ভাবছেন ফ্রীল্যান্সিং শুরু করবেন? তাহলে দেখে নিতে পারেন শুরুটা কেমন হওয়া উচিৎ। কি কি দরকার শুরুর জন্য।

1
1339

আসসালামু আলাইকুম ভাই। আশা করি পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র রহমতে সবাই ভাল আছেন, আমিও তার রহমতে আলহামদুলিল্লাহ্‌ ভালই আছি। ফ্রীল্যান্সিং শুরু করার আগ্রহ প্রায় সবারই থাকে। কিন্তু সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে সবাই সফল হতে পারেন না। আবার ফ্রীল্যান্সিং শুরু করতে গেলে সামনে আসে এক কঠিন পরীক্ষা। আর এতে ফেল করে অনেকেই হাল ছেড়ে দেন। ভাবছেন এটা আবার কি পরীক্ষা? হ্যাঁ ভাই, এটা কোন ফিজিক্যাল পরীক্ষা না, এটা হল মানসিক পরীক্ষা। অত সোজা নয় ভাই ফ্রীল্যান্সিং।
ফ্রীল্যান্সিং শুরু করতে গেলে চরম ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হয়। প্রায় অনেকেই এই পরীক্ষা দিতে ফেল করে আর শুরুতেই সব শেষ করে দেয়। তাই ভাই আমি নিজে একজন ফ্রীল্যান্সার হিসেবে আপনাকে বলতে চাই, ফ্রীল্যান্সিং শুরু করার আগে আপনি মানসিক প্রস্তুতি নিন। আর এরপর আপনাকে শিখতে হবে কাজ। কাজ যদি আগে না শিখে নেন তাহলে কোনভাবেই এর ফ্রীল্যান্সিং সম্ভব না। কি ভাবছেন- ডাটা এন্ট্রির কাজ করবেন। ভাই সেই কথা এখন আর ভাইবেন না। কিছু কিছু বাঙ্গালিরা ফ্রীল্যান্স মারকেট প্লেস এর ডাটা এন্ট্রি সেকশন পুরো পচিয়ে ফেলেছে। একে তো এই সেকশন এ কাজ পাওয়া কঠিন আবার এই সব কাজের মূল্য প্রায় এখন নেই বললেই চলে।
তাহলে এখন কি করবেন ভাবছেন? আমি আপনাকে বলতে চাই SEO এর কাজ শিখুন। এই কাজ শিখতে পরিশ্রম কম হয় এবং আপনি আপনার ফ্রীল্যান্সিং ক্যারিয়ার এইটার মাধ্যমে খুব সহজেই শুরু করতে পারবেন। তবে ভাই আমি আপনাকে বলি ভুলেও কখনও হাজার হাজার টাকা খরচ করে SEO শিখতে যাবেন না। এতে করে আপনি যে টাকা খরচ করবেন তাই হয়ত তুলতে পারবেন না। SEO শেখার জন্য আপনি টিউনারপেজ এর বিভিন্ন বড় ভাইদের লেখা পোস্ট গুলো পরতে পারেন। SEO এর ব্যাপারে জানতে আপনি আমার ব্লগ থেকেও ঘুরে আসতে পারেন। এটি খুবই সহজ এবং আপনি একটু চেষ্টা করলেই করতে পারবেন। আগে এইভাবে ধীরে ধীরে শুরু করুন আপনার প্রথম কাজটি। তারপর সময় যেতে থাকলে আপনি যখন ৪-৫ টা ফিডব্যাক যোগাড় করতে পারবেন তখন অন্য কাজগুলো (যেমন- ওয়েব ডেভলপিং) শিখে নিন। আস্তে আস্তে পারট-টাইম জব হিসেবে আপনি বেছে নিতে পারেন ফ্রীল্যান্সিং কে। এতে করে আপনি একটা মান সম্মত আয় করতে পারবেন বলে আমার বিশ্বাস।
তো আমার এই টিউনে আমি আপনাদের যে উপদেশটা দিতে চাই আগে আপনি নিজেকে প্রশ্ন করুন –
 আমি কি সত্যিই পারব ফ্রীল্যান্সিং করতে?
 আমার কি ওই রকম সময় আছে হাতে?
 আমি কি প্রস্তুত?
অনেক সময় দেখা যায় কাজ জানলেও ধৈর্য এর অভাবে অনেকে হাল ছেড়ে দেয়। কাজে ধৈর্যও একটা বড় ব্যাপার।
এই সকল প্রশ্নের সঠিক সমাধান যখন আপনার কাছে থাকবে তখনই আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনি ফ্রীল্যান্সিং এর যোগ্য। ফ্রীল্যান্সিং করতে হলে শক্ত করুন আপনার মনোবল।
সময় স্বল্পতার কারনে। আপনাদের কে অল্প কিছু কথা বলেই এই পর্ব শেষ করতে হচ্ছে।
আমার একটা ছোটখাট ব্লগ আছে। সময় থাকলে একটু দেখে আসতে পারেন
ফ্রীল্যান্স বিষয়ক যে কোন সমস্যায় আমার কাছে জানাতে পারেন। যতটুকু পারব সাহায্য করার চেষ্টা করব। এতে করে আপনি এবং আমি উভয়ই উপকৃত হবো।
এখানেই শেষ করলাম আমার পোস্ট। ধন্যবাদ সবাইকে।

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

  1. ভাল টিউন । আরও এমন ভাল ভাল টিউন আশা করি আপনার কাজ থেকে ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

nine + 20 =