গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

1
356
এটি 283 পর্বের গেমস জোন সিরিজ টিউনের 59 তম পর্ব
গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

প্রতিদিন একই টাইপের গেমস নিয়ে লিখতে কার ভাল লাগে বলুন? :x রেসিং, শুটি এগুলো নিয়ে বহু টিউন করলাম। আজ একটু ব্যাতিক্রম গেমস নিয়ে টিউন করি। :p

আজকের গেমস Dungeon Siege III

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

 গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

 

Dungeon Siege III একটি একশন রোল-প্লেয়িং ভিডিও গেমস যেটি ডেভেলপ করেছে অবসিডিয়ান এন্টারটেইমেন্ট এবং পাবলিশ করেছে স্কোয়ার ইনিক্স। গেমসটি ডুনজিয়ন সেইজ গেমস সিরিজের ৩য় গেমস। গেমটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্স.বক্স ৩৬০ গেমস কনসোল এর জন্য গত বছরের জুন মাসে (২০১১) রিলিজ পায়।

 

Dungeon Siege III

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

 

Developer:

Obsidian Entertainment

 

Publisher:

Square Enix

 

Series:

Dungeon Siege

 

Engine:

Onyx (proprietary)

 

Platform:

Microsoft Windows,

PlayStation 3,

Xbox 360.

 

Release Date:

June  17-28, 2011.

 

Genre:

Action Role-Playing

 

Mode:

Single & Multiplayer

 

Rating:

ESRB: Everyone 10+

PEGI: 12

 

Trailer Video:

www.youtube.com/watch?v=fkpp7rkJnj8

www.youtube.com/watch?v=ayal7xCxl2k

www.youtube.com/watch?v=BbB4NcSbSlM

www.youtube.com/watch?v=kOgzTXquEfA

www.youtube.com/watch?v=Vl8lh7If688

 

 

 

System Requirements:

Mode

Processor

OS

Ram

Graphic

HardDisk

Minimum Core 2 Duo 2.4GHz WinXP 2GB 512MB 4GB Free
Recommended Core i5 2.66GHz Win7 3GB 1GB

Graphic Cards (minimum):

nVidia GeForce 8800,

ATI Radeon HD 3870

 

Graphic Cards (Recommended):

nVidia GeForce GTX 260,

ATI Radeon HD 4870

 

DirectX 9.0 (minimum) with Shader Model 3.0
512Kbps Broadband Internet Connection for Online Multiplayer

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

পটভূমি:

যারা গেমস সিরিজের আগের গেমস গুলো খেলেছেন তারা তো জানেনই স্টোরি লাইন কিরকম। আর যারা জানেন না তাদের জন্য বলছি, গেমটি “কিংডম অফ ইহব” তে খেলা হবে। যেটি সিরিজের ১ম গেমটিতে ছিল কিন’ ২য়টিতে ছিল না। গেমটি সময়কাল হবে সিরিজের প্রথম গেমসটির ১৫০শ বছর পরে। কিংডম অফ ইহব এর “১০ম লিজন” যে কিনা কিংডমটিতে প্রায় ৪০০ বছর ধরে সুশাসন করে আসছে, সে প্রায় ধ্বংস হতে চলেছে। গেমটির সেটিংর এর ৩০ বছর আগে, জেইন ক্যাসিন্ডার পশ্চিশ ইহব এর লোকদের নিয়ে একটি প্রতিরক্ষা বাহিনী গড়ে তোলা তার বাবার (কিং) মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে।

খুউব-ই লম্বা এবং মারাত্মক ক্যাপপেইন এর পর, সে সমস- লিজনদের মারতে সক্ষম হয়। তবে লিজনদের তরুণ কুইন রোসলিন গ্লিটারডেললভ মাইন এ পালিয়ে যায়।

ওদিকে লিজনদের ছোট্ট একটি গ্রুপ বেঁচে যায়। গ্রুপটির লিডার একজন সাবেক লিজন গুপ্তচর, নাম ভেনারেবল ওডো। গেমটির শুরুতে ওডো বেঁচে যাওয়া লিজনদের একত্র করে কেইসিনডারদের বিরুদ্ধে ফাইট ব্যাক করার জন্য তৈরি হয়।  গেমটিতে আপনাকে লিজনদের পক্ষে লেখতে হবে।

ওডোর ডাকে যে লিজনদের মিটিং হয়। সেখান থেকেই গেমটির কাহিনী শুরু। কেইসিনডারদের একজন গুপ্তচরের সুবাদে জেইন’রা লিজনদের সেই মিটিং এ আচমকা হামলা চালায়। প্লেয়ার এবং ওডো সেখান থেকে পালিয়ে লিজনদের সেইফ হাউসে আশ্রয় ন্‌েয়। এরপর প্লেয়ার প্রতিশোধের আগুনে জ্বলতে থাকে! তারপর সে বেরিয়ে পড়ে যুদ্ধে বেঁেচ থাকা লিজনদের খোঁজে এবং সেই গুপ্তচরকে খুঁজতে যে এই যুদ্ধের পিছতে মদদ দিয়েছে। এভাবে গেমটির কাহিনী এগোতে থাকে।

 

প্লেয়ার চরিত্র:

ডুনজিয়ন সেইজ ৩ গেমটিতে ৪ জন ভিন্ন ভিন্ন প্লেয়ার চরিত্র অফার করে। আপনার পছন্দের প্লেয়ার চরিত্রের অনুসারে গেমটির গল্প আগাতে থাকবে। বাকি ৩ জন গেমটিতে সাহায্যকারী হিসেবে পাবেন অথবা মাল্টিপ্লেয়ার হিসেবে আপনার বন্ধুকে নিয়েও খেলতে পারবেন।

a)  Lucas Montbarron:     লুকাস হচ্ছে হাগ মন্টব্যারণ এর ছোট পুত্র। লুকাস ১০তম লিজন এর গ্রান্ড মাস্টার, সিরিজের ১ম গেমস এর প্রোটাজনিস্ট। তার অস্ত্র হিসেবে থাকছে ১টি তলোয়ার অথবা ২টি ধারালো তলোয়ার ।

 

b)  Anjali: নামটি ইন্ডিয়ান ইন্ডিয়ান লাগে! তাই না! হা হা হা। আনজলি একজন আরচন। আরচন একপ্রকার ঈশ্বর। সে মানুষ, আগুনের গোলা, অদৃশ্য ইত্যাদি সুপার পাওয়ারের অধিকারীনি।

 

 

c)   Reinhart Manx: রেইনহার্ট একজন মেরিট (সিরিজের প্রথম গেমস থেকে)। সে ম্যাজিক এবং ক্লোস কমব্যাট মারতে পারদর্শী।

 

d)  Katarina: ক্যাটরিনা হইলে কি দোষ ছিলো! হা হা হা। ক্যাটারিনা হাগ মন্টব্যারণ এর “না’জায়েজ ” মেয়ে। সে রাইফেল অথবা শটগান নিয়ে যুদ্ধ করে।

 

প্রত্যেকটি প্লেয়ার চরিত্র ২টি ভিন্ন ধরণের ফাইটিং স্টাইল সর্মথণ করে এবং সবোর্চ্চ ৯টি ভিন্ন ভিন্ন অস্ত্র সর্মথন করবে। গেমটি সিরিজের আগের গেমসগুলোর মতো অটোমেটিক ফায়ার সিস্টেম না থাকায় গেমটি খেলতে একটু কষ্ট /মানে কঠিন হবে।

 

 

গেমটিতে খেলার জন্য ৪টি ক্যারেক্টার পাবেন। এদের মধ্যে হতে যেকোনো একজনকে নিয়ে খেলতে পারবেন।

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

গেমস জোন: Dungeon Siege III (2011)

 

ডাউনলোড করুন এখানে: (4GB + Torrent)

Dungeon Siege III Download Links

 

আশা করি আজকের এই গেমসটি আপনাদের ভাল লেগেছে। গেমসটি খেলে দেখতে পারেন। ভিন্ন স্বাদের মজা পাবেন।

 

আজকের গেমস জোন এখানে শেষ করছি। সামনের পর্বে আরো মজার মজার গেমস নিয়ে আমি আসবো।

 

ধন্যবাদ পোষ্টটি পড়ার জন্য। :D :D :D :D :D

 

আল্লাহ হাফেজ। :)

Series Navigation << গেমস জোন (প্রিভিউ): Call of Duty: Black Ops II (2012)গেমস জোন: Driver: San Francisco (2011) >>
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 2 =