আয়ু বাঁচান ব্যাটারির

16
571
আয়ু বাঁচান ব্যাটারির

অনির্বাচিত টিউনার™

®╔═════════════════════ஜ۩۞۩ஜ══════════════════════╗®
✪░░▒▓███►✂✂((((☠☠➸Uη§є₤є©†єd✖Ŧwєє†єЯ™➸☠☠))))✂✂◄███▓▒░░✪ ®╚═════════════════════ஜ۩۞۩ஜ══════════════════════╝®

The Ultimate Path of The Bangla Technology
অ আ ক খ প্রযুক্তি এখন আমার ভাষায়
আয়ু বাঁচান ব্যাটারির
আয়ু বাঁচান ব্যাটারির
মোবাইল ফোনের ব্যাটারি খুবই গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। মোবাইল চালু রাখার জন্য সবচেয়ে জরুরি তার ব্যাটারি। প্রায় প্রতিটি মোবাইল ফোনেই রিচার্জেবল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়। ফোনের ব্যাটারির ধরন অনুযায়ী একদিন বা দু’দিন পরপর তাতে চার্জ দিতে হয়। তবে সাধারণভাবে ব্যাটারিতে যতবার চার্জ দেয়া হয়, তার আয়ু তত কমতে থাকে। সব সময় দেখা উচিত যাতে মোবাইলের ব্যাটারি কম খরচ হয়। এতে ব্যাটারির সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল ফোন ভালো থাকে। ব্যাটারি যাতে কম খরচ হয় সেজন্য কতগুলো জিনিস মনে রাখা দরকার :
— সবচেয়ে বেশি ব্যাটারি খরচ হয় ব্লুটুথ ব্যবহারের জন্য। তাই যখন ব্লুটুথ ব্যবহার করা হয় না তখন তা অফ করে রাখতে হবে।
— মোবাইল যখন রিংগিং মোডে তখন ভাইব্রেশন অফ করে রাখতে পারেন। তবে ক্লাসে, মিটিংয়ে বা হাসপাতালে ফোন বন্ধ করা সম্ভব না হলে ভাইব্রেশন দিয়ে রাখতে পারেন।
— মোবাইল ফোনের ব্রাইটনেস কমানো থাকলে ব্যাটারি কম খরচ হয়। তবে কখনোই ব্রাইটনেস এতটা কমানো উচিত নয় যাতে চোখের ওপর চাপ পড়ে।
— ডিসপ্লে সেটিংসে পাওয়ার সেভার টাইম-আউট আর লাইট-আউট অপশনে গিয়ে সময় কমিয়ে রাখলে মোবাইল ফোনে কথা না বললে বা অন্য কোনো কাজ না করলে তাড়াতাড়ি ফোনটি পাওয়ার সেভ মোডে চলে যায়। এতে ফোনের ব্যাটারি বাঁচে।
— ব্লুটুথের মতোই মোবাইল ফোনে গেম খেললে প্রচুর ব্যাটারি খরচ হয়। এর থেকে কম্পিউটারে গেম লোড করে খেলাই ভালো।
— সবসময় কি-প্যাড লক টাইমিং দিয়ে রাখুন, যাতে কখনও হাতের চাপে বা ব্যাগে থাকলে কোনো কিছুতে চাপ লেগে কল চলে না যায়।
— ব্যাটারি চার্জ দেয়ার সময় যেমন অতিরিক্ত চার্জ ব্যাটারির জন্য খারাপ, তেমনি কম সময় ধরে বারবার চার্জ দেয়াও একদম উচিত নয়।
— ব্যাটারিতে চার্জ নেই বলে ফোন বন্ধ হয়ে যাওয়াও ঠিক নয়। তাই ব্যাটারি লো মেসেজটি দেখালেই বা ব্যাটারি লো হয়ে যাওয়ার অন্য কোনো ইনডিকেশন দিলেই সঙ্গে সঙ্গে চার্জ দেয়া উচিত।
— বেশ কিছুদিনের জন্য যদি মোবাইল ব্যবহার করা না হয়, তাহলে মোবাইল ফোন থেকে ব্যাটারি খুলে রাখা উচিত। ব্যাটারি সবসময় পরিষ্কার ও শুকনো জায়গায় রাখা উচিত। কখনোই ধাতব কোনো কিছুর সঙ্গে রাখা উচিত নয়। ব্যাটারি ব্যবহার না করে খুলে রাখলে তার চার্জ পুরোপুরি চলে যায়। তাই পরের বার ব্যবহার করার আগে অবশ্যই চার্জ দিয়ে নিতে হবে।
— মাঝে-মাঝেই ব্যাটারি খুলে সুতির কাপড় বা তুলো দিয়ে পরিষ্কার করা উচিত। এতে ব্যাটারির সঙ্গে মোবাইল ফোনের কানেকশন হতে সুবিধা হয়।
— খুব গরম কোনো জায়গায় ব্যাটারি রাখা উচিত নয়। যেমন, গাড়ির ড্যাশ বোর্ডের ওপর মোবাইল ফোন রাখা খুব ক্ষতিকর।
— নতুন বা পুরনো ব্যাটারি চার্জে বসানোর দু-তিন মিনিট পরই যদি পুরো চার্জ দেখায়, তবে ব্যাটারি ফোন থেকে খুলে নিয়ে আবার ঢুকিয়ে চার্জে বসাতে হবে।
লিখেছেনঃ রোকনুজ্জামান রাকিব
সূত্রঃ http://www.amardeshonline.com/pages/details/2011/07/26/95079
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

16 মন্তব্য

  1. আলহামদুলিল্লাহ। আমি এইগুলার মোটামোটি সব গুলাই মেনে চলি। ধন্যবাদ।

  2. ভাল টিউন । তবে আমার ক্ষেত্রে কাজ হবে না । নেটে ঢুকলে চার ঘন্টা যায় । যেন ল্যাপটপ । আসলে ল্যাপটপের মতই কাজ করে/করাই আমার ফোনকে ।

      • চিন্তিত ভাই believe it or not…আমারটার আরো খারাপ অবস্থা,,নেট ইউজ করলে ২০ মিনিটও থাকেনা, একদম অফ হয়ে যাবে। কিন্তু নেট থেকে বের হলে, আবার ব্যাটারি ফুল হয়ে যায়।…আজব প্রবলেম।

        • বেটারি পালটে ফেলুন। ব্যটারির এম্পিয়ার নষ্ট হয়ে গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 2 =