ফাইভ জি গবেষণায় খরচ ৬০ কোটি ডলার

0
273

চীনা টেলিকম যন্ত্রাংশ নির্মাতা হুয়াউই পঞ্চম প্রজন্মের সেলফোন নেটওয়ার্ক (ফাইভজি) গবেষণা ও উন্নয়নে ৬০ কোটি ডলার ব্যয় করবে। পাঁচ বছরের মধ্যে ফোরজি এলটিই নেটওয়ার্কের পরবর্তী সংস্করণটি চালু করার ঘোষণা দিয়েছে তারা। এ ব্যয়ের মধ্যে ফাইভজি প্রযুক্তির যন্ত্রাংশ তৈরির খরচ অন্তর্ভুক্ত হয়নি। এ ঘোষণার মধ্য দিয়ে অবশ্য ফাইভজি উন্নয়নে বিপুল ব্যয়ে প্রস্তুত প্রথম টেলিকম যন্ত্রাংশ নির্মাতা কো¤পানিতে পরিণত হল হুয়াউই।

হুয়াউইর বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এরিক জু জানান, গ্রাহকদের চিন্তাধারাকেই বদলে দেবে ফাইভজি। তার মতে, ১০ গিগাবাইটের ওপর গতি থাকায় গ্রাহকরা তাদের মোবাইল ডিভাইসে অতি সহজেই হাইডেফিনিশন (এইচডি) মুভি ডাউনলোড করতে পারবেন মাত্র ১ সেকেন্ডেই। পাশাপাশি রিয়েল টাইম ভিডিও যোগাযোগের সুবিধাও থাকবে। ২০১১ ও ২০১২ সালের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে ফাইভজির প্রোটোটাইপ বেজস্টেশন প্রদর্শন করে হুয়াউই।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

54345_1 ফাইভ জি গবেষণায় খরচ ৬০ কোটি ডলার

টেলিকম যন্ত্রাংশ নির্মাণ খাতে হুয়াউইর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী স্বদেশী জেডটিই, সুইডেনের এরিকসন, জার্মান-ফিনল্যান্ড যৌথ কো¤পানি এনএসএন ও ফ্রান্সের আলকাটেল-লুসেন্ট। এদের কেউই এখন পর্যন্ত ফাইভজি যন্ত্রাংশ নির্মাণ কিংবা গবেষণার ঘোষণা দেয়নি। হুয়াউই জানায়, প্রস্তাবিত বিনিয়োগ ব্যয় হবে ফাইভজির উপযোগী প্রযুক্তি উন্নয়নে। এর মধ্যে রয়েছে এয়ার-ইন্টারফেস প্রযুক্তি। চায়না মোবাইল, ভারতী এয়ারটেল, যুক্তরাজ্যের ইইর মতো টেলিকম অপারেটরদের ফোরজি নেটওয়ার্ক স্থাপন করে দিচ্ছে হুয়াউই।

কোমপানিটির প্রত্যাশা, ২০২০ সালের মধ্যে ফাইভজি নেটওয়ার্ক বাণিজ্যিকভাবে চালানোর উপযোগী হয়ে উঠবে। এ নেটওয়ার্কের সর্বোচ্চ গতি সেকেন্ডে ১০ গিগাবাইটেরও বেশি, যা প্রচলিত ফোরজি নেটওয়ার্কের চেয়ে ১০০ গুণ বেশি। সম্প্রতি এনএসএন ও চায়না মোবাইল যৌথভাবে ফাইভজি প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণার ঘোষণা দেয়। তবে এ প্রকল্পের জন্য কোনো অর্থ বরাদ্দ এখন পর্যন্ত করেনি তারা।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

মন্তব্য দিন আপনার