্যান্ড কমবাটও ব্যবহার করা যাবে। তাছাড়াও বিভিন্ন ধরণের গাড়ি এবং একটি করে পানিযান এবং আকাশযান চালাতে পারবে।

গেমটিতে ক্রিমিনাল কার্যকম (হাইজ্যাক, খুন ইত্যাদি) বেশি চালানে ওয়ান্টেড লেভেল বাড়বে। যা গেমটিতে তারকা চিহ্নিত করে দেখানো হয়। যত বেশি তারকা তত বেশি ওয়ান্টেড লেভেল এবং যত বেশি ওয়ান্টেড লেভেল বাড়বে তত বেশি শক্তিশালি আইনী ফোর্স তোমাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাবে। গেমটিতে তিন ধরণের আইনী ফোর্স রয়েছে। পুলিশ, এফবিআই এবং সেনাবাহিনী। একবার গ্রেফতার হলে ক্ল্যাউডকে পুরনায় পাওয়া যাবে লোকার পুলিশ স্টেশনে কিংবা হাসপাতালে অবস্থা ভেদে। তবে তখন তার সমস্ত অস্ত্র পুলিশ রেখে দিবে এবং হাসপাতাল কর্মীরা হাসপাতাল ফি এবং পুলিশরা কিছু টাকা ঘুষ হিসেবে রেখে দিবে।

গেমটিতে প্লেয়ার লাইভ আনলিমিটেড পাওয়া যাবে। যা সিরিজের আগের দুটি গেমসমূহে নেই।

এছাড়াও গেমটিতে বিভিন্ন প্রকার ক্রাইম সংঘটিত করে টাকা উপার্জন করা যাবে। গেমটিতে টাকাই মুখ্য বিষয়। টাকা নেই, খেলে মজা নেই! হাহাহা!

গেমটিতে HUD ম্যাপ থাকলেও বড় কোনো ম্যাপ নেই। যা গেমটির একটি ঘাটতি হিসেবে থেকেই যায়। অবশ্যই গেমটির সিকুয়্যাল “ভাইস সিটি”তে বড় ম্যাপের ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও গেমটিতে রয়েছে ২৪ ঘন্টার আবহাওয়া সিস্টেম।

গেমটিতে মাল্টিপ্লেয়ার এর ঘাটতি থাকলেও “মাল্টি থেফট অটো” নামের একটি আলাদা মোড ব্যবহার করে অনলাইনে গেমটি খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। যা এখন বর্তমান যুগে “গ্র্যান্ড থেফট অটো অনলাইন” নামে পরিচিত।

গেমটি মিশনসমূহে দুটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি হচ্ছে স্টোরিলাইনের মিশনসমূহ এবং আরেকটি হচ্ছে সাইড মিশনসমূহ। স্টোরিলাইনের মিশনসমূহে গেমটির কাহিনী এগিয়ে যাবে, তবে এটি একটি লাইনার স্টাইলের ভিতর দিয়ে যাবে। অপর দিকে সাইড মিশনসমূহ গুলো তুমি তোমার ইচ্ছে মতো খেলতে পারো, অর্থ্যাৎ এগুলো হচ্ছে নন-লাইনার স্টাইলের । এদের মধ্যে রয়েছে টেক্সি ড্রাইভার, এম্বুলেন্স ড্রাইভার, ফায়ারট্রাক ড্রাইভার সহ আরো রয়েছে পুলিশের ভূমিকায় খেলার সুযোগ।এগুলোর সবগুলোতেই রয়েছে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা উপার্জনের ব্যবস্থা। এছাড়াও রয়েছে ইউনিক জাম্প এবং হিডেন প্যাকেজ মিশন। তবে এগুলোর খুঁজে পাওয়া খুবই কঠিন কারণ গেমটিতে বড় কোনো ম্যাপের ব্যবস্থা নেই।

 

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)

গেমস জোন :: গ্র্যান্ড থেফট অটো ৩ (১১৫ মেগাবাইট)
আলাদা গাড়ির মোড পাওয়া যাবে নেটে

 

 

 

 

চিটকোডসমূহঃ

গেমটি খেলার সময় সরাসরি নিচের কোডগুলো টাইপ করোঃ (Pause করেও টাইপ করা যাবে)

Main Cheats:

———————–

GUNSGUNSGUNS = Weapon Cheat

IFIWEREARICHMAN = Money Cheat

GESUNDHEIT = Health Cheat

TURTOISE (or TORTOISE, in 1.1) = Armor Cheat

 

Weather Cheats:

—————

SKINCANCERFORME = Nice Weather

ILiKESCOTLAND = Fog Thickness Level 1

ILOVESCOTLAND = Fog Thickness Level 2

PEASOUP = Fog Thickness Level 3

 

Pedestrian Cheats:

——————

ITSALLGOINGMAAAD = Crazy Peds

NOBODYLIKESME = Peds Want To Kill You

WEAPONSFORALL = Peds Pack Heat (Carry Weapons)

CHITTYCHITTYBB = Flying Cars

 

Other Cheats:

————-

MOREPOLICEPLEASE = Wanted Level Up

NOPOLICEPLEASE = Wanted Level Down

GIVEUSATANK = Spawn A Tank

ANICESETOFWHEELS = See-Thru Cars

CORNERSLIKEMAD = Better Driving Code

TIMEFLIESWHENYOU = Fast Gameplay

ILIKEDRESSINGUP = Change Character

BANGBANGBANG = Blow Up Cars Around You

 

Unknown Cheats:

—————

NASTYLIMBCHEAT = Nastier Limb Removal?

MADWEATHER = Time Speeds Up?

BOOOOORING = Unknown (Time Slows Down?)

 

 

ডাউনলোডঃ

http://www.mediafire.com/download/4fzv5c7mr81m7b6/GTA3.rar

or

http://www.mediafire.com/download/4c9yqy7bdot23jb/GTA3.rar

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

www.tunerpage.com

www.techtunes.com.bd

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন fb.com/talented.fahad

 

Series Navigation << গেমস জোন :: পারস্যের রাজপুত্র (২০১০)গেমস জোন :: নিড ফর স্পিড-হট পারসূট ২ (১১৫ মেগাবাইট) >>
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty + 15 =