Apple এর নতুন iPhone X review

0
146
Apple এর নতুন iPhone X review

উৎস

আমি আপনাদের মতই একজন সাধারণ মানুষ। গ্রামের বাড়ি সৈয়দ বাড়ি, রাঙ্গুনিয়া, চট্টগ্রাম।
আমি কম্পিউটার সাইন্স নিয়ে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেছি। সামনে বিএসসি করবো। IT সেক্টর নিয়ে আমার আগ্রহ আমার সেই সময় থেকে, যখন আমি ক্লাস সিক্স এ। বর্তমানে আউটসোরসিং এর কাজও করছি। পাশাপাশি ব্লগে একটু সময় কাটাই।
আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।
Apple এর নতুন iPhone X review

Apple এর নতুন iPhone X review

অ্যাপল আইফোন এক্স

প্রথম আইফোন উদ্বোধনের দশম বার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্বকে নতুন অত্যাধুনিক ও সবচেয়ে উন্নতমানের আইফোন মডেল উপহার দিলো অ্যাপল। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় যাত্রা শুরু ওয়াচ থ্রি, অ্যাপেল টিভির।মঙ্গলবার ক্যালিফর্নিয়ার সিলিকন ভ্যালিতে স্থিত সংস্থার স্পেসশিপ-সদৃশ দফতরের মধ্যে স্টিভ জোবস থিয়েটারে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উন্মোচন হল নতুন ‘আইফোন এক্স’-এর।এদিন মোট তিনটি আইফোন মডেল প্রকাশ করা হয়। এগুলি হলো আইফোন ৮, আইফোন ৮ প্লাস এবং বহু-প্রতীক্ষিত আইফোন এক্স। সংস্থার তরফে দাবি, এই এক্স মডেলটি এখন পর্যন্ত আইফোন মডেলের শ্রেষ্ঠ.জানা গেছে, নতুন আইফোন এক্স মডেলে রয়েছে এজ-টু-এজ (ফোনের দুই কোণ পর্যন্ত বিস্তৃত) স্ক্রিন, অত্যাধুনিক ফিচার্স এবং ফেসিয়াল রিকগনিশন। জানা গেছে, এই ফোনে হোম বটন নেই।অর্থাৎ, ফোন ‘আনলক’ করতে ব্যবহারকারীর মুখের ছবি ফোনের ক্যামেরার মাধ্যমে উঠবে, তারপর সেই ছবি মিললে, ফোন আনলক হবে। সংস্থার দাবি, এই ফোনে যে পরিমাণ নিরাপত্তা-বৈশিষ্ট্য দেয়া হয়েছে, তা কল্পানাতীত।সূত্রের খবর, আইফোনের দাম পড়বে প্রায় ১,৪০০ মার্কিন ডলারের বেশি ‘আইফোন এক্স’-এর দাম প্রায় এক লক্ষ টাকা হবে ভারতীয় মুদ্রায়। বিশ্ব বাজারের জন্য ফোনটি রওনা দেবে ৩ নভেম্বর এত দামী ফোন দিয়ে অ্যাপল কতটা বাজার ধরতে পারে, এখন সেটাই দেখার।এর পাশাপাশি, স্মার্টওয়াচের উন্নত সংস্করণও প্রকাশ করল অ্যাপল। সংস্থার দাবি, অ্যাপল সিরিজ ৩ নামের ওই স্মার্টওয়াচ রোলেক্স ও ফসিলের মতো ব্র্যান্ডকে টেক্কা দেবে।

আইফোন এক্স-এর চেহারা কেমন?

আইফোন এক্স একটি 5.8-ইঞ্চি পর্দার আইফোন। অ্যাপল বলেছে যে এটি “an iPhone that is all display“। আইফোনের আইকন হোম বোতামটি বাদ দিয়ে অ্যাপল আইফোনটি ২007 সালে মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম আইফোন ডিভাইস থেকে বেরিয়ে এসেছে। এটি ফ্রন্ট-facing ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারও সরিয়েছে, যা অন্য সব নেতৃস্থানীয় ব্র্যান্ড গ্রহন করেছে।এর পরিবর্তে, আইফোন এক্স-এ প্রায় সম্পূর্ণ পর্দার আচ্ছাদনযুক্ত ডিজাইন রয়েছে। ফ্রন্ট-facing selfie ক্যামেরা এবং facial recognition-এর জন্য জায়গা তৈরি করতে, স্ক্রিনটিতে সামান্য খাঁজ রয়েছে। dual-lens rear facing ক্যামেরা আছে এবং রং silver এবং space grey।

আইফোন এক্স-এর সেরা বৈশিষ্ট্য

Apple এর নতুন iPhone X review

No হোম button (বা টাচ আইডি)

আইফোন এক্স আনলক করতে gesture controls ব্যবহার করতে হবে। হোম button-এর বিভিন্ন ফাংশন, যেমন সিরি সক্রিয়, লক সুইচে স্থানান্তরিত হবে। ব্যবহারকারীরা নীচের থেকে সোয়াইপ করার মাধ্যমে বা শুধু স্ক্রিনটি ট্যাপ করে ফোনটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে।

Apple এর নতুন iPhone X review

Face আইডি

অ্যাপল এর True Depth ক্যামেরা সিস্টেম ব্যবহারকারীদের কেবল এটির দিকে তাকানো দ্বারা তাদের ফোন আনলক করতে দেবে। Facial recognition প্রযুক্তি একটি ইনফ্রারেড ক্যামেরার মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের চিহ্নিত করবে। Face আইডি শুধুমাত্র ব্যবহারকারীর চোখ খোলা থাকলে আনলক হবে। অ্যাপল বলেছে যে “one in a million” সুযোগ যে অন্য কেউ প্রযুক্তি ব্যবহার করে আইফোন আনলক করতে পারবে।

ওয়্যারলেস চার্জিং

অ্যাপল ওয়াচ এবং প্রতিদ্বন্দ্বী স্যামসাং Galaxy S8 এ ইতিমধ্যে উপলব্ধ ওয়্যারলেস চার্জিং প্রথম আইফোন আসছে। এছাড়াও AirPower নামক একটি wireless চার্জিং প্যাড, যা একযোগে একাধিক ডিভাইস চার্জ করতে সক্ষম হবে আগামী বছর মুক্ত করবে।

Apple এর নতুন iPhone X review

এজ-টু-এজ, সুপার রেটিনা ডিসপ্লে

এই  ফোনটিতে রয়েছে বিশেষ স্ক্রিন। স্ক্রিনটিকে বলা হয়েছে ‘OLED’। এই স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা ও ফেসিয়াল রিকগনিশন আগের মডেলগুলির ‘LCD’  স্ক্রিন থেকে অনেক বেশি আকর্ষণীয় হবে, তা বলাই বাহুল্য। মডেলটির স্ক্রিন ‘এজ টু এজ’ অর্থাৎ ফোনের দুই কোণ পর্যন্ত বিস্তৃত।আইফোন এক্সটি আধুনিক বাস্তব অভিজ্ঞতার প্রদর্শন করতে ব্যবহৃত হয়েছে যা অ্যাপলের এই বছরের WWDC এ মুক্তিপ্রাপ্ত তার ARKit সফটওয়্যারের মাধ্যমে প্রকাশ পায়।

Apple এর নতুন iPhone X review

এনিমোজি

এনিমোজি একটি নতুন ধরনের ইমোজি যা facial recognition সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে কাস্টমাইজ করা যায়। ব্যবহারকারীরা তাদের মুখ স্ক্যান করতে পারবে এবং এনিমোজি একটি অ্যানিমেশনে তাদের অভিব্যক্তি দেখাবে। বৈশিষ্ট্যটি শুধুমাত্র প্রিমিয়াম আইফোন এক্স-এ পাওয়া যাব। অ্যাপল তার শত শত ইমোজি যেমন বানর, গায়ক, রোবট, কুকুর,  বিড়াল, কুকুর এবং পু এর গাদা থেকে অ্যানিমোজি নির্বাচন করেছে।

চাইলে আপনিও যেকোন এন্ড্রয়েড মোবাইলে এনিমোজি ব্যাবহারের স্বাদ নিতে পারেন। নিচের ভিডিওটি দেখুন।

প্রসেসর এবং ব্যাটারি

আইফোন এক্স-এর ভিতরে একটি A11 বায়োনিক চিপ থাকবে, এটি আইফোন 8 এবং আইফোন 8 প্লাস এর তুলনায় আরো শক্তিশালী চিপ। আইফোন এক্স আইফোন 7 এর চেয়ে আরও দুই ঘণ্টা ব্যাটারি লাইফ প্রদান করবে।

Apple এর নতুন iPhone X review

ডুয়াল ক্যামেরা

আইফোন এক্স আইফোন 7 প্লাস-এর অনুসরণ করবে এবং একটি 12এমপি ডুয়েল লেন্স ক্যামেরা থাকবে। selfie ক্যামেরা 7MP হবে এবং 3D ট্র্যাকিংয়ের জন্য কাজ করতে সক্ষম হবে।

 

এক নজরে দেখেনি আইফোন এক্স-এর বিস্তারিত তথ্য গুলোঃ

OS iOS 11
Hardware CPU –  Hexa CoreChipset– Apple A11 Bionic

Sensors – Face ID, Accelerometer,proximity, compass, light,gyro.

Display Type -Super AMOLED Capacitive touchscreen with 16M colors.Size – 5.8 inches, 1125×2434 pixles, (~458 ppi)

Protection – Yes Scratch Resistant Glass

Multitouch – Yes 10 fingers

Camera Primary –  12 MP Dual, f/1.8 & f/2.4, OIS, 2x optical zoomFeatures – Geo tagging, Face and Smile detection, panorama, HDR

Secondary –  7 MP, f/2.2, 1080p@30fps, 720p@240fps

Video Quality – 2160@24/30/60fps, 720p@240fps, Video HDR,

Flash Light – Yes LED Flash

Memory Card Slot – NoInternal – 64/ 256 GB

RAM – 3 GB

DATA 4G – Yes LTE3G – Yes UMTS 2100 MHz

2G – Yes GSM 850/900/1800/1900 MHz

GPRS – Yes

EDGA – Yes

Wi-Fi – Yes 802.11 with Hotspot, dual-band.

Bluetooth – Yes v5.0

Battery Standard Battery –  Non removable Li-ionStand by time – Up To hours

Talk time – Up To 21  hours

Music Play – Up To 60 hours

Body Weight –  174 gmSize – 143.6×70.9×7.7 mm
SIM Card  Yes (Dual SIM Dual Stand By)
Port Charging – YesHeadphone – Yes 3.5mm

HDMI – No.

USB – Yes micro USB V2.0

Other – No.

Other Messaging – iSMS, MMS, E-mail,IMBrowser – HTML5

GPS – Yes A-GPS Support.

Radio – Yes

Colors – Space Gray, Silver

Price in TK  iPhone 8 x 64 GB = 89,000/- BDT (Approx)iPhone 8 x 256 GB  = 1,19,900/-BDT (Approx)

 

এই স্মার্টফোনটি ভিন্ন হবে আইফোন থেকে  কারণ এই ডিভাইসটি ব্যবহার করা হবে ফেইস আইডি লক সিস্টেমের মাধ্যমে। তাই আপনি আপনার ফেইস ব্যবহার করে আইফোন আনলক করতে পারেন। আইফোন এক্স ডুয়েল ক্যামেরাটি তার শরীরের অনুপাত এর 82.9% ব্যবহার করে। হুডের অধীনে এই ডিভাইসটি 3 জিবি শক্তিশালী অ্যাপল A11 বায়োনিক র‍্যাম, 5.8 ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে সহ হেক্সা কোর প্রসেসর সিস্টেম সংযক্ত রয়েছে।

ইতিমধ্যে এই আইফোনটি ক্রেতাদের প্রথম পছন্দের স্থানটি জায়গা করে নিচ্ছে, অন্য আইফোনের সাথে যা দিব্যি পাল্লা দিয়ে চলতে পারবে।