ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন )

2
385

কেমন আছেন সবাই, আশা করছি আল্লাহর অশেষ মেহেরবানিতে সবাই অনেক ভালো আছেন এবং অনেক ভালোভাবে ঈদ কাটিয়েছেন । আজকের টিউনটি শুরু করছি ফরেক্স মার্কেটের খুব উল্লেখযোগ্য একটি অংশ চার্ট প্যাটার্ন নিয়ে। যা অনেক ট্রেডারদের ট্রেডিং এর একটি মৌলিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যাবহার হয়।

 

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

গত পূর্বের টিউনগুলো:

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -১]

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং -[ পর্ব -২ ]-(মূল অংশগ্রহনকারি, মার্কেট ভলিউম, ব্রোকার)

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব – ৩] (কারেন্সি পেয়ার, মেজর/ক্রস, ডিরেক্ট/ইন্ডিরেক্ট, পিপস,লট,স্প্রেড)

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব – ৪] (মার্জিন, রোলওভার, অর্ডার টাইপ, প্রফিট/লস,ডেমো ট্রেড)

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৫] (ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস:ইকোনমিক ডাটা,গোল্ড এবং অয়েল ফান্ডামেন্টাল ফেক্টর)

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৬] (ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস: ইকোনমিক ক্যালেন্ডার )

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৭] (টেকনিক্যাল এনালাইসিস, চার্ট/ট্রেন্ড, সাপোর্ট এন্ড রেসিসটেন্স)

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব – ৮] (ট্রেন্ড লাইন )

চার্ট প্যাটার্ন


কিঃ চার্ট প্যাটার্ন হল ভিবিন্ন ধরণের চার্ট দেখে তার ভিবিন্ন অবস্থার প্রেক্ষিতে ট্রেড করা। আরো সহজ করে বললে বলা যেতে পারে, আপনি বার, লাইন বা ক্যান্ডেলস্টিক যে চার্টই ব্যাবহার করেন না কেনো মার্কেটের ট্রেন্ড বা প্রাইস মুভমেন্ট এর উপর ভিত্তি করে মার্কেট চার্ট অনেক ধরণের আকৃতিতে (Shape) ধারন করে এবং প্রতিটি সেইপ এর একটি সম্ভব্য অর্থ থাকে। ফরেক্স মার্কেটে চার্ট এনলিস্টরা এই রকম কিছু স্ট্রেটিজি আবিস্কার করেছেন যাতে করে একজন ট্রেডার চার্টের আকৃতি বা ভিবিন্ন চার্ট ট্রান্সফরমেশন সেইপ দেখে পরবর্তী মার্কেট মুভমেন্ট বা মার্কেট ট্রেন্ড বুঝে ট্রেড করতে পারে। এই পদ্ধতিকেই চার্ট প্যাটার্ন বলা হচ্ছে।

 

বেসিক চার্ট প্যাটার্ন ২ ধরণের

১। কন্টিনিউশন চার্ট প্যাটার্নঃ

২। রিভার্সেল চার্ট প্যাটার্ন:


কন্টিনিউশন চার্ট প্যাটার্নঃ  যে সকল প্যাটার্নে  প্রাইস এর ধারাবাহিক মুভমেন্ট থাকে অর্থাৎ বিপরীত না হয়ে একটি ধারাবাহিক পন্থা অবলম্বন করে সেই সব চার্ট প্যাটার্নকে কন্টিনিউশন চার্ট প্যাটার্ন বলা হয়। ভিবিন্ন রকমের কন্টিনিউশন চার্ট প্যাটার্ন আছে, কিছু কমন কন্টিনিউশন চার্ট প্যাটার্ন হলঃ

১) অ্যাসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল (Ascending Triangle ):


এই প্রকার প্যাটার্ন সাদৃশ্য হয় যখন একটি রেসিসটেনস লেভেলে ত্রিকোণিক বিপরীত দুই বা ততোধিক Higher Lows এর মাধ্যমে একীভূত হয়, এটি টেকনিক্যাল এনালাইসিসের একটি বুলিশ চার্ট প্যাটার্ন। অ্যাসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল প্যাটার্ন নির্ধারণে ট্রেন্ডলাইনে আঁকতে হয় মিনিমাম দুটি সমান হায়ার প্রাইস লেভেল এর আনভুমিক (হরাইযেন্টাল) লাইনে এবং  বিপরীত দুয় বা ততোধিক লাওয়ার প্রাইস লেভেল এর মাধ্যমে যা দেখতে একটি ত্রিকোনিক সেইপ এর মত হবে। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য করুন…

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

কিভাবে ট্রেড করবেনঃ

অ্যাসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল প্যাটার্নে ট্রেড করতে আপার হরাইজেন্টাল ট্রেন্ড লাইনের ১০ পিপস উপরে বায় অর্ডার করতে পারেন।

 

২) ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল (Descending Triangle ):


অ্যাসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল এর বিপরীত অর্থাৎ একটি সাপোর্ট লেভেলে ত্রিকোণিক বিপরীত দুই বা ততোধিক Lower Highs এর মাধ্যমে একীভূত হয়। এটি একটি বেয়ারিশ চার্ট প্যাটার্ন। এই প্যাটার্ন লাইন আঁকতে হয় মিনিমাম দুটি সমান লাওয়ার প্রাইস লেভেল এর আনভুমিক (হরাইজেন্টাল) লাইনে এবং  বিপরীত দুই বা ততোধিক হায়ার প্রাইস লেভেল এর মাধ্যমে যা দেখতে একটি ত্রিকোনিক সেইপ এর মত হবে। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য করুন…

 

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

কিভাবে ট্রেড করবেনঃ

ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল প্যাটার্নে ট্রেড করতে লাওয়ার হরাইজেন্টাল ট্রেন্ড লাইনের ১০ পিপস নিচে সেল অর্ডার করতে পারেন।

 

৩) সাইমেট্ট্রিকেল ট্রাইএঙ্গেল (Symmetrical Triangle)


এই প্যাটার্নটি দেখা যায় দুটি সমকেন্দ্রিক পয়েন্টে অর্থাৎ যেখানে সাপোর্ট লাইন Ascending( ঊর্ধ্বমুখী) এবং রেসিসটেনস লাইন Descending(নিম্নমুখী) বা হরাইজেন্টাল না হয়ে একটি ত্রিকোনিক আকৃতি ধারন করে। এই প্যাটার্নটি খুবই সহজে নির্ধারণ করা যায়। এটি বুলিশ কিংবা বেয়ারিশ যেকোন প্যাটার্ন হতে পারে। অর্থাৎ এই ধরণের প্যাটার্নে বুলিশ কিংবা বেয়ারিশ যেকোন ব্রেক আউট হতে পারে। এটি খুব কমন এবং রিলাইয়াবল একটি প্যাটার্ন।

 

বুলিশ সাইমেট্ট্রিকেল ট্রাইএঙ্গেল

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

 

বেয়ারিশ সাইমেট্ট্রিকেল ট্রাইএঙ্গেল

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

কিভাবে ট্রেড করবেনঃ

এই ধরণের প্যাটার্নে স্পট ট্রেড ঝুঁকিপূর্ণ । যেহেতু মার্কেট একটি ইন্ডিসিশন অবস্থায় আছে তাই আপনি কোন স্পট ট্রেডের অর্ডার দিতে পারবেন না। এই অবস্থায় পেন্ডিং ট্রেড এর মাধ্যমে আপনি ব্রেক আউট সুযোগটি নিতে পারেন। অর্থাৎ, আপার লাইন এর কয়েক পিপস উপরে বায় স্টপ অর্ডার দিতে পারেন এবং লওয়ার লাইন এর কয়েক পিপস নিচে সেল স্টপ অর্ডার দিতে পারেন।

৪) বুলিশ পেনান্ট প্যাটার্ন (Bullish Pennant )


এই প্রকার প্যাটার্ন আপট্রেন্ড মার্কেটে দেখা যায়। ভারটিকেলি আপ রাইজ মার্কেটে এটি প্রাইস আরো বাড়ার ইঙ্গিত প্রদান করে। এটি এর নামের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ অর্থাৎ দেখতে একটি ফ্ল্যাগ(পতাকার) মতো সেইপ হবে। এটি বুলিশ মার্কেটের খুব শক্তিশালী একটি প্যাটার্ন যা একটি লম্বা সিঁড়ির (Step) পর আরেকটি লম্বা সিঁড়ির সূচনা প্রকাশ করে। ভারটিকেলি আপ রাইজ মার্কেটে এই প্যাটার্নটি সাইমেট্রিকেল প্যাটার্ন এর মত আঁকতে পারেন। যা অনেক শক্তিশালী একটি প্যাটার্ন।

নিচের ছবিটি ভালোভাবে লক্ষ্য করুন…।

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

পতাকার মত একটি লম্বা স্টেন্ডে(বায় কেন্ডেল) এর পরে মার্কেট আরো বায়ে যাওয়ার একটি স্ট্রং ট্রেন্ড।

৫) বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন (Bearish Pennant )


এটি একটি  বেয়ারিশ কন্টিনিউশন প্যাটার্ন যা বর্তমান ডাউনট্রেন্ড মার্কেটকে আরো ডাউনে যাওয়ার ইঙ্গিত করে বা প্রাইস আরো কমবে। নামের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ অর্থাৎ একটি ফ্ল্যাগ(পতাকার) মতো সেইপ হয় এই প্যাটার্নটির। এটি ভারটিকেল ডাউনট্রেন্ড মার্কেটে একটি হরাইজেন্টাল পেনান্ট অর্থাৎ মার্কেটের একটি বড় ডাউনট্রেন্ড মুভমেন্টের পর আরো একটি বড় ডাউনট্রেন্ড মুভমেন্টের ইঙ্গিত প্রদানকারী এই প্যাটার্নকে বেয়ারিশ পানান্ট প্যাটার্ন বলা হয়। ভারটিকেল ডাউনট্রেন্ড মার্কেটে এই প্যাটার্নটি সাইমেট্রিকেল প্যাটার্ন এর মত আঁকতে পারেন।

নিচের ছবিটি ভালোভাবে লক্ষ্য করুন…।

ফরেক্স বিগেনার টু প্রফেশনাল ট্রেডিং – [পর্ব -৯] -(অ্যাসেন্ডিং/ডিসেন্ডিং ট্রাইএঙ্গেল, বুলিশ/বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্ন  )

আরেকটি কথা বুলিশ বা বেয়ারিশ পেনান্ট প্যাটার্নগুলো এভাবে দীর্ঘ একটা ট্রেন্ড এর পরে পেনান্ট সেইপ এর উপস্থিতিতে আরো দীর্ঘ একটা ট্রেন্ডে যাওয়ার মূল বিষয় হল, মার্কেট যখন কোন একটি ট্রেন্ডে কিছুদুর গিয়ে স্টপ হয়, প্রকৃতপক্ষে এটা আসলে স্টপ নয় এটা হল বিরতি(Pause) যার কিছুক্ষণ পরেই আবার রিসিউম করে। তাই এই প্যাটার্নগুলোতে কন্টিনিউশন অর্ডার করা হয়।

কিভাবে ট্রেড করবেনঃ  বুলিশ বা বেয়ারিশ যে প্যাটার্নে মার্কেটে ঢুকতে চান একটি এনালাইসিসের প্রয়োজন আছে। বুলিশ পেনান্টটে যদি মার্কেটে ঢুকতে হলে পেনান্ট ড্র লাইনের কয়েক পিপস উপরে বায় অর্ডার করবেন এবং বেয়ারিশ পেনান্টটে মার্কেটে ঢুকতে হলে পেনান্ট ড্র লাইনের কয়েক পিপস নিচে সেল অর্ডার করবেন। একটি কথা না বললেই নয় যে, ট্রেন্ড প্যাটার্ন গুলো অনেক ইফেক্টিভ কাজ দেয় তবে শর্ত হল প্যাটার্ন গুলোর বিহেবিয়ার বুঝে আগে ভালোভাবে প্র্যাকটিস করে একটি পার্সোনাল অভিজ্ঞতা নিয়ে নিবেন তারপর লাইভ মার্কেটে ব্যাবহার করবেন।


প্রথম প্রকাশঃ বিডিফরেক্সপ্রো.কম ( ফরেক্স ক্যাম্পাস বাংলাদেশের প্রথম ফরেক্স শিক্ষার সম্পূর্ণ কোর্স )

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

2 মন্তব্য

  1. ভালো পোস্ট হয়েছে।@Sohel09,তুমার কমেন্টের অবস্থাও দিন দিন দেখছি!তুমারে যদি শায়েস্তা না করসি তো দেখিও…তুমার দিন শেষ!হায় এডমিন,তুমিই শেষ ভরসা!

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen + twenty =