পিসির গতি বাড়াতে সহায়ক কিছু প্রোগ্রাম। আসলে তা সত্য? পর্ব ৩

1
410
পিসির গতি বাড়াতে সহায়ক কিছু প্রোগ্রাম। আসলে তা সত্য? পর্ব ৩

তাসনুভা মাহমুদ

কমপিউটার জগৎ-এর নিয়মিত একজন প্রফেশনাল কনটেন্ট রাইটার। ব্লগ লিখতে ভালোবাসি, কবি হলে কবিতা লিখতাম জন্মেছি প্রযুক্তি প্রেমী হয়ে তাই টেকনোলজি ব্লগ লিখাই আমার পেশা এবং নেশা।
পিসির গতি বাড়াতে সহায়ক কিছু প্রোগ্রাম। আসলে তা সত্য? পর্ব ৩

যখন পিসি নতুন থাকে, তখন এটি কত দ্রুতগতিতে কাজ করতে পারে, তা নিয়ে আমাদের খুব একটা মাথা ঘামাতে হয় না। তবে এ অবস্থা বেশিদিন স্থায়ী হয় না, বিশেষ করে আমরা যখন পিসিকে আরেকটু গতিসম্পন্ন, আরেকটু দ্রুতগতিতে স্টার্ট করতে, কোনো প্রোগ্রাম চালাতে বা ইন্টারনেট থেকে ফাইল দ্রুতগতিতে ডাউনলোড করার প্রত্যাশায় উদ্যোগী হই এবং পিসির গতি বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রাম ইনস্টল করে ব্যবহার শুরু করি। এসব প্রোগ্রাম ব্যবহার করে কি আসলেই কাঙ্ক্ষিত ফল পাওয়া যায়, তা বিস্তারিত ব্যাখ্যা করে দেখানো হয়েছে।

পর্ব ১ দেখুন এখনে এবং অবশই পর্ব ২ দেখুন এখানে। আজ শেষ পর্ব

কম্পিউটার দ্রুত গতির, পিসির গতি বাড়াতে সহায়ক, প্রোগ্রাম, স্লো কম্পিউটার পিসির গতি বাড়াতে সহায়ক কিছু প্রোগ্রাম। আসলে তা সত্য? পর্ব ৩

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

সিক্লিনার সেটিং অপশন


রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করার আরো কিছু কৌশল রয়েছে, যা ব্যবহার করে পিসি অপটিমাইজেশন টুল। যেসব তথ্য কখনোই দরকার হবে না। সেগুলো খুঁজে বের করে ডিলিট করলেই হবে। আপনি যদি রেজিস্ট্রি সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণার অধিকারী হন, তাহলেই শুধু এ কাজটি করতে পারেন, অন্যথায় রেজিস্ট্রি নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করা ঠিক হবে না। কেননা, ভুল তথ্য ডিলিট করলে সিস্টেম ক্র্যাশ করতে পারে বা পিসি ব্যবহার অযোগ্য হয়ে যেতে পারে। তাছাড়া হাজার হাজার এন্ট্রির মধ্য থেকে একটি একটি করে আলাদা করে পরিষ্কার করাও কঠিন কাজ। রেজিস্ট্রি পরিষ্কার করলে পিসির গতি বাড়ে তবে খুব বেশি নয়। বিশাল বিস্তৃত তথ্যের ভান্ডার থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য খুঁজে বের করে ডিলিট করা বেশ সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। এক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে সিক্লিনার (Ccleaner) নামের এক টুল।

ব্লক স্টার্ট করা


উইন্ডোজ স্টার্ট হবার সময় সেসব তথ্য খুঁজে দেখে যেসব তথ্য ওই প্রোগ্রাম লোড হবার জন্য জরুরি। শুধু তাই নয়, উইন্ডোজ রেজিস্ট্রিও অনুসন্ধান করে দেখে তার প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য। যখন কোনো প্রোগ্রাম প্রথম ইনস্টল করা হয়, তখন সেসব প্রোগ্রাম এমনভাবে ইনস্টল করা হয় যাতে প্রতিবার উইন্ডোজ স্টার্টের সময় এসব প্রোগ্রাম রান করে। কখনো কখনো ব্যাপারটি যৌক্তিক মনে হয়, আবার কোন কোন ক্ষেত্রে এ ব্যাপারটি খুবই বিরক্তিকর মনে হতে পারে।

উইন্ডোজের কিছু টুল রয়েছে, যা সীমিত করতে পারে কোনো কোনো প্রোগ্রাম কমপিউটার স্টার্টের সাথে সাথে রান করবে। তবে সেগুলোর ব্যবহারবিধি সহজ না হলেও সহজেই ভুল প্রোগ্রামকে থামিয়ে দিতে পারে এবং পিসির সমস্যা সৃষ্টি করে। এক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে Uniblue Speedupmypc টুল। এ টুলটি পিসির স্টার্টআপ সময়কে ব্যাপকভাবে কমিয়ে দেয়।

নেট সংশ্লিষ্ট


অনেক প্রোগ্রাম দাবি করে, ইন্টারনেট অ্যাক্সেসের গতি বাড়াতে সক্ষম। কিছু প্রোগ্রাম সত্যি সত্যিই কিছু কিছু ক্ষেত্রে নেটের গতি বাড়াতে সক্ষম হয়, যেমন অনস্পিড। এটি ফ্রি ডাউনলোড করা যায় www.onspeed.com সাইট থেকে। কম্প্রেস করা বেশি তথ্য কম সময়ে দ্রুত ডাউনলোড করে আপনার কমপিউটারে নিয়ে আসতে পারে। তবে এতে ইমেজের মান তেমন ভালো হয় না, ডাউনলোড করার পর কম্প্রেস করা ফাইলের মান উন্নত হয় না, যেমন জিপ ফাইল বা এমপিথ্রি মিউজিক।

ইন্টারনেটের গতি বাড়াতে পারে এমন দাবি আরো কিছু প্রোগ্রাম করে থাকে। এসব প্রোগ্রাম মূলত রেজিস্ট্রিতে সেটিং পরিবর্তন করে। এ ধরনের টুল ফ্রি ডাউনলোড করা যায় speedguide.net/downloads.php সাইট থেকে।

একের ভেতর সব


এতক্ষণ পিসি অপটিমাইজেশন বিভিন্ন টুল নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আলোচনা করা হয়েছে পিসির গতি বাড়ানোর বিভিন্ন টুলের ক্ষমতা নিয়ে। যদিও এসব টুল পিসির গতি উল্লেখ করার মতো তেমন বাড়াতে পারে না। তাই ভালো হয় কিছু অর্থ খরচ করে পিসির মেমরিকে বাড়ানো বা আপগ্রেড করানো। এতে পিসির পারফরমেন্স উল্লেখ করার মতো বাড়তে পারে। তবে পিসির মেমরি বাড়ালেই হবে না, দেখতে হবে আপনার পিসি কতটুকু পর্যন্ত সম্প্রসারিত মেমরি সাপোর্ট করে।

মেমরি আপগ্রেড করা মানে এই নয় যে, পিসির অপটিমাইজেশন টুলের কোনো প্রয়োজন নেই।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 + seven =