CALL OF DUTY MW এর রিভিউ…আমার ১ম পোস্ট ^_^

0
463

Hello to all  tuner in Tunerpage…
আমি এই পেজ এ ব্লগার হিসেবে নতুন…তাও আমি পোস্ট করার চেষ্টা করব…আশা করি সিনিওর টিউনার রা আমার ভুল ধরিয়ে দেবেন…

যাই হোক,নাম দেখেই বুঝতে পারছেন আমি একজন গেমার মানুষ…গেম নিয়েই আমার চিন্তাভাবনা(নাহ! পড়ালেখাও করি…)।তাই প্রথম পোস্ট টা দেবো আমার সবচেয়ে প্রিয় গেম দিএ.

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

CALL OF DUTY4 :MODERN WARFARE

এটা আমার খেলা এই সিরিজ এর প্রথম গেম যেইটা খেলেই আমি কল অফ ডিউটি এর প্রেমিক হয়ে যাই…

ডেভেলপ করেছিল INFINITY WARD
পাবলিশ করেছিল ACTIVISION

কাহিনিঃ২০১১ সাল।রাশিয়া তে নতুন একধরনের সন্ত্রাসি কার্যক্রম গড়ে উঠে। আলট্রানেশনালিস্ট নামের এই গ্রুপ এর মুল লক্ষ ছিল রাশিয়া কে তাদের অধীনে করে নেয়া। এর হেড ছিল ইমরান যাখায়েভ।সহযোগী ছিল তারই পুত্র ভিক্টর যাখাইয়েভ এবং এক আরব খালেদ আল আসাদ।
এই ধরনের সন্ত্রসি মিশন এ অনেক অর্থের প্রয়োজন হয়।এজন্ন তারা আরব এর প্রেসিডেন্ট আল ফালুনিকে হত্যা করে।
যেই টেলিভিশন চানেল ওইটা সম্প্রচার করে অইখানে হামলা চালায় USMC,কিন্তু কিছুই পাওওা যায় না সেখানে!

ঠিক সেইসময় British Special Air Service (SAS) এ যোগ দেন নতুন এক যোদ্ধা।
নামঃJohn Soap Mactavish
ডাক নাম Soap…
ক্যাপ্টেন প্রাইস এর নেতৃত্তে SAS বেরিং সাগরে একটি জাহাজে হামলা চালায়।সেই জাহাজ হতে প্রাপ্ত সূত্রানুযায়ী তারা বুঝতে পারে খালেদ আল আসাদ এর কাছে একটা নিউক্লিয়ার ওয়েপন আছে।একথা USMC কে জানায় SAS।USMC সেজন্য খালেদ আল আসাদ এর প্রাসাদ এ হামলা চালায় নিউক্লিয়ার ওয়েপন খুজতে ও আল আসাদ কে মারতে।হামলা শেষে কিছু না পেয়ে ফিরে আসতে আসতেই আল আসাদ তার সেফ হাউস থেকে নিউক্লিয়ার ওয়েপন টা কারজকরি করে দ্যায় ।ফলে কয়েক ঘনটা তেই আমেরিকা ৩০০০০ সৈন্য হারায়।

ইন্টেল হতে SAS খবর পায় যে আল আসাদ আজারবাইজান এ তার সেফ হাউস এ অবস্থান করছে।তা জানতে পেরে আজারবাইজানের গ্রামে হামলা চালিয়ে যায় SAS।শেষপর্যন্ত আল আসাদ ধরা পরে একটি বার্ন এর মধ্যে। তাকে জেরা করা অবস্থায় আল আসাদ এর ফোন থেকে তারা জানতে পারে আল আসাদ কাজ করছে ইমরান যাখায়েভ এর জন্ন।ইনফরমেসন পাওওা মাত্রই আল আসাদ কে মেরে ফেলেন ক্যাপ্টেন প্রাইস।
এরপর তিনি বলেন যে,

“১৯৯৬ সাল।ইউক্রেন,প্রিপইয়াট।আমি তখন ছিলাম একজন লেফটেন্যান্ট।আমার বস ক্যাপ্টেন মাকমিলান এর সঙ্গে আমাকে পাঠানো হয় যাখায়েভ কে আসাসিনেট করতে।এতা মূলত ছিল একটা স্নাইপার মিশন।ইনটেল অনুযায়ী যাখায়েভ এর অইদিন আসার কথা ছিল প্রিপইয়াট এ।
চুপচাপ আমরা একটা হোটেল এর ধ্বংসাবশেষে আস্ত্রয় নেই।জেখান থেকে ওই পারচেস টা দেখা জাবে।কিছুখন পর যাখায়েভ সেখানে উপস্থিত হয়।
৮০০ মিটার দূর থেকে আমি একটা শট নেই,কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে শট টা লাগে তার হাতে…তখন মনে করেছিলাম সে মারা গেছে…কিন্তু না,সে আজ বেচে আছে…”

SAS ও USMC মিলে সিদ্ধান্ত নেয়,যাখায়েভ কে ধরতে।ইন্তেল অনুযায়ী সে এখন আন্ডারগ্রাউনড এ আছে,তাই তাকে ধরার একমাত্র পথ হল তার পুত্র ভিক্টর যাখায়েভ।অনেক প্রতিকুল পরিবেশ পেরিয়ে ভিক্টর কে ধরতে সক্ষম হন তারা,কিন্তু ধরা পাওওা মাত্রই ভিক্টর সুইসাইড করে।পুত্রের সুইসাইড খবর শুনে ইমরান যাখায়েয রেগে গিয়ে আমেরিকা কে লক্ষ করে নিউক্লিয়ার বালিস্তিক মিসাইল লঞ্চ করে দেয়।SAS ও USMC কন্ট্রোল রুম থেকে লঞ্চ ফেইল করতে সক্ষম হয়…
লঞ্চ প্যাড থেকে পালিয়ে আসআর সময় ব্রিজ ধংশ করে দেয় একটা প্লেন।সেই ব্রিজ ফল এ আহত হন সবাই, প্রোটেকশন দিতে গিয়ে মারা জান
Srg. Griggs ,এবং গ্যায কে হত্যা করে যাখায়েভ…
এসময় SAS আক্রমন করে তাদের বিমান টি ধ্বংস করে দেয়,যাখায়েভ ও তার গার্ড দের হতভম্ব মুহূর্ত না কাটতেই প্রাইস এর কাছ হতে পিস্তল নিয়ে যাখায়েভ কে হত্যা করে Soap Mactavish।

রাশিয়াকে আলট্রান্যাশনালইস্ট দের হতে মুক্ত করে তারা…অন্তত তারা তাই ভেবেছিল।
নেক্সট টিউন এ MW2 এর রিভিউ দেয়ার চেষ্টা করব।
Thanks For Reading My Tune :)

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

মন্তব্য দিন আপনার