গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

0
344
এটি 283 পর্বের গেমস জোন সিরিজ টিউনের 212 তম পর্ব
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

রেসিডেন্ট ইভিল। চিরস্থায়ী শয়তান! জাপানে যেটি বায়োহেজার্ড নামে পরিচিত। এটি একটি হরর ভিডিও গেম ক্যাপকম কোম্পানির। রেসিডেন্ট ইভিল ৪ গেমটি সিরিজের ৬ষ্ঠতম সংস্করণ যেটি নির্মাণ করেছে ক্যাপকম প্রডাক্টশন স্টুডিও ৪ এবং প্রকাশ করেছে বহু প্রকাশক যাদের মধ্যে রয়েছে ঊবিসফট, নিনটেনডু অস্ট্রেলিয়া, রেড এন্ট ইন্টারপ্রাইজ, টিএইচকিউ এশিয়া প্যাসিফিক ইত্যাদি।

গেমটি মূলত গেমকিউব কনসোলের জন্য নির্মিত। ২০০৫ সালের মাঝামাঝিতে গেমটি বাজারে আসে এবং থার্ড পারসন শুটার গেম ধরণে আনে অসাধরণ পরিবর্তন।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

রেসিডেন্ট ইভিল ৪ গেমটির কাহিনীতে রয়েছে আমেরিকার স্পেশাল এজেন্ট লিওন এস. কেনেডি যাকে পাঠানো হয় আমেরিকার প্রেসিডেন্টের মেয়ে এ্যাশলে কে উদ্ধার করতে। এ্যাশলে কে সম্প্রতি কিডন্যাপ করে একটি “ইভিল” সংস্থা। এ্যাশলে কে উদ্ধার করতে লিওন ভ্রমণ করে ইউরোপের একটি গ্রাম্য পরিবেশে, যেখানে রয়েছে রাগী গ্রামবাসী, দৈত্য সহ আরো অনেক কিছু। রয়েছে রহস্যজনক গুপ্তঘাতক আদা উং।

গেমটি থার্ড পারসন শুটার গেম হলেও এটি “over the shoulder” সিস্টেমে বানানো হয়েছে। গেমটি রেসিডেন্ট ইভিল সিরিজে আনে বৈপ্লবিক সাফল্য এর চমৎকার কাহিনী এবং ভয়ংকর গেম-প্লের জন্য।

গেমটি নির্মাণ করা হয় বহু সময় নিয়ে। আজকাল যুগের মতো নয় যে প্রতি বছরই গেম রিলিজ করতে হবে। গেমটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় ডিসেম্বর ১৯৯৯ সালে প্লে-স্টেশন ২ সংস্করণটি দিয়ে। তবে সম্প্রতি আরো উন্নত গ্রাফিক্স দিয়ে Resident Evil 4 HD সংস্করণটি প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্সবক্স ৩৬০ কনসোলের জন্য ২০১১ সালে মুক্তি পেয়েছে।

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

নির্মাতা:

ক্যাপকম প্রডাক্টশন স্টুডিও ৪,

ক্যাপকম,

সোর্সনেক্সট,

প্রকাশক:

ক্যাপকম

সিরিজ:

রেসিডেন্ট ইভিল

খেলা যাবে:

বহু প্লাটফর্মে

মুক্তি পেয়েছে:

জানুয়ারী-ডিসেম্বর, ২০০৫ (প্লে-স্টেশন ২ এবং গেমকিউব)

মার্চ, ২০০৭ (পিসি)

ধরণ:

হরর

খেলার ধরণ:

সিঙ্গেল প্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক ২ অপারেটিং সিস্টেম,

পেন্টিয়াম ৪ ২.৪ গিগাহার্জ গতির প্রসেসর,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

রাডিয়ন এক্স১০৫০ গ্রাফিক্স কার্ড (২৫৬ মেগাবাইট),

৩ গিগাবাইট ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস,

ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি

গেম-প্লেঃ

গেমটিতে তোমাকে লিওন এর ভূমিকায় খেলতে হবে তৃতীয় ব্যক্তির ক্যামেরা এঙ্গেলে যা কাঁধের উপর দিয়ে ডিজাইন করা হয়েছে। গেম-প্লে ডিজাইন করা হয়েছে মূলত বিশাল ওপেন এরিয়াতে শত্রুকে গুলি করা কে নিয়ে। হাঁটা-চলা করার সময় ক্যামেরাটি লিওন এর পেছনে থাকবে এবং অস্ত্র তাক করার সময়ই কাঁধের উপর চলে আসবে। সিরিজের আগের গেমগুলোর মতো প্রতিটি অস্ত্রেই রয়েছে লেজার ভিশন। মানে হচ্ছে গেমটিতে মাউসের কাজ নেই বললে চলে।

ক্যারেক্টার মুভমেন্টে আনা হয়েছে নতুন কিছু বৈশিষ্ট্য। যেমন গেমটির শুরুর দিকে বিশাল পাথর থেকে তোমায় বাঁচতে হবে কুইক বাটনগুলো প্রেস করে। তাছাড়াও বস সমূহের এ্যাটাক হতে বাঁচতেও এগুলো ব্যবহার করতে হবে।

গেমটিতে প্রধান শত্রু হিসেবে রয়েছে রাগী গ্রাম্যবাসী “লস গ্যানাডস”। রয়েছে দৈত্য, আজীব আজীব সব সৃস্টি! গেমটিতে অস্ত্র,গুলি এবং অন্যান্য আপগ্রেড খরিদ/বিক্রি করার জন্য রয়েছে রহস্যজনক এক ব্যক্তি। উনাকে ব্যবসায়ীই বলা চলে! তাকে গেমটির বিভিন্ন জায়গায় পাওয়া যাবে।

গেমটিতে মূল স্টোরি লাইনের পাশাপাশি রয়েছে বোনাস মিনিগেম। যা গেমটি একবার গেমওভার করার পরই আনলক হবে।

গেমটি মূলত ভৌতিক উপাদান দিয়ে তৈরি। গ্রাম্য পরিবেশ এমন ভাবে সাজানো হয়েছে যেন মনে হয়ে ১৯৪০ দশকের কোনো এক রূপকথা দেশে এসে পড়েছো তুমি। গেমটিতে কয়েকটি পাজল উপাদানও রয়েছে যেখানে তোমাকে বুদ্ধি খাটিয়ে পাজল সমাধান করতে হবে।

চরিত্র সমূহ:

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
লিওন
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
এ্যাশলে
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
আদা
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
জ্যাক
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
লুইস
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
মেনডেজ
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
দৈত্য
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
আইরন মেইডেন
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
চেইন স মেন
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
গ্যানাডোস (গ্রামবাসী)
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
গ্যারাডর
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
ব্যবসায়ী
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
রেইমন
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
ভারডুগো
গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)
ওসমুন্ড স্যাডলার (বস)

সংক্ষিপ্ত কাহিনীচক্রঃ

রেসিডেন্ট ইভিল ২ গেমটির কাহিনীর ৬ বছর পর . . . . .

সাবেক র‌্যাকন সিটি পুলিশ অফিসার এবং বর্তমান স্পেশাল এজেন্ট লিওন এস. কেনিডি কে পাঠানো হয় আমেরিকার প্রেসিডেন্টের মেয়ে এ্যাশলে গ্রাহামকে উদ্ধারের মিশনে। যাকে সম্প্রতি ভার্সিটি হতে কিডন্যাপ করা হয়। কিডন্যাপ করে এক রহস্যজনক খারাপ/শয়তান প্রজাতি।

লিওন ইউরোপের স্পেনের একটি গভীর গ্রামে যায় গোপন তথ্যের বিনিময়ে। সেখানে লিওনের সাথে যুদ্ধ হয় উক্ত গ্রাম্যবাসীদের। যাদেরকে কিডন্যাপারকারীরা জাদু দিয়ে বশে এনেছে। কিছু কিছু গ্রাম্য লোকদের শরীলে ভাইরাস ঢুকিয়ে তাদেরকে দৈত্য বানানো হয়েছে।

গ্রামে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে গ্রাম্যবাসীর প্রধান বিটর ম্যানডেজ লিওনকে ধরে ফেলে এবং তাকে একটি মাইন্ড-কনট্রোলিং ইনজেকশন লাগিয়ে দেয়। লিওন নিজেক একটি জেলখানায় বন্দি হিসেবে পায়। সেখানে তার সাথে ছিল লুইস সেরা। লুইস একজন সাবেক তথ্য অনুসন্ধানকারী। তারা সেখান থেকে পালিয়ে আসতে সক্ষম হয় এবং লুইস লিওনকে বলে যে এ্যাশলে কে গ্রামের গভীর একটি অঞ্চলের একটি পরিত্যাক্ত গীর্জায় বন্দি করে রাখা রয়েছে। এরই মধ্যে লিওন জানতে পারে যে এ্যাশলে কে কিডন্যাপ করেছে ইলূমিনাডোস। একটি শয়তান গ্রুপ যার প্রধান ওসমুন্ড স্যাডলার।

গীর্জা হতে এ্যাশলে কে উদ্ধার করে লিওন আমেরিকায় চলে আসার জন্য প্রস্তুত হলে তাদের হেলিক্পটার কে ধ্বংস করে দেয় গ্রামবাসী। সেখান হতে একটি প্রাসাধ্যের মধ্যে হতে তাদের পরবর্তী প্রস্থানে যেতে হবে। তবে প্রাসাধের মধ্যে তারা আরো শত্রুর মোকাবেল করতে হয়। এদেরকে নির্দেশ দেয় স্যাডলার এর আরেক চেলা রেইমন স্যালাজার।

প্রাসাধের মধ্যে রেইমন এর ফাঁদে পরে লিওন এবং এ্যাশলে আলাদা হয়ে পড়ে। ওদিকে লুইস একটি পিলের খোঁজে প্রাসাধে আসে যা লিওন এবং এ্যাশলের ইনফেকশনকে সারিয়ে তুলতে পারে। তবে লুইসকে মেরে ফেলে রেইমন। কিন্তু লিওনের হাতে পিল এসে পড়ে। সেখান হতে রেইমন পালিয়ে যায় প্রাসাধের উচ্চতম বিল্ডিংয়ে।

প্রাসাধে লিওনের সাথে সাময়িক ভাবে দেখা হয় আদা উং এর। মহিলাটি লিওনকে বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করেছিল অতীতে। যাই হোক এর পর লিওন লুইস হত্যার প্রতিশোধ নিতে রেইমনকে হত্যা করতে বেরিয়ে পরে।

মূলত গেমটির ২নং বস হচ্ছে রেইমন। যে ভাইরাসের প্রতাপে বিশাল আকার ধারণ করে। রেইমন কে হত্যা করে লিওন চলে যায় নিকটবর্তী একটি গবেষণা কেন্দ্রে। যেখানে তার সাথে দেখা হয় জ্যাক এর। জ্যাক লিওনের সাবেক ট্রেনিং কমান্ডার যিনি দুবছর আগে হেলিক্পটার দুর্ঘটনায় “মারা” যান বলে শোনা গিয়েছিল।

তবে জ্যাককেও ভাইরাসের মাধ্যমে বদলিয়ে ফেলা হয় এবং এ্যাশলের কিডন্যাপে জ্যাকের সাহায্য রয়েছে প্রমাণিত হয়। জ্যাকের সাথেও যু্দ্ধ করতে হবে তোমার। জ্যাককে খুনের পর এ্যাশলে কে উদ্ধার করে লিওন।

অতপর সেখান থেকে অবশেষে গেমটির ফাইনাল বস স্যাডলার এর সাথে লিওনের যুদ্ধ হয়। আদার সাহায্য নিয়ে লিওন স্যাডলারকে মারকে সক্ষম হয়। তবে আদা লিওনের কাজ থেকে জোরপূর্বক স্যাম্পলটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

অবশেষে লিওন এবং এ্যাশলে সেখান হতে আদার জেট-স্কি দিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে।

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

ডাউনলোড:

thepiratebay.sx/torrent/6730588/

or

http://mediafire.com/?cxa2dwh29hmkf69

http://mediafire.com/?nxt1vwkqssb0jc8

http://mediafire.com/?im07x2u5bab9pqf

http://mediafire.com/?38d97iwu5gj02fk

http://mediafire.com/?tolqzmr14eouoar

http://mediafire.com/?xqwj82a4twyczuu

http://mediafire.com/?dbnl8jq41s8ivim

http://mediafire.com/?17eun8ijr94i4j6

http://mediafire.com/?67bc2bocbiw8ktq

http://mediafire.com/?qaiqjhegd21sztd

http://mediafire.com/?2fy5p03ewkuxas0

http://mediafire.com/?gikby27vn2tcai1

http://mediafire.com/?kcc29xjcd03d3ab

http://mediafire.com/?zjknbkrib41d3s6

http://mediafire.com/?nvrnchn3bd5x5cc

http://mediafire.com/?pbekr3v64v8p850

http://mediafire.com/?eo2jio8m3gaumoz

http://mediafire.com/?9ce2c7ng9waitj7

http://mediafire.com/?9wrdk3dcy78bzd3

http://mediafire.com/?ho28ypvu41tfwao

http://mediafire.com/?5929zsef68xq945

http://mediafire.com/?q60rp3ui36fkup3

http://mediafire.com/?tsivivj419f29zn

http://mediafire.com/?u1otfrrgj9hjt6i

http://mediafire.com/?a9ax39ogpclp9b5

http://mediafire.com/?zf0dg7k76d3d44u

OR

    http://4shared.com/file/LaQYQ6g4/

    http://4shared.com/file/26ahE7lf/

    http://4shared.com/file/ucSL5uZB/

    http://4shared.com/file/ChsAC7Ue/

    http://4shared.com/file/a3MPRIs4/

     http://4shared.com/file/GJl8O9MN/

Or

     http://depositfiles.com/files/mnym5k8hv

    http://depositfiles.com/files/dtn8qs0xc

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড  তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন  লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

www.tunerpage.com

www.techtunes.com.bd

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন fb.com/talented.fahad

গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৪ (২০০৫)

Series Navigation << গেমস জোন :: এসাসিন্স ক্রিড ৪ (২০১৩) – জলদস্যূ দুনিয়ায় স্বাগতম!গেমস জোন :: রেসিডেন্ট ইভিল ৫ (২০০৯) >>
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × four =