আসুন মমি সম্পর্কে কিছু জানি ।

6
470

মমি শব্দটার উৎপত্তি পারস্য দেশে । পারস্যে যা মমি, বাংলায় তা হল মোম। মোম দিয়ে মৃতদেহকে আবৃত করার পদ্ধতিকে বলা হত মমি । এই মমি তৈরির প্রণালীটা প্রায় ৫ হাজার বছর পুরনো । প্রাচীন মিশরীয়রা বিশ্বাস করতেন যে দেহ যদি নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে তার আত্মাও নষ্ট হয়ে যাবে । তাই কারও দেহ মমিফিকেশন করে রাখলে  দেহের মালিক আবার জন্ম নিবে ।

তারা একটি দেহকে মমি করতে প্রথমেই মৃতদেহটির ভেতরের সবকিছু বের করে ফেলত, অদ্ভুদ কায়দায় ম্যানুয়ালি পাকস্থলী, কিডনি, মস্তিষ্ক বা ব্রেন  নাক ও মুখ দিয়ে বের করত বিশেষ হুকারের সাহায্যে  । তারপর ফাঁপা দেহটাকে ন্যাট্রেনে ( সোডিয়াম ও কার্বনের মিশ্রণ) ৪০ দিন ধরে রেখে দিত। ফলে দেহ থেকে অবশিষ্ট পানি বেরিয়ে দেহ শুকিয়ে যেত । এরপর বিশেষ বিশেষ গাছপাতা ও রজনে ভেজানো তুলো ফাঁপা দেহটিতে ভর্তি করে দিত। তারপর মমি বিশেষজ্ঞরা দেহটাকে মোমে চোবানো ব্যান্ডেজে মুড়ে ফেলত । এইভাবে মমি তৈরি হয়ে গেলে পবিত্র কফিনের মধ্যে রেখে দিত । যাকে বলা হত ম্যাক্রোফ্যাগাস ।

Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
টিউনারপেজের নতুন টিউন আপনাকে ইমেইল করব?
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting
Unlimited Web Hosting

6 মন্তব্য

  1. আরও বিস্তারিত লিখলে খুব ভাল হতো। তবুও আপনাকে হাল্কা ধন্যবাদ, ভাল থাকবেন।

  2. আশা করি আরও জানাবেন! আমার মিশর খুব ভালো লাগে!

  3. পোষ্টের পরিধি আরো বৃদ্ধি করুন।আরো বিস্তারিত লিখুন,
    টিনের চেয়ে কমেন্টের সাইজ বড় হইলে খারাপ দেখা যায়।
    ধন্যবাদ।

  4. দোস্ত তুই ত জটিল জটিল পোস্ট করতাছিস। চমর হইছে রে। আরো পোস্ট কর সবাই মজা পাবে ব্যাপার গুলো আঙ্কমন আছে কনো ব্লগের জন্য। চলায়া যা রে

মন্তব্য দিন আপনার