মোবাইল এবং ট্যাবলেট ভাইরাস মুক্ত রাখবেন কিভাবে??? জানতে হলে দেখুন। (পর্ব – ১)

0
420

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভাল আছেন। আপনাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট করছি। পোস্টটা অনেক বড়। তাই ধারাবাহিকভাবে লিখছি।

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটেও মারাত্মক ভাইরাস! কম্পিউটারের ভাইরাস এখন ট্যাবলেট আর কম্পিউটারের ক্ষেত্রেও ঝুঁকি তৈরি করছে। ভাইরাস আক্রমণের ঝুঁকি বিবেচনা করলে মুঠোফোনের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তায় পড়ে যাওয়ারই কথা।যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি গবেষকেরা জানিয়েছেন, ট্যাবলেট আর মুঠোফোনের জনপ্রিয়তার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ভাইরাসের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও। ইন্টারনেট নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ব্লু কোট সিস্টেমসের প্রকাশিত সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডেস্কটপ কম্পিউটারের মতই মোবাইলফোন ও ট্যাবলেটে ভাইরাস আক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে গেছে।চলতি বছরে কম্পিউটার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ম্যাকাফিও তাদের প্রতিবেদনে একই ভাইরাস ঝুঁকির কথা জানিয়েছিল। ম্যাকাফি সেসময় জানিয়েছিল, অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমেই ভাইরাস আক্রমণের ঝুঁকি বেশি।গবেষকেরা জানিয়েছেন অ্যান্ড্রয়েডের পাশাপাশি অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমনির্ভর মুঠোফোন ব্যবহারকারীদেরও ভাইরাস আক্রমণের কারণ ও প্রতিরোধের বিষয়গুলো মাথায় রাখা উচিত। যদি মোবাইলফোন বা ট্যাবলেটে ভাইরাস ঢুকে পড়ে তবে তা ব্যবহারকারীর অগোচরেই অ্যাডওয়্যার ইনস্টল করে ফেলতে পারে এবং এসএমএস ট্রোজান সক্রিয় করে ফেলতে পারে। এরপর মোবাইল ফোন থেকে অগোচরে বিভিন্ন কন্টাক্ট নম্বরে বার্তা পাঠাতে থাকে এবং অর্থ হাতিয়ে নিতে থাকে। এ ছাড়াও মোবাইল ফোনে আসা ইমেইল, বার্তা ও ব্রাউজিং তথ্য চুরি করে। তাই আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চলে যাচ্ছে হ্যাকারদের কাছে।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

প্রথমে জেনে নিই কিভাবে ভাইরাস মোবাইল এবং ট্যাবলেট এ প্রবেশ করে??? 

অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডের সময় মোবাইলফোন বা ট্যাবলেটে ভাইরাস প্রবেশ করে। অ্যাপ ডাউনলোডের সময় সচেতন না থাকার ফলে ভাইরাস ভোগান্তির শিকার হতে হয়। মোবাইলফোন নিরাপত্তা বিশ্লেষকেরা জানিয়েছেন, জনপ্রিয় ও প্রয়োজনীয় অনেক অ্যাপ্লিকেশনের ছদ্মবেশে মোবাইলফোনে ম্যালওয়্যার হিসেবে ডাউনলোড হয়ে যায়। অনেক সময় সচেতন থাকার পরও ম্যালওয়্যারের ধোঁকায় পড়ে যান অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডকারী। ২০১২ সালে জনপ্রিয় গেম ‘অ্যাংরি বার্ডস’ ও ‘অ্যাসাসিন ক্রিড’ অ্যাপ্লিকেশনের ছদ্মবেশে গুগল প্লে স্টোর থেকে ম্যালওয়্যার ডাউনলোডের হার ছিল বেশি। এতে অনেক অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোডকারী তাদের প্রচুর অর্থ খুইয়েছেন। অ্যাপ্লিকেশন ছাড়াও ওয়েবপেজ থেকেও ট্যাবলেট ও মোবাইলফোনে ভাইরাসের আক্রমণ ঘটতে পারে।

 

অ্যান্ড্রয়েডে জন্য বেশি ভাইরাস তৈরি হচ্ছে!!!! অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। 

কম্পিউটার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ম্যাকাফি জানিয়েছে, ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি নাগাদ তারা ৩৬ হাজারেরও বেশি অ্যান্ড্রয়েড ম্যালওয়্যার শনাক্ত করেছিল। ম্যাকাফির পাশাপাশি আরেকটি ইন্টারনেট নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কি ল্যাবের ২০১২ সালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, হ্যাকারদের কাছে ভাইরাস ছড়ানোর সবচেয়ে জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড। ২০১২ সালে ৯৪ শতাংশ ম্যালওয়্যার অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম লক্ষ্য করে তৈরি করা হয়েছিল। এর মধ্যে বেশি ঝুঁকিতে ছিল জিঞ্জারব্রেড ও আইসক্রিম স্যান্ডউইচ। ক্যাসপারস্কির শনাক্ত করা বেশির ভাগ ভাইরাসই ছিল ট্রোজান এসএমএস। তাই মুঠোফোনে কোনো অস্বাভাবিক মেসেজ আদান-প্রদান বিষয়টির খোঁজ পেলে, আপনার মুঠোফোনে ভাইরাসের আক্রমণ হয়েছে কী না তা যাচাই করে দেখতে হবে এবং দ্রুত প্রতিরোধের কথা ভাবতে হবে। প্রতিরোধের জন্য আপনাকে  অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের সর্বশেষ সংস্করণটি ব্যবহার করতে হবে বলেই পরামর্শ গবেষকেদের।

গবেষকেরা জানিয়েছেন, অ্যান্ড্রয়েডের জন্য বেশির ভাগ ভাইরাস তৈরি হচ্ছে; এর অর্থ এই নয় যে, অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমগুলো সম্পূর্ণ নিরাপদ। মুঠোফোন বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান অ্যাপঅথরিটি প্রকাশিত সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যান্ড্রয়েডের চেয়েও আইওএস অ্যাপ্লিকেশনগুলো বেশি ঝুঁকি তৈরি করতে পারে। গবেষকেরা ২০১২ সালে প্রথম আইওএস ম্যালওয়্যারের খোঁজ পেয়েছিলেন যে অ্যাপ্লিকেশনটি আইফোনের তথ্য চুরি করে হ্যাকারকে জানিয়ে দিতে সক্ষম ছিল এবং এ ম্যালওয়্যারটি আইফোনের কন্টাক্ট তালিকার সবার কাছে স্প্যাম বার্তা পাঠাতে সক্ষম ছিল।

আরও জানতে পরবর্তী পোস্ট এর জন্য অপেক্ষা করুন।

আরও নতুন নতুন আপডেট জানতে ফেসবুকে লাইক দিনঃ  এভারগ্রীন আইডিয়া

আরও জানতে ভিজিট করুন Evergreen Idea

চাইলে আপনারাও লিখতে পারেন। ছড়িয়ে দিতে পারেন আপনার আইডিয়া গুলো……।।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten − two =