ধ্যান বা মেডিটেশন কী? কেন মেডিটেশন করা প্রয়োজন? পর্ব ১

1
2409

Quantum-Method ধ্যান বা মেডিটেশন কী? কেন মেডিটেশন করা প্রয়োজন? পর্ব ১ধ্যান শব্দটি বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিভিন্ন আধ্যাত্মিক বা মনঃসংযোগ জাতীয় ক্রিয়াকে বোঝাতে ব্যবহার হয়। যেমন অন্তর্দৃষ্টি লাভের চেষ্টা, কোন বিশেষ বস্তু বা ব্যক্তিকে স্মরণ, মনকে চিন্তাশূন্য করার চেষ্টা, ধর্মীয় অনুশাসনের সম্বন্ধে গভীর চিন্তা, মনকে “মুক্ত” করে কোন কল্পিত বা ঐশী শক্তির হাতে ছেড়ে দেওয়া, হঠযোগের কয়েকটি আসন, হিন্দু পুরাণে “তপস্যা” ইত্যাদি।

ধ্যান বা মেডিটেশন কী? কেন মেডিটেশন করা প্রয়োজন?


মেডিটেশন হচ্ছে মনের ব্যায়াম। নীরবে বসে সুনির্দিষ্ট অনুশীলন বাড়ায় মনোযোগ, সচেতনতা ও সৃজনশীলতা। মনের জট যায় খুলে। সৃষ্টি হয় আত্মবিশ্বাস ও ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। হতাশা ও নেতিবাচকতা দূর হয়। প্রশান্তি ও সুখানুভূতি বাড়ানোর পাশাপাশি ঘটে অন্তর্জাগৃতি। ধ্যান বা মেডিটেশন অনেক রকম হয়। প্রায় সব ধর্মেই কোন না কোন ভাবে ধ্যান করার কথা বলা আছে। মেডিটেশন হলো আত্মমুক্তির পথ। প্রতিনিয়ত আমরা যেসব অজস্র দুশ্চিন্তায় ভুগি, সেসব থেকে মুক্তির অন্যতম পথ হলো মেডিটেশন। মেডিটেশন হলো ধ্যানাবস্থা, জীবন বদলের পথ। মেডিটেশন করার জন্য আপনাকে হতে হবে ধ্যানস্থ। আত্মস্থ করতে হবে কিছু কলাকৌশল। আর এ ধ্যানস্থ হওয়ার জন্য জানতে হবে কিছু মৌলিক উপায়।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

মেডিটেশনের মাধ্যমে যে কেউ চাইলে তাঁর মনকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন, যার মাধ্যমে আপনি অধিকার করতে পারবেন সুস্বাস্থ্য, জীবন বদলের রাস্তা, তথা যেকোনো কাজে সফলতা। আমরা প্রতিনিয়ত যা চিন্তা করি, যা মনের গভীরে অবলোকন করি, তাই আমাদের কাজে প্রকাশ পায়। আর আমরা বেশির ভাগ সময়ই যে ব্যর্থ হই তার পেছনে কাজ করে আমাদের হতাশ মনোভব। মেডিটেশনের মাধ্যমে এই হতাশ মনোভব পরিবর্তন হয় ইতিবাচক মনোভাবে। আর তাই ধ্যানচর্চা করলে আমরা আমাদের মনের গভীরে অবলোকন করে ইতিবাচক মানসিকতা তৈরি করতে পারি। যার ফলে আমরা আমাদের কাজে সফলতা লাভ করতে পারি।

মেডিটেশন হলো সচেতনভাবে দেহ মন এবং মস্তিষ্ককে শিথিল করার আধুনিক বৈজ্ঞানিক এবং সহজ প্রক্রিয়া। মেডিটেশনের মাধ্যমে আমরা আমাদের শরীরকে শিথিল এবং মন ও মস্তিককে প্রশান্ত করতে পারি। ফলে টেনশন অস্থিরতা মুক্ত হয়ে আমরা সচেতনভাবে দেহ-মনে সুখানুভূতি তৈরি এবং সবসময় তা উপভোগ করতে পারি। দৈনন্দিন জীবনে প্রতিটি কাজ করতে পারি আনন্দ নিয়ে, পেতে পারি সহজ সাফল্য। অর্থাৎ শারীরিক মানসিক বৈষয়িক প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রশান্তিতে থাকার জন্যে, মেডিটেশন হচ্ছে দেহমনে সে অবস্থা সৃষ্টির একটি সহজ বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়া। যেমন, টেনশন। মেডিটেশনের প্রথম লাভই হলো টেনশনমুক্তি। বলা হয় টেনশন ও শিথিলায়ন একসাথে থাকতে পারে না। যে শরীরে টেনশন থাকে, সে শরীরে শিথিলায়ন থাকে না। আর শিথিল হলে টেনশন পালিয়ে যায়। আর আমরা এখন জানি, মনোদৈহিক ৭৫ ভাগ রোগের কারণই টেনশন। তাই মেডিটেশন করলে আপনি অনায়াসেই শতকরা ৭৫ ভাগ মনোদৈহিক রোগ যেমন মাইগ্রেন, সাইনুসাইটিস, ঘাড়ে-পিঠে-কোমরে বা শরীরের যেকোনো স্থানে দীর্ঘদিনের ব্যথা, হজমের সমস্যা, আইবিএস, এসিডিটি, হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, অনিদ্রা প্রভৃতি রোগগুলো থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। বা হলে নিরাময় হতে পারবেন। আর অন্যান্য রোগ নিরাময়েও ওষুধ ও সার্জারির পাশাপাশি সুস্থ জীবন-দৃষ্টি এবং মেডিটেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

slide_new_year_bn ধ্যান বা মেডিটেশন কী? কেন মেডিটেশন করা প্রয়োজন? পর্ব ১

একজন শিক্ষার্থী হিসেবে আপনি মেডিটেশন করার মাধ্যমে শিখবেন অখণ্ড মনোযোগ ও অল্পসময়ে পড়া আয়ত্ত করার টেকনিক। একজন গৃহিণী হিসেবে আপনি মেডিটেশন করে পাবেন সুখী পারিবারিক জীবন যাপনের আনন্দ। একজন পেশাজীবী হয়ে সবসময় মাথা ঠান্ডা রেখে আপনি নিতে পারবেন সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত। আর একজন সফল মানুষ হওয়ার জন্যে মেডিটেশনে মনছবি চর্চা করে আপনি আপনার জীবনের যেকোনো চাওয়াকে পরিণত করতে পারেন স্বতঃস্ফূর্ত পাওয়ায়। আর ইবাদত উপাসনায় একাগ্রতা বৃদ্ধির মাধ্যমে আত্মিক আধ্যাত্মিকভাবে আপনি অগ্রসর হতে পারেন ধ্যানের পথ ধরে। এভাবে একটি প্রশান্ত মন, সুস্থ জীবন ও কর্মব্যস্ত সুখী জীবন যাপনের জন্যেই আপনার প্রয়োজন মেডিটেশন করা।

কিছু সুশৃঙ্খল কার্যপদ্ধতির মাধ্যমে মেডিটেশন পরিচালিত হয়ে থাকে। যার অনেক ধাপ আছে। কে না জানে, সুশৃঙ্খল জীবনই সুন্দর পরিশীলিত জীবন। আর তাই মেডিটেশনের চর্চার মাধ্যমে আমরা লাভ করতে পারি সুন্দর জীবন।

কোয়ান্টাম মেথড মেডিটেশন


প্রাচ্যের সাধনা আর আধুনিক বিজ্ঞানের নির্যাসে সঞ্জীবিত কোয়ান্টাম মেথড মেডিটেশন প্রক্রিয়া। সাধকদের সাধনা ও মনোবিজ্ঞানের প্রক্রিয়ার সমন্বয়ের ফলে সহজে মেডিটেটিভ লেভেলে পৌঁছে আত্মনিমগ্ন হওয়া যায়। গভীর আত্মনিমগ্নতা আত্মশক্তির জাগরণ ঘটায় ভেতর থেকেই। আর অন্তরের জাগরণ বদলে দেয় জীবনের বাকি সবকিছু।

কেন্দ্রীয় দফতর ৩১/ভি, শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন সড়ক,শান্তিনগর,ঢাকা-১২১৭ (২য় তলা), ইস্টার্ন প্লাস মার্কেটের পাশে । ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৪১৪৪১, +৮৮ ০২ ৮৩১৯৩৭৭ মোবাইল : +৮৮ ০১৭১৪৯৭৪৩৩৩ Web Site: www.quantummethod.org.bd E-Mail: [email protected]

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

মন্তব্য দিন আপনার