পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (শেষ পর্ব ৫)

5
866
এটি 11 পর্বের রহস্যময় প্রযুক্তি সিরিজ টিউনের 7 তম পর্ব

সালাম সবাইকে। আমরা জানি আমাদের বাংলাদেশের গ্রামে গঞ্জে রয়েছে বেশ কিছু কুসংস্কার যা আমরা হয় বিশ্বাস না করতে চেয়েও এগুলোকে মানতে বাধ্য হয়ে থাকি আমাদের পরিবারের গুরুজনের কাছে। শুধু দেশেই নয় পৃথিবীর সব জায়গায় রয়েছে বেশ কিছু কুসংস্কার। কিন্তু সব কিছুর একটি ব্যাখ্যা আছে বৈজ্ঞানিক দৃষ্টি থেকে। তাহলে চলুন আজকে আমার শেষ পর্বে দেখি এমন কিছু কুসংস্কার যা আমরা এতদিন সত্য ভেবেছিলাম কিন্তু আসলে এগুলো শুধুই আমাদের মিথ্যা ভাবনা ছাড়া আর কিছু নয়।

পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (পর্ব ১)

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (পর্ব ২)

পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (পর্ব ৩)

পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (পর্ব ৪)

ফটোগ্রাফ (Photograph) আলোকচিত্রphotographer পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (শেষ পর্ব ৫)


ফটোগ্রাফির কলাকৌশল তুলনামূলকভাবে একটা নতুন পরিবর্তন হতে পারে, তৎসত্ত্বেও কিন্তু এটা কিছুটা কুসংস্কার বিশ্বাসকে অনুপ্রাণিত করেছে যেগুলো বর্তমানে যথেষ্ঠ সুরক্ষিত। সম্ভবত সবচেয়ে বেশি পরিচিত হচ্ছে ওইসব অনুন্নত পৃথিবীতে যারা প্রযুক্তি বিদ্যায় এখনো ততোটা পারদর্শি নয়, তাদের মধ্যে অনেকেই ফটোগ্রাফ দিতে অনীহা প্রকাশ করে। তাদের বিশ্বাস এটা অত্যন্ত বেশি দুর্ভাগ্যের কারণ (একটা কুসংস্কার যা আগের দিনে হাতে আঁকা ছবির ওপরও প্রযোজ্য হতো)। এর পেছনে যক্তি হচ্ছে যে একটা লোকের ছবির পেছনে তাদের জীবনীশক্তির কিছুটা লুকিয়ে থাকে। সুতরাং যে কেউ তার একটা আকৃতি তৈরি করে সে তার আত্মার ওপরেও কিছুটা প্রভাব বিস্তার করে।

Peacock পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (শেষ পর্ব ৫)

পিকক (Peacock) ময়ূর


যদিও হিন্দুরা এটাকে একটা পবিত্র পাখি হিসেবে সমমান করে ময়ূরকে পশ্চিমা প্রথায় একটা অশুভ পাখি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ভারতে এটা বিশ্বাস করা হয় যে ময়ূর সাপ খায়। এই ধারণাটা অন্য সংস্কৃতিতেও মানা হয়। টিউডরের সময়কাল থেকে একটা ইংলিশ কুসংস্কারে (যখন ময়ূরকে একটা রাজকীয় পাখি হিসেবে বিবেচনা করা হতো) দাবি করা হতো যে এর চিৎকারে বিষাক্ত প্রাণীরা ভয়ে আতঙ্কিত হয়।

ময়ূরের পুচ্ছের ঔজ্জ্বল্যের দ্বারা বোঝা যায় যে এটা স্বর্গের প্রতীক হিসেবে কারুকার্য খচিত ছিল, কিন্তু তার লেজের ওপরের চোখগুলোই আরো বেশি অশুভ লক্ষণের সাথে জড়িত করেছে। একটা উপকথায় দাবি করা হয় যে, চোখগুলো সাতটি মারাত্মক পাপের সাথে জড়িত থাকার কারণে শাস্তিস্বরূপ আল্লাহ চোখ তুলে ফেলবেন। সাতটি মারাত্মক পাপ যা ময়ূরের আশপাশে ওঁত পেতে থাকে বলে মনে করা হয় এবং তারা তাদের চক্ষুগুলোকে ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করে। পরিশেষে পাখিটা নিজেই হচ্ছে একটা দুর্ভাগ্যের অগ্রদূত।

Series Navigation << পৃথিবীর নানান জায়গার অদ্ভুত অদ্ভুত কিছু কুসংস্কার (পর্ব ৪)পৃথিবীর নানান জায়গার রসহ্যময় কিছু কুসংস্কার ও তার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা (পর্ব ৬) >>
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

5 মন্তব্য

  1. ধন্যবাদ কোয়ান্টাম মেধড । নতুন কিছু জানলাম আপনার পোস্ট থেকে ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

fifteen + 13 =