কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

20
2306

কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

আসসালামুয়ালাইকুম। কেমন আছেন আপনারা। আশা করি মহান আল্লাহ এর রহমতে ভালই আছেন। একটু দেরি হয়ে গেল। আমার এই চেইন টিউনের আজকের পর্বে আপনাদের স্বাগতম। আমি গত পর্বে আপনাদের সাথে গ্রাফিক্স কার্ড এর খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করেছিলাম। আজকে আমি আপনাদের NVidia Corporation এর গ্রাফিক্স কার্ড ও এর সাড়া জাগানো সব আধুনিক সব ফিচার নিয়ে আলোচনা করব যাতে আপনি একটি স্পষ্ট ধারনা পান।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

আপনারা জানেন NVidia Corporation ও ATi Technologies Ltd. ( বর্তমানে AMD Radeon ) গ্রাফিক্স এর বাজারে রাজত্ব করে আসছে। তাই আপনাকে গ্রাফিক্স কার্ড এর খুঁটিনাটি জানতে হলে এই দুই কোম্পানি সম্পর্কে জানতে হবে।

১৯৯৩ সালে তিন বন্ধু মিলে NVidia Corporation এর প্রতিষ্ঠা করেন। কিন্তু তখনকার সময়ে উৎপাদিত এই গ্রাফিক্স কার্ড গুলো বাজারে তেমন একটা প্রভাব ফেলেনি। কিন্তু এক তরুনের অক্লান্ত পরিশ্রমে ( তরুণটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি) ১৯৯৯ সালে বাজারে আসে NVidia GeForce সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড। তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। সুধুই সামনে চলা। এই অবিশ্বাস্য সাফল্লের কারন ছিল NVidia Corporation গ্রাফিক্স কার্ডে সর্বপ্রথম GPU ( Graphics Processing Unit ) সংযোজন করে যা গ্রাফিক্স কার্ডের ধারনাই পাল্টে দেয়। এই GPU ( Graphics Processing Unit ) এর কারনে তখনকার গ্রাফিক্স কার্ড গুলো এত শক্তিশালী হয়ে উঠে (GPU সম্পর্কে জানতে এখানে দেখুন ) যা ছিল ধারনার বাইরে। তারপর থেকে শুরু হল NVidia Corporation এর গ্রাফিক্স রাজ্য শাসন।
নিচে আমি NVidia এর বিভিন্ন প্রযুক্তি নিয়ে আলোচনা করব।

+ NVIDIA GPUDirect™ +

২০১০ সালের জুন মাসে প্রথম এই প্রযুক্তিটি NVidia Corporation তাদের গ্রাফিক্স কার্ডে সংযোজন করে। এই প্রযুক্তিটি কম্পিউটারের প্রসেসসরের সাথে গ্রাফিক্স প্রসেসর এর সমন্নয় ঘটিয়ে থাকে যা কম্পিউটারের প্রসেসসিং ক্ষমতার সাথে সাথে গ্রাফিক্স প্রসেসসিং এর ক্ষমতাও দ্বিগুণ করে দেয়।

কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

+ CUDA™ +

এটি NVidia এর একটি অসাধারন প্রযুক্তি। এখনকার গ্রাফিক্স কার্ডগুলোর GPU এর মাঝে CUDA সংযোজিত আছে। এর ফলে CUDA সংযোজিত গ্রাফিক্স কার্ডগুলোর GPU তাদের সাধারন ক্ষমতার থেকেও বেশি অসাধারন শক্তি প্রয়োগ করতে পারে কোন অতিরিক্ত বিদ্যুৎ নষ্ট না করেই। আসলে এটি NVidia এর প্যারালাল কম্পিউটিং Architecture যা আপনার প্রয়োজনের সময় নাটকীয়ভাবে আপনার গ্রাফিক্স কার্ডের GPU এর ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করতে পারে।

+ NVIDIA Optimus™ +

আজকালকার নোটবুক এ মোবাইল প্লাটফর্মের গ্রাফিক্স কার্ডের এর ব্যাবহার বেশি। কেননা উচ্চক্ষমতার গ্রাফিক্স কার্ডের জন্য দরকার হয় বেশিমানের পাওয়ার সাপ্লাই যা নোটবুক এ অসম্ভব। কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা অথবা ভিডিও এডিটররা তাদের নোটবুক এ উচ্চক্ষমতার গ্রাফিক্স কার্ডের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন যা কোন অতিরিক্ত বিদ্যুৎ নষ্ট করবে না। এই ক্রমবর্ধমান মোবাইল প্লাটফর্মের গ্রাফিক্স কার্ডের ক্ষমতা বৃদ্ধি করল NVIDIA Optimus, অতিরিক্ত বিদ্যুৎ নষ্ট না করেই। CUDA ও NVIDIA Optimus এর মিলিত শক্তি আজকালকের নোটবুক ব্যাবহারকারী গ্রাফিক্স ডিজাইনাররা অথবা ভিডিও এডিটরদের জন্য এক অভাবনীয় আবিস্কার যা নোটবুকের গ্রাফিক্স কে এক্সট্রিম এর পর্যায়ে নিয়ে গেছে। ফলে এখন সহজেই নোটবুকে এমন সব গেম/গ্রাফিক্স ডিজাইন করা যাচ্ছে যা কিছুদিন আগেও অসম্ভব ছিল।

+ PUREVIDEO +

আমরা ইতিমধ্যে হাই-ডেফীনেশন এর যুগে প্রবেশ করেছি। আর এই হাই-ডেফীনেশন এর আনন্দকে আর হাই-ডেফীনেশন করতেই এই PUREVIDEO। NVidia এর ভিডিও কোর যে কোন সাধারন মানের ভিডিও কে মনিটরে ডাবল ইমেজ, ব্লারিং, ইনভারস, এর সাহায্যে অসাধারন করে তুলে কোন অতিরিক্ত বিদ্যুৎ নষ্ট না করেই। আর 3D ভিডিও দেখার আনন্দকে আরও দ্বিগুণ করতে সক্ষম এই PUREVIDEO। তাছাড়া এর সাহায্যে ২-৪ টি মনিটরকে একত্র করা যায়।

+ SLI +

১৯৯৯ সালের পর আরও একবার বিশ্বকে NVIDIA তার দাপট দেখিয়ে দিল। খুব সম্ভবত ২০০৮ সালে NVIDIA এই নতুন প্রযুক্তিটি আবিস্কার করে। সেই সময় উচ্চক্ষমতার মাল্টিমিডিয়া এডিটিং এর কাজ করতে খুবই উচ্চক্ষমতার GPU সম্পন্ন গ্রাফিক্স কার্ডের প্রয়োজন হতো যা খুবই ব্যায়বহুল ছিল যা অনেকের পক্ষে সম্ভব ছিল না। তাই মোটামুটি মাঝারি দামে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন কিছু গ্রাফিক্স কার্ড সময়ের দাবি ছিল। কিন্তু NVIDIA এর পক্ষে তা সহজ ছিল না। কেননা ১ জিবি গ্রাফিক্স মেমরির দাম এর দাম ছিল ৫১২ মেগাবাইট এর ৩গুন। তাই NVIDIA কিছু একাধিক মাঝারি মানের গ্রাফিক্স কার্ডের ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে অবিশ্বাস্য ক্ষমতাসম্পন্ন এক গ্রাফিক্স প্রসেসসিং প্লাটফর্মের সূচনা করলো। এই SLI এর সাহায্যে ২-৪ টি গ্রাফিক্স কার্ড একত্র করে এক অসাধারন গ্রাফিক্স প্রসেসসিং ইউনিট পাওয়া যায় যার ক্ষমতা আলাদাভাবে এদের ২-৪ টি গ্রাফিক্স কার্ড থেকেও বেশি।

+ HyBrid SLI +

২-৪ টি গ্রাফিক্স কার্ডের জন্য দরকার হয় একটি উচ্চমানের পাওয়ার সাপ্লাই যার বাজারমূল্য দিয়ে ভালমানের একটি নেটবুক কেনা যায়। তাই সকলের জন্য এই প্রযুক্তিটি সহজলভ্য ছিল না। কিন্তু যারা দুধের স্বাদ ঘোলে মেটাতে চান তাদের জন্য NVIDIA বের করলো HyBrid SLI । আপনার মাদারবোর্ডে যদি কোন গ্রাফিক্স ইঞ্জিন থাকে ( গ্রাফিক্স মেমোরি নয় ) তাহলে আপনি আপনার গ্রাফিক্স কার্ডের সাথে তা যুক্ত করে ভাল পারফমেন্স পেতে পারেন। যেমন আপনার মাদারবোর্ড এ যদি ৪২৫০ গ্রাফিক্স ইঞ্জিন দেয়া থাকে, তাহলে আপনি HyBrid SLI এর সাহায্যে আপনার মাদারবোর্ড ও গ্রাফিক্স কার্ডের গ্রাফিক্স ইঞ্জিনকে এক্ত্র করে একই প্লাটফর্মে নিয়ে আসতে পারবেন যা আপনাকে আপনার গ্রাফিক্স কার্ড ও মাদারবোর্ড এর পরিপূর্ণ ক্ষমতা ব্যাবহারের সুযোগ করে দিবে। আজকালকার প্রায় সকল মাদারবোর্ডে ( ইন্টেল ছাড়া ) বিল্ট-ইন হিসাবে ৪২৫০/৯০ এর গ্রাফিক্স ইঞ্জিন দেয়া থাকে।

কম্পিউটার সমাচার, ( গ্রাফিক্স কার্ড, NVidia ) পর্ব-৪

+ PhysX +

PhysX হচ্ছে এমন একটি প্রযুক্তি যার সাহায্যে গেম ও 3D ছবি কে অ্যান্টি-অ্যালাইসিং, বাম্প-ম্যাপিং, অ্যানাইসত্রপিক, পিক্সেল শ্রেডার, ব্যাবহার করে আরও বাস্তব ও নিখুত করে তোলা হয়। AVATAR সহ আরও অনেক ছবিতে এই প্রযুক্তি ব্যাবহার করা হয়েছে।

আজকে এই পর্যন্ত। পরবর্তী পর্বে ATi Technologies Ltd. এর গ্রাফিক্স কার্ড ও গ্রাফিক্স মার্কেটে এদের অবদান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। ধন্যবাদ সবাইকে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

20 মন্তব্য

  1. আজব ভাইকে ধন্যবাদ। উনার মাধ্যমে অনেক কিছু ক্লিয়ার হল। :)

  2. অনেক গুরুত্তপুর্ন টিউন, ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য। ভাল থাকবেন।

  3. তানভির ভাই আবারও জটিল টিউন

    + HyBrid SLI + এবং + NVIDIA GPUDirect™ + প্যারার ছবিগুলা বড়ো করে দিলে মনে হয় ভাল হয় 8)

    HyBrid ;)

    :arrow:

    ati ভাল না nvidia, এর জবাব এখন কারো কাছে পাই নাই । দুইটাই কারো থেকে কেউ কম না । তবে ati এর দাম নাকি কম শুনছি ।
    ১।power কে বেশি খায় :?:

    ২।আচ্ছা গেম স্লো চলে কিশের অভাবে :?:

    ৩। ATi Radeon 5670 এর দাম কত :?: {specific}

    ৪। আলাদা psu লাগবে :?:

    ৫। আমার পাওয়ার সাপ্লাই অরিজিনাল কিনা তা কিভাবে বুঝব :?:

    অনেক প্রশ্ন করে ফেললাম । আরো প্রশ্ন আছে , দেখি মনে করে জানাব

    এগুলর উত্তরের অপেক্ষায় রইলাম

    :P :P :P :P
    :mrgreen:

    • ১. nvidia এর GeForce সিরিজ। কিন্তু ati এর ৫০০০ সিরিজ খুব কম বিদ্যুতে চলে।
      ২. GPU কম ও পিক্সেল শ্রেডার এর মান ৩.০ এর কম হলে।
      ৩. HD5830 DDR5 1GB PCI-Express Card = 10,500 Tk.
      AMD HD5670 1GB DDR3 PCI Exp Card= 5,800 Tk.
      HD6570 1GB DDR3 PCI Express Card = 6,500 Tk.
      HD6570 2GB DDR3 PCI Express Card = 8,500 Tk.
      HD6670 1GB GDDR3 PCI Express Card = 7,400 Tk
      HD6670 1GB GDDR5 PCI Express Card = 8,900 Tk

      ৪. ৬০০০সিরিজের জন্য লাগবে।
      ৫. আমাদের বাজারে শুধু Thermaltake ও GIGABYTE এরটা পাওয়া যায়। এই দুইটি ছাড়া বাকি সব নকল। তবে Thermaltake টা কেনাটা হবে সবচে বুদ্ধিমানের কাজ। Thermaltake এর LitePower টা আসল না যদিও এটার দাম আসল টা থেকে মাত্র ২০০-৫০০ টাকা কম। Thermaltake এর TR2 সিরিজ টা আসল যেটা সরাসরি আমেরিকা থেকে আসে।
      আপনাকে আমি আসল পাওয়ার সাপ্লাই এর দামের একটু ধারনা দিচ্ছি,
      Thermaltake 430w 3000tk ( নকল )
      Thermaltake 500w 4500tk ( নকল )
      Thermaltake TR2 500w 4700tk ( আসল )
      XFX 550w 10000tk ( আসল )
      Thermaltake TR2 550w 7500tk ( আসল )

      আপনি যেই গ্রাফিক্স কার্ড কিনবেন তার প্যাকেটের গায়ে কততুকু পাওয়ার সাপ্লাই লাগবে তা লেখা আছে, এই গুলা UCC থেকে কেনা ভাল।

      আর ভাই, ATi টা কেনা ভাল। কেননা ATi এর সমানশক্তির, nvidia এর গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম ৬০০-১০০০ টাকা বেশি। তাছাড়া nvidia বিদ্যুৎ বেশি ব্যাবহার করে।

      আর ভাই যা যা মনে চায় জিজ্ঞেস করেন। জানা থাকলে অবশ্যই উত্তর দিব।

      • যা প্রশ্ন করেছি তার থেকে অনেক বেশি উত্তর পেয়েছি । অনেক ধন্যবাদ আপনাকে ।
        :D
        আমি চাচছি কোন বারতি কিছু না কিনে মানে psu বা অন্ন কিছু না কিনে শুধু গ্রাফিক্স কার্ড কিনে চালাতে । আমার কেচিং এর সাথে যে পাওইয়া সাপ্পলাই দিয়েছে তার ্ক্রীনশট

        [img]http://s1190.photobucket.com/albums/z451/ezzio97/?action=view&current=12.jpg[/img]

        ১। এইটা দিয়ে কি AMD HD5670 1GB DDR3 PCI Exp Card চালানো যাবে ?

        ২ ।পাওয়ার সাপ্লাই টা কি ভাল ?

        ৩। HD5670 দিয়ে কি সব গেম smoothly এবং হাই দিয়ে খেলা যাবে ?

        ৪। এটা কি লেটেস্ট কার্ড ?

        ৫। কোথা থেকে কিনলে ভাল হয়?

        ৬। ২-৩ মাসে কি দাম এর বেশি হের-ফের হবে ?

        ৭। আমি চেক করে দেখলাম HD6570 1GB DDR3 PCI Express Card এর অনেক নতুন নতুন ফিচার আছে এটাকি চালান যাবে এই পাওয়ার সাপ্লাই দিয়ে ?

        এখন একট আজব তারছিরা প্রশ্ন করি

        ০০। দুট পাওয়ার সাপ্লাই কি এক সাথে চালান যাবে ? আমার কাছে আরেকটা নরমাল পাওয়ার সাপ্লাই আছে :P :P :P :P

        :mrgreen:

          • ও আরেকটা প্রশ্ন গ্রাফিক্স কার্ড এর সাথে কম্পিউটার এর প্রসেসর এর কোন সম্পর্ক আছে ?
            আমারে প্রসেসর আদি কালের তবে ভাল ভাল অনেক গেম চলে :P :P :P পেন্টিয়াম ৪- ৩ GHz
            মাদারবোর্ড – গিগাবাইট s- series G41M-Combo

        • ১. আপনার পাওয়ার সাপ্লাই তে লেখা ৪৫০ কিন্তু আসলে তা ঠিক না। তবেঁ আসা করি কোন সমস্যা হবে না।
          ২. জী, মোটামুটি ভাল।
          ৩. অবশ্যই যাবে।
          ৪. জী না। এটা ২০০৯ সালের। ৬৫৭০ টা ২০১০ এর।
          ৫. আইডিবি এর UCC থেকে, কারন ওরাই এর মেইন ডিলার।
          ৬. ২-৩ মাস পর ৫৬৭০ এর দামে ৬৭** সিরিজের টা পাবেন, সম্ভভত ৫৬৭০ এখন মার্কেটে নাই।
          ৭. পারবেন, তবে সমস্যা হবে,

          ০০. অবশ্যই ভাই, নরমালটা দিয়ে আসা করি ভাল মানের গ্রাফিক্স কার্ড চালানো যাবে। তবে একটু ভ্যাজাল হবে। অভিজ্ঞ কারো সহায়তা নিতে হবে। হে হে হে, এটা মোটেও তারছিরা প্রশ্ন না।

          • ভালমানের প্রসেসর ব্যাবহার না করলে গেমের পিক্সেল প্রসেস হতে সময় নিতে পারে। আজকালকার গেমগুলাতে গেমিং ইঞ্জিন ব্যাবহারের কারনে তা আপনার কাছে কিছুটা ধীরগতির মনে হতে পারে, তবে আশা করি সেটা তেমন মাথাবেথার কারন হয়ে দাঁড়াবে না।

          • আমার বন্ধুর Core 2 Duo তে NFS Hot Pursuit ভালো চলে কিন্তু আরেক বন্ধুরটা তে তা কিছুটা ধীরগতির। ২ জনের সবকিছু এক, খালি ২য় জনের প্রসেসসর টা Dual Core. তবে সেটা খুবীই ভালো করে খেয়াল না করলে চোখে পড়বে না।

          • ভাই আ্পনারে আবারো জালাইতে আসলাম :P

            ১।HD5670 থেকে HD6570 কতটুকু ভাল?
            যদি বেসি ভাল হয় তবে ১ মাস পর এ HD6570 কিনব

            ২। আগামি ৩ বছর গেম নিয়ে চিন্তা করতে হবে এই কার্ড কিনলে – HD6570 । মানে ২০১৪ পরযন্ত সব গেম খেলা যাবে ? HD5670 এ যাবে ?

            ৩। আমার দুইটা পাওয়ার সাপলাই প্রায় একি । এদের এসাথে জয়েন দিয়ে HD6570 ভালো ভাবে চালান যাবে?
            ৪।পাওয়ার সাপ্ললাই এর দাম ত গ্রাফিক্স কার্ড এর সমান !!! । কম দামে নাই <১০০০ ?

            ৫।গ্রাফিক্স কার্ড এর অনেক ব্রান্ড দেখি যেমনঃ Sapphire , His , Diamond , ASUS , গিগাবাইট ইত্যাদি। আসলে কি এদের HD6570 সব কার্ড একই ? ।
            ৬। এমডি বানালে এরা কি করে ? মানে এরাকি উতপাদন কারি ? । আসলে এই শব কম্পানিগুলা কি? এমডি direct বাজারে ছারে না ?
            ৭। যদি না ছারে তবে এই গুলার মধ্যে কোন্টা বেশি বেশি ভাল ?

            ৮। ছয় হাজারের মধ্যে এইটাই greatest কার্ড বর্তমানে ? { বাজেট এটু বারাইছি :P :P :P } HD6570
            ৯। এর থেকে ভাল কার্ড বতমানে নাই ? [ ছয় হাজারের মধ্যে +৫০০ থেকে ৭০০]

            ১০।গ্রাফিক্স কার্ড যদি কিনি তবে ১জিবি আর 1.5 জিবি রেম গেম খেলতে কোন সমস্যা হবে ?
            ১১। HD6570 ২গিবি এর দাম কত হতে পারে ?
            যদি এইটা ভাল হয় তবে এইটাই কিনব । {যদি পাওয়ার সাপলাই এর সাথে যায় }
            তবে Engine clock speed: HD5670 775 MHz HD6570 650 MHz :(
            ১২। GDDR5 এবং DDR3 এর পা্থক্য কি । দাম এর কেমন হের ফের হবে ?
            ১৩।GDDR5 এর কি ক্লক স্পীড বেসি?

            বিল্ট ইন গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে গেম খেলি :( । অনেক অনেক অনেক স্লো । তার পরেও খেলি । সব গেমি চলে তবে অনেক স্লো :( :(

            ০০০। আরেকটা প্রশ্ন এমনি ০০০। প্রিথিবীর সবচে পাওয়ারফুল গ্রাফিক্স কার্ড কোনটা । দাম কত হতে পারে ?

          • ভাই, আপনি আমাকে ০১৬৭৪২৯৪৫৮৫ এ পাবেন। যে কোন প্রশ্ন নিশ্চিন্তে করতে পারেন, যে কোন সময়। আসলে না লিখে সরাসরি কথা বললে আপনি ভালোভাবে বুঝতে পারবেন, আমিও ভালোভাবে বুঝাতে পারব।

          • ১. মোটামুটি ভালই।
            ২. কিছু দুর্লভ হাই-এন্ড ছাড়া বাকি সব খেলা যাবে মিডিয়াম গ্রাফিক্সে।
            ৩/৪. ১০০০ টাকাতে আশা করি ৪০০ ওয়াট এর পাওয়ার সাপ্ললাই পাবেন তবে ওয়ারেন্টই নাই।
            ৫. জি, সবারটা মোটামুটি একি। তবে ব্র্যান্ডভেদে মেমোরি টাইপ, ও কুলিং সিস্টেমের পার্থক্য থাকতে পারে।
            ৬. এএমডি শুধু ইঞ্জিন তৈরি করে। Sapphire , His , Diamond , অসুস এরা এএমডি থেকে তা কিনে নিয়ে সম্পুন গ্রাফিক্স কার্ড তৈরি করে। যেমন Sapphire এর ৫৬৭০ এর মেমোরি টাইপ ডিডিআর-৩, কিন্তু আসুস এ তা ডিডিআর-৫।
            ৭. সবচে ভাল হবে xfx. তারপর আসুস, গিগাবাইট। তবে Sapphire না নিলেই ভাল হবে।
            ৮. ৬৬৭০, এটার ডিডিআর-৩ আছে, আবার ডিডিআর-৫ ও আছে। আমারটা ডিডিআর-৫। মোটামুটি ভালই।
            ৬৭৭৭ ও নিতে পারেন।
            ৯. আমার জানা নাই। http://www.ucc-bd.com ryanscomputers.com
            ১০. না হবে না।
            ১১. দুঃখিত।
            ১২/১৩. ডিডিআর-৫ এর ক্ষমতা অনেক বেশি। দামের পার্থক্য ১০০০-১৫০০ টাকা।

  4. PhysX technology নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা আছে। ধন্যবাদ জানানোর জন্য। দারুন টিউন! :)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

17 − 3 =