কম্পিউটার স্লো রান করার জন্য দায়ী কে? পর্ব ২ (ইন্টারনেট)

1
382

কম্পিউটার স্লো হবার পেছনে বেশ কিছু কারন রয়েছে। আপনার কমপিউটারে ব্যবহার হওয়া কোনো কোনো সফটওয়্যার এ ধরনের সমস্যার কারণ হতে পারে, যা আমরা অনেকেই জানি না বা বুঝি না৷ কারণ, কোনো কোনো প্রোগ্রাম ব্যাকগ্রাউন্ডে রান হয়, যা বিপুল পরিমাণে রিসোর্স অধিগ্রহণ করে৷ এমনকি এসব প্রোগ্রাম যখন নিষ্ক্রিয় থাকে, তখনও অপ্রয়োজনীয়ভাবে ৠাম অধিগ্রহণ করে থাকে৷প্রথম পর্ব দেখুন এখনে আজকের পর্বে আলোচনা করব ইন্টারনেট নিয়ে।

Slow-computer-speed কম্পিউটার স্লো রান করার জন্য দায়ী কে? পর্ব ২ (ইন্টারনেট)ইন্টারনেট

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

ওয়েব থেকে ডাটা পুঞ্জীভূত করলে পিসির গতি কমে যায় : অতীতে সার্ফিং ছিল খুব সহজ এবং সাদামাটা ধরনের৷ ওয়েব ২.০-এ প্রত্যেক ব্যবহারকারী ইন্টারনেটে তার ডেস্কটপ পেতে পারে৷ ফাইল শেয়ারিং নেটওয়ার্ক ব্যবহারকারীর মাল্টিমিডিয়ার প্রয়োজনীয়তা মেটাতে পারে৷ এ ধরনের সার্ভিসের জন্য অর্থ ব্যয় করতে হয় রিসোর্স অনুযায়ী৷

এ ব্যাপারটিকে বুঝানোর জন্য বলা যেতে পারে গুগল ডেস্কটপ ও তার সাইডবার৷ সাইডবার অফার করে ফ্রি সার্ভিস৷ যেমন নিউজ, আবহাওয়ার পূর্বাভাস, দৈনিক রাশিচক্র৷ এগুলো গেজেটের মাধ্যমে সম্প্রসারণ করা যাবে৷ তবে এরচেয়ে বেশি হলে পিসির গতি কমে যেতে থাকবে৷

গেজেট অবিরতভাবে ইন্টারনেট থেকে ডাটা লোড করে এবং তা কখনো কখনো সিপিইউর ২০%, ৪০% এমনকি ৬০% পাওয়ার ব্যবহার করে৷ কেননা, গুগল সফটওয়্যার অবিরতভাবে রান করতে থাকে৷ সুতরাং এ ব্যাপারে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে৷ যাতে করে এটি ১০০ মে.বা. ৠাম ব্যবহার করে এবং ৭০ মে.বা. সোয়াপ ফাইলের জন্য থাকে৷ ফিল্ম, মিউজিক এবং গেমস, অন্যান্য আকর্ষণীয় বিষয় এবং বৈধ নয় এমন কিছু সবসময় ফাইল শেয়ারিং নেটওয়ার্কে পাওয়া যায়৷ এ ধরনের টুলগুলোর মধ্যে কাজ্বা মিডিয়া ডেস্কটপ-এর বেশ দুর্নাম রয়েছে৷ কেননা, এটি স্পাইওয়্যার ও বিরক্তিকর পপআপ বিজ্ঞাপন দিয়ে পরিপূর্ণ থাকে৷ যদিও কাজ্বার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, কাজ্বায় কোনো স্পাইওয়্যার নেই, তারপরও সেখানে বেশ বিজ্ঞাপন দেখা যায়৷ ব্যানারে ক্লিক করলেই কুকিজ আপনার আচরণ রেজিস্টার করে ফেলবে৷

এ ধরনের ফাইল শেয়ারিং নেটওয়ার্কে সিপিইউর ব্যবহার বেশ উঁচু মাত্রায় লক্ষ করা যায়৷ অনেক সময় এ ধরনের ঘটনার জন্য ইন্টিগ্রেটেড ভাইরাস স্ক্যানিং ফাংশনও দায়ী৷ এগুলো একবার সক্রিয় হতে পারলে তা ধীরে ধীরে ৫০ শতাংশ সিস্টেম প্রসেসিং পাওয়ার ব্যবহার করতে পারে৷ এছাড়াও কাজ্বা সংক্ষিপ্ত বিরতির পর সিস্টেম রিসোর্স ব্যবহার করতে চায়, যার ফলে সিপিইউর লোড ৮০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়৷ এগুলো বাধাপ্রাপ্ত হয় বিশ্রাম ফেজে যেখানে খুব বেশি হলে ১০ শতাংশ ব্যবহার হয় যদি ফাইল বিনিময় করা না হয়৷

অনেকের মতে কাজ্বার বিকল্প হিসেবে টরেন্ট ক্লায়েন্ট অ্যাজুরাস ব্যবহার করা যেতে পারে, যদিও এটি সিস্টেমের জন্য বোঝা৷ অ্যাজুরাস একটি জাভা প্রোগ্রাম, এটি রান করতে জাভা লাইব্রেরি দরকার৷ সিপিইউর ব্যবহার কালেভদ্রে ১০ শতাংশ অতিক্রম করে৷

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty − 10 =