সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (শেষ পর্ব)

5
455

আমার টিপস বিষয়ক ধারাবাহিক পোষ্টের শেষ পর্বে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম! আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমি এই পর্যন্ত যে টিপস গুলো দিয়েছি আপনাদের উপকারে এসেছে আশা করি। যারা পোষ্ট গুলো দেখেন নি তারা চাইলে নিচের লিঙ্কগুলো থেকে দেখে নিতে পারেন –

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (প্রথম পর্ব)

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (দ্বিতীয় পর্ব) 

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (তৃতীয় পর্ব)

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (চতুর্থ পর্ব)

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (পঞ্চম পর্ব)

 

আজকের শেষ পর্বে চলুন কিছু টিপস জেনে নেয়া যাক! :)

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (শেষ পর্ব)

 

1. সময় বাঁচান রান কমান্ড দিয়ে :

উইন্ডোজের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা, বিভিন্ন আপ্লিকেশনে শুধু রান কমান্ড দিয়ে খুব সহজেই যাওয়া যায়। এতে অনেক সময় বাঁচে। নিচে তেমনই কিছু রান কমান্ড দেওয়া হলো।

প্রথমে উইন্ডোজ কি+R চেপে সরাসরি রান-এ যেতে হবে। এরপর নির্দিষ্ট কমান্ড দিয়ে সরাসরি যেকোনো প্রোগ্রামে যাওয়া যাবে।
 ক্যালকুলেটর খুলতে করতে calc লিখে এন্টার করুন।
 যেকোনো ড্রাইভে যেতে c:, d:, e: এভাবে লিখে এন্টার করুন।
 বিভিন্ন চিহ্ন খুঁজে পেতে charmap লিখে এন্টার করুন।
 পাওয়ার অপশনে যেতে powercfg.cpl লিখে এন্টার করুন।
 রেজিস্ট্রি এডিটরে যেতে regedit লিখে এন্টার করুন।
 রিমোট ডেস্কটপে যেতে mstsc লিখে এন্টার করুন।
 কন্ট্রোল প্যানেলে ঢুকতে লিখে control এন্টার করুন।
 ডিস্ক ক্লিনআপ চালু করতে cleanmgr লিখে এন্টার করুন।
 মাউস প্রোপার্টিজে ঢুকতে main.cpl লিখে এন্টার করুন।
 সাউন্ড অ্যান্ড অডিওতে ঢুকতে mmsys.cpl লিখে এন্টার করুন।
 ডিভাইস ম্যানেজারে ঢুকতে devmgmt.msc লিখে এন্টার করুন।
 ফন্টসে ঢুকতে fonts লিখে এন্টার করুন।
 উইন্ডোজ সিকিউরিটি সেন্টারে যেতে wscui.cpl লিখে এন্টার করুন।
 টাস্ক ম্যানেজার চালু করতে taskmgr লিখে এন্টার চাপুন।
 সিস্টেম কনফিগারেশনে যেতে sysedit লিখে এন্টার করুন।
 রিজিয়ন অ্যান্ড ল্যাঙ্গুয়েজ এডিটরে যেতে intl.cpl লিখে এন্টার করুন।
 স্টার্ট আপ মেন্যুতে যেতে msconfig লিখে এন্টার চাপুন।
 হার্ডডিস্কের বিভিন্ন ড্রাইভ লুকানোসহ বিভিন্ন কাজে gpedit.msc লিখে এন্টার চাপুন।
 ইন্টারনেট প্রোপার্টিজ দেখতে inetcpl.cpl লিখে এন্টার চাপুন।
 অন স্ক্রিন কি-বোর্ড চালু করতে osk লিখে এন্টার চাপুন।

 

2. সহজেই ওয়েব ঠিকানা আদান-প্রদান করুন :

নানা কারণে আমরা বিভিন্ন সাইটের লিংক আমরা বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করে থাকি । মজিলা ফায়ারফক্স ব্রাউজার ব্যবহার করে ইচ্ছে করলে অতি সহজেই যেকোনো ওয়েব পেইজের লিংক অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন। এ জন্য আপনার লাগবে ‘অ্যাড দিস’ নামের একটি অ্যাড-অনস প্রোগ্রাম। এই অ্যাড-অনসটি
এই ঠিকানা থেকে ডাউনলোড করে নিন। এর পর ব্রাউজার রিস্টার্ট দিন। এখন আপনার কাঙ্খিত ওয়েবপেইজে গিয়ে মাউসের ডান ক্লিক করে Add this অপশনে গেলেই ফেসবুক, টুইটার, গুগল বাজ, ব্লগারসহ জনপ্রিয় বিভিন্ন সাইটের ঠিকানা তালিকা পাওয়া যাবে, এখান থেকে সহজেই যেকোন লিংক সরাসরি শেয়ার করতে পাবেন। সরাসরি ইমেইলের মাধ্যমে শেয়ার করার ব্যবস্থাও রয়েছে। এ ছাড়াও পছন্দের ওয়েবপেজটি সরাসরি প্রিন্ট করে বের করতে পারবেন। কোন কোন সাইটে আপনি শেয়ার করতে পারবেন তার তালিকা দেখতে tools/addon/addthis/option অপশনে যান।

 

3. অপারেটিং সিস্টেম ঠিকভাবে কাজ না করলে রিপেয়ার করুন নিজেই :

অনেক সময় Control panel-এর Add or Remove Programs থেকে কোনো সফটওয়্যার Uninstall করার সময় বা ভুলবশত সি ড্রাইভ থেকে যদি অপারেটিং সিস্টেমের দরকারি কোনো ফাইল ডিলিট হয়ে যায়, তাহলে কম্পিউটার ঠিকভাবে কাজ করে না বা অপারেটিং সিস্টেমের ফাইল মিসিং দেখায় এবং অনেক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

এ ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কম্পিউটারকে কিছুদিন আগের অবস্থায় নিয়ে যান। অর্থাৎ আনুমানিক যে তারিখ আপনার কম্পিউটার ভালো ছিল, সেই তারিখে নিয়ে যান।

আর এটি করতে হলে প্রথমে C:\WINDOWS\ System32\Restore-এ গিয়ে rstrui.exe-তে ডাবল ক্লিক করে নতুন উইন্ডো এলে সেটাতে Restore my computer to an earlier time নির্বাচন করে Next-এ ক্লিক করুন। দেখবেন একটি ক্যালেন্ডার এসেছে। এখন যে তারিখে আপনার কম্পিউটার ভালো ছিল, সেই তারিখ নির্বাচন করে (শুধু বোল্ড তারিখগুলো নির্বাচন করতে পারবেন) Next-এ ক্লিক করুন। নতুন উইন্ডো এলে আবার Next-এ ক্লিক করুন। দেখবেন কম্পিউটার অটো রিস্টার্ট নিয়ে কাজ শেষ করার পর সফলতার বার্তা এসেছে। এখন দেখবেন আপনার কম্পিউটারের সমস্যা ঠিক হয়ে গেছে। আর যদি তাতে ঠিক না হয় তাহলে আবার পুনরায় অন্য কোনো তারিখ নির্বাচন করেও Restore করতে পারেন। এখন করা Restore-টি আবার আপনি Undo-ও করতে পারবেন।

 

4. ফেসবুকের ভিডিও ডাউনলোড :

ইদানীং ফেসবুকে অনেক ভিডিও শেয়ার করা হয়। ফ্লাশ প্লেয়ার ইনস্টল করা থাকলে বা গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করলে সেগুলো সরাসরি ফেসবুকেই দেখা যায়। কিন্তু যাঁদের কম্পিউটারে ইন্টারনেটের গতি কম, তাঁরা সহজে ভিডিও দেখতে পারেন না। আবার অনেকে অনেক ভিডিও ডাউনলোড করে রাখতে চান। কিন্তু ফেসবুকের ভিডিও ডাউনলোড করার সরাসরি কোনো লিংক না থাকায় তা করতে অনেক সমস্যা হয়। সবচেয়ে সহজ পদ্ধতিতে ফেসবুকের ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলে প্রথমে ফেসবুকের ভিডিওর ঠিকানাটি (লিংক) কপি করে এই ঠিকানায় গিয়ে পেস্ট করে ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করলেই ফেসবুকের ভিডিওটি ডাউনলোড হয়ে যাবে।

 

5. ফোল্ডারে তালা লাগান :

সহজ উপায়ে ইচ্ছে করলে ফোল্ডারে তালা (লক) লাগাতে পারেন। এ জন্য প্রথমে এই ঠিকানা থেকে লকডিআইআর নামের ৫০০ কিলোবাইট আকারের ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন। এবার যে ফোল্ডারটি লক করতে চান সেই ফোল্ডারটির ভেতরে এটি কপি করে পেস্ট করুন। এবার এই lockdir ফাইলটি খুলুন। দুবার একই গোপন নম্বর (পাসওয়ার্ড) দিয়ে Encrypt-এ ক্লিক করুন।

এবার দেখবেন ফোল্ডারের আইকন পরিবর্তন হয়ে গেছে। লক খুলতে হলে ফোল্ডারের ভেতর প্রবেশ করে Lockdir খুলে গোপন নম্বর দিয়ে Customize সিলেক্ট অবস্থায় Decrypt-এ ক্লিক করলে তিনটি অপশন আসবে। এর মধ্যে Minimize to tray-তে ক্লিক করলে সফটওয়্যারটি Minimize হবে আবার সফটওয়্যারটি বন্ধ করে দিলে আবার লক হয়ে যাবে।

Restore Encrypted-এ ক্লিক করলে লক না খুলে আবার আগের জায়গায় চলে যাবে আর Cancel Decrypted-এ ক্লিক করলে একেবারে আনলক হয়ে যাবে।

 

6. বাংলা বানানের ভুল ধরবে ফায়ারফক্স :

ইন্টারনেটে ওয়েবসাইট দেখার সফটওয়্যার মজিলা ফায়ারফক্সে একটি বাংলা অভিধান রয়েছে। সেটি সক্রিয় করে বাংলা লিখলে লেখার সময় বানানে ভুল হলে সতর্ক করা হয়। ভুল বানানের নিচে লাল দাগ পড়ে। এ সুবিধা পেতে হলে প্রথমে এই ঠিকানার ওয়েবসাইটে গিয়ে Add to Firefox-এ ক্লিক করতে হবে। নতুন উইন্ডো এলে Install now-এ ক্লিক করুন। একটি ফাইল স্বয়ংক্রিয়ভাবেই যুক্ত হবে। এরপর Restart Firefox-এ ক্লিক করুন। ফায়ারফক্স বন্ধ হয়ে আবার খুলবে। এখন ফায়ারফক্স দিয়ে কোনো কিছু যেমন ওয়েবসাইট, ব্লগ, মেইল ইত্যাদি খুলে লেখার স্থানে কোনো কিছু বাংলায় লিখে ডানে ক্লিক করে Language থেকে Bangla (Bangladesh) নির্বাচন করুন। এরপর কোনো কিছু লিখলে দেখবেন ভুল বানানের নিচে লাল কালির দাগ পড়েছে। এ অ্যাড-অনটি ফায়ারফক্সের সব ভার্সনে কাজ না-ও করতে পারে। অ্যাড-অনটি ডাউনলোড করার আগে ওই পেজের নিচে থেকে দেখে নেবেন আপনার ব্রাউজারটি এ অ্যাড-অনটি সমর্থন করবে কি না।

 

7. কি-বোর্ডের একই বোতাম বিভিন্ন অক্ষরের জন্য ব্যবহার করুন :

অনেক সময় কি-বোর্ডের এক বা একাধিক বোতাম নষ্ট হয়ে যায়। তখন অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। যেমন, কারও ই-মেইল আইডি বা পাসওয়ার্ডে যদি a থাকে এবং কি-বোর্ডের a যদি নষ্ট হয়ে যায় তাহলে কি-বোর্ড থেকে a লেখা যায় না। তখন অনেক সমস্যা হয়। এর একটা সমাধান হলো কোথাও a লেখা থাকলে সেখান থেকে আপনি a-কে কপি করে এনে এখানে পেস্ট করতে পারেন বা কম্পিউটারের অন-স্ক্রিন কি-বোর্ডটি খুলে কাজ করতে পারেন। কিন্তু এতে অনেক সময় ব্যয় হয় এবং অনেক বিরক্ত লাগে। যাঁরা এই সমস্যায় পড়েছেন তাঁদের ভালোই জানা আছে তখন কী ঝামেলা হয়। আপনি ছোট একটি সফটওয়্যার ব্যবহার করে খুব সহজেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। অর্থাৎ আপনি শার্প-কি নামের সফটওয়্যারটি ইনস্টল করে কি-বোর্ডের বাটনগুলো পরিবর্তন করে ফেলতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনার কি-বোর্ডের a নষ্ট। আপনি ইচ্ছা করলে কি-বোর্ডের অন্য একটি বাটনকে (যে বাটনটি সব সময় কাজে লাগে না বা যে বাটন কি-বোর্ডে একাধিক আছে) a বোতামে রূপান্তর করতে পারেন। মাত্র ২৩ কিলোবাইটের শার্প-কি সফটওয়্যারটি ইনস্টল করে From key-তে কোন কি চেপে (যে কি-টি ভালো আছে) এবং To kay-তে নষ্ট কি-টি (নষ্ট কি যদি a হয় তাহলে a) চেপে ওকে করুন। তাহলে অন্য কি-টি a কি-তে রূপান্তরিত হবে। অর্থাৎ ওই কি-টি চেপে a লেখা যাবে। মাত্র ২৩ কিলোবাইটের শার্প-কি সফটওয়্যারটি এই ঠিকানা থেকে বিনা মূল্যে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

 

8. পিডিএফ ফাইল পড়ুন ও লিখুন একইসাথে :

সাধারণত পিডিএফ রিডার সফটওয়্যার দিয়ে পিডিএফ ফাইল শুধু পড়া যায়, কিন্তু লেখা যায় না। তার জন্য আলাদা পিডিএফ রাইটার দরকার। তা ছাড়া এই সফটওয়্যারগুলো ইনস্টল করলে কম্পিউটারে অনেক জায়গা দখল করে রাখে, কম্পিউটার অনেক স্লো হয়ে যায়। আর পিডিএফ ফাইল খুলতেও অনেক সময় লাগে। একটি সফটওয়্যার দিয়ে যদি একই সঙ্গে পিডিএফ ফাইল পড়া ও লেখা যায়, তাহলে অনেক সুবিধা হয়। তেমনি একটি সফটওয়্যার হলো নাইট্রো রিডার (NitroReader)

এটি দিয়ে একই সঙ্গে পড়াও যায় এবং লেখাও যায়। এবং এটি ইনস্টল করলে তুলনামূলকভাবে কম জায়গা দখল করে এবং কম্পিউটারও কম স্লো হয়। এটিতে এডোবি পিডিএফ রিডার সফটওয়্যারের সব সুবিধা তো আছেই, তার বাইরেও করতে পারবেন: নিজের স্বাক্ষর ব্যবহার করা, পিডিএফ ফাইল থেকে লেখা বা ছবি আলাদা করা, পিডিএফ ফরম তৈরি করা এবং সম্পাদনা করা, পিডিএফ ফাইলের যেকোনো স্থানে এডিট করা, বিভিন্ন স্থানে মন্তব্য করা, মন্তব্যের উত্তর দেওয়া, পাসওয়ার্ড দেওয়া, ৩০০-এর বেশি ফাইল ফরম্যাট থেকে পিডিএফ ফাইল তৈরি করা, পিডিএফ ফাইল থেকে একাধিক ফাইল ফরম্যাটে রূপান্তর করাসহ আরও অনেক কিছু। নাইট্রো পিডিএফ রিডার সফটওয়্যারটি বিনা মূল্যে ডাউনলোড করতে পারেন এই ঠিকানা থেকে।

 

9. স্ক্রিন শট নিন সহজে :

অনেক সময় ওয়েবসাইট কিংবা কোন পাতার স্ক্রিন শট নেয়ার প্রয়োজন হয়। এ জন্য যে পাতা কিংবা ওয়েবসাইটের স্ক্রিন শট নিতে চান সেটি খুলে একবার কিবোর্ডের Print Screen একবার চাপুন। এবার Start\Programs\Accessories\Paint গিয়ে Ctrl+V চাপুন। দেখুন আপনার ওয়েবসাইট কিংবা পাতার স্ক্রিন শট নেয়া হয়ে গেছে।

 

10. তৈরি করুন নিজের ছবির আইকন :

কম্পিউটারের ফোল্ডারের আইকন হিসেবে ইচ্ছা করলে আপনি নিজের ছবি ব্যবহার করতে পারেন। এ জন্য আপনার লাগবে ‘ইমেজ আইকন’ নামের একটি সফটওয়্যার। মাত্র ১.০১ মেগার ছোট্ট এই সফটওয়্যারটি এই সাইট থেকে নামিয়ে নিন। এরপর সফটওয়্যারটি ইনস্টল করে চালু করুন। ইমেজ আইকন ওপেন করে যে ছবিটির আইকন তৈরী করতে চান সেটি মাউস দিয়ে ড্রাগ করে সফটওয়্যারটি ছেড়ে দিন, তাহলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে আইকন তৈরি হয়ে যাবে।

যেকোনো ফোল্ডারের আইকন পরিবর্তন করতে ফোল্ডারের ওপর মাউস রেখে properties/customize/change icon-এ যান। এখন ব্রাউজ করে আইকনটি যেখানে রয়েছে সেখানে যান এবং নির্বাচন করুন। তাহলেই আপনার পছন্দের ছবিটি ফোল্ডারের আইকন হিসেবে দেখতে পাবেন।

 

এই ছিল আজকের টিপস। এটা আমার ধারাবাহিক পোষ্টের শেষ পর্ব। আমি জানি সবসময় উপকারী টিপস খোঁজার জন্য টিউনারপেজে ঢুকে পোষ্ট দেখা একটু ঝামেলা! তাই আমার এই ছয় পর্বের সবগুলো টিপস ডাউনলোড করে নিতে পারেন পিডিএফ আকারে।

Download All Tips & Tricks in PDF

আজ এই পর্যন্তই। আগামী পোষ্টে নতুন কিছু নিয়ে হাজির হব। :)

সেই পর্যন্ত সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন, আর অবশ্যই প্রযুক্তির সাথে থাকুন! :) :)

সবাইকে ধন্যবাদ! :)

টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

5 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 1 =