কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার সময় এই ভুল গুলো করছেন না তো?

0
279
কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার সময় এই ভুল গুলো করছেন না তো?

ColorSFox

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? তাহলে বন্ধু, Techubs.Net হবে আপনার জন্য সঠিক জায়গা—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি।
কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার সময় এই ভুল গুলো করছেন না তো?

জকের যেকোনো মডার্ন ডিভাইজে ফ্ল্যাট স্ক্রিন ব্যবহার করা হয়, সেটা স্মার্টফোন হোক আর টিভি বা আপনার কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন হোক। আগেই সিআরটি টিভি বা টিউব টিভি গুলোতে আলাদা টাইপের স্ক্রিন ব্যবহার করা হতো। আগের টিভি’র মোটা গ্লাসকে সহজেই যেকোনো কাপড় দ্বারা বা টয়লেট টিস্যু পেপার দ্বারা পরিষ্কার করা যেতো, কিন্তু ফ্ল্যাট এলসিডি স্ক্রীন গুলো পাতলা প্ল্যাস্টিকের তৈরি হয় সাথে এগুলো যেকোনো কেমিক্যালে অনেক সেনসিটিভ হয়। আর যেকোনো স্ক্রিন ধুলোবালি’তে নোংরা হয়ে যাওয়া বা আপনার বাচ্চার হাতের দাগ সেখানে লেগে যাওয়া অনেক স্বাভাবিক ব্যাপার। এই আর্টিকেল থেকে আপনার যেকোনো ফ্ল্যাট স্ক্রিন থেকে কিভাবে ধুলো, ময়লা, তেলের দাগ, হাতের ছাপ নিরাপদভাবে পরিষ্কার করবেন এবং পরিষ্কার করার সময় কোন বিষয় গুলোর উপর বিশেষ নজর রাখা প্রয়োজনীয় —এই ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

আমার কি করা প্রয়োজনীয়?

স্ক্রিন পরিষ্কার কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার সময় এই ভুল গুলো করছেন না তো?

দেখুন, আগেই বলেছি, বর্তমানের যেকোনো ফ্ল্যাট স্ক্রিন আগের পুরাতন সিআরটি স্ক্রিন গুলো থেকে আলাদা টাইপের হয়ে থাকে। আপনার কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন, ল্যাপটপ স্ক্রিন, এইচডি টিভি স্ক্রিন আগের তুলনায় অনেক বেশি ঝকঝকে, আলোকিত, এবং চকচকে পিকচার দিতে সক্ষম। এর এদের ফিজিক্যাল গঠনও আগের চেয়ে অনেক দুর্বল হয়ে গেছে। তাই মনিটর পরিষ্কার করার সময় অবশ্যই সাবধানতা এবং সঠিক পদ্ধতি গুলো ব্যবহার করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

আপনার ময়লা স্ক্রিনকে পরিষ্কার করার পূর্বে বলে রাখছি, এটাকে পরিষ্কার করার চাইতে ময়লা বেশি জমতে না দেওয়াই বেশি উপযোগী হবে। কম্পিউটার যখন ব্যবহার করবেন না, বা টিভি যখন অফ থাকবে, একটি পরিষ্কার কাপড় ব্যবহার করে স্ক্রিনটি ঢেকে দিন। এতে ময়লা, ধুলো সহ পোকা মাকড়ের মল থেকে আপনার স্ক্রিন সুরক্ষিত থাকবে। আপনার বাচ্চাদের টিভি’র স্ক্রিনে হাত দিতে নিষেধ করুণ, অথবা খেয়াল রাখুন, তারা এতে যেন কোন খাবার লাগিয়ে বা ময়লা হাতে না ছোঁয়। আপনি নিজেও ল্যাপটপ স্ক্রিনে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। আপনার স্কিনের তেলেই স্ক্রিনে অনেক দাগ পড়ে যেতে পারে। মনে রাখবেন,যতোকম স্ক্রিন মোছার প্রয়োজন পড়বে, ততোই ভালো থাকবে আপনার স্ক্রিন।

প্রথমে, আপনার স্ক্রিন’কে মোছার জন্য রেডি করে নিন। অর্থাৎ প্রথমে আপনার টিভি বা কম্পিউটার’টিকে বন্ধ করে দিন। কেনোনা বন্ধ অবস্থায় মডার্ন স্ক্রিন গুলো কালো হয়ে থাকে, আর এতে ধুলোবালি, তেল, ময়লা দাগ ইত্যাদি বুঝতে অনেক সুবিধা হয়ে থাকে। ডিভাইজটি অফ থাকলে আপনার দ্বারা দুর্ঘটনা বসত কোন বাটন প্রেস হয়ে যাবে না। অনেক টাচ স্ক্রিন পরিষ্কার করার সময় সেটাতে উল্টাপাল্টা ট্যাচ লেগে উল্টাপাল্টা অপশন চলে আসে। যাই হোক, এবার একটি শুকনো, নরম, এবং মাইক্রো ফাইবার জাতীয় কাপড় ব্যবহার করে অতি যত্নের সাথে ধীরেধীরে আপনার স্ক্রিনটি মুছতে আরম্ভ করুণ। কোন টাইপের কাপড় ব্যবহার করা যাবে না, সেটা নিয়ে আর্টিকেলের নিচের প্যারাগ্রাফের দিকে আলোচনা করেছি।

যদি শুকনো কাপড় ব্যবহার করে সম্পূর্ণ ধুলোবালি বা দাগ মোছা সম্ভব না হয়, কখনোই দাগের উপর জোরে চাপ প্রয়োগ বা আঁচর দেবেন না। কেনোনা এতে আপনার দেওয়া চাপে ঐ জায়গার পিক্সেল ডেড হয়ে যেতে পারে। বিশেষ করে টিভি স্ক্রিন, কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন, ল্যাপটপ স্ক্রিনে ভুল করেও চাপ প্রয়োগ বা আঁচড়ানো যাবে না। তবে ট্যাচ স্ক্রিন গুলোতে চাপ দিলেও বা সামান্য আঁচড়ালেও তেমন কোন সমস্যা হয় না। তারপরেও যথেষ্ট সাবধানতা অবলম্বন করা আবশ্যক।

যদি প্রয়োজন হয়, সেক্ষেত্রে কাপড়’কে ডিস্টিল ওয়াটারে ভিজিয়ে চিপে নীরস করে নিয়ে স্ক্রিন মুছতে পারেন। আবার ডিস্টিল ওয়াটারের সাথে সমপরিমাণ সাদা ভিনেগার মিশিয়েও স্ক্রিন পরিষ্কার করতে পারেন, তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, ভিনেগার এবং পানির পরিমান যেন ৫০/৫০ হয়। বাজারে অনেক টাইপের স্ক্রিন ক্লিনিং স্প্রে কিনতে পাওয়া যায়, সেগুলোও আপনি ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু কোন টাইপের ক্লিনার ব্যবহার করা যাবে না, সেটা সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হয়েছে। টিভি বা মনিটরের স্ক্রিন ব্যাতিত প্ল্যাস্টিকের অংশটুকু যেকোনো ট্র্যাডিশনাল ক্লিনার ব্যবহার করে ক্লিন করতে পারেন, তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, সেগুলো যেন কোন ভাবেই আপনার স্ক্রিনে এসে না পড়ে।

আমার কোন কাজ গুলো করা যাবে না?

স্ক্রিন পরিষ্কার করার নিয়ম কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার সময় এই ভুল গুলো করছেন না তো?

ভুল করেও কখনো টয়লেট পেপার ব্যবহার করে স্ক্রিন মোছার চেষ্টা করবেন না। সাথে যেকোনো টিস্যু পেপারও ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন না। অবশ্যই নরম মাইক্রো ফাইবার জাতীয় কাপড় ব্যবহার করুণ, আপনার শার্টের কাপড়ও ব্যবহার করা যাবে না। এই কাপড় গুলো আপনার স্ক্রিনে দাগ ফেলে দিতে পারে। চশমার সাথে এক ধরণের কাপড় পাওয়া যায়, এই ধরণের কাপড়কে পরিষ্কার করার কাজে ব্যবহার করুণ। হ্যাঁ টিস্যু পেপার অনেক নরম, কিন্তু সেটা আপনার স্ক্রিন টাইপের তল পরিষ্কার করার জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয় না। টিস্যু পেপারের মাইক্রোস্কোপিক লেভেলে অনেক রুক্ষ আর খড়খড়ে কাগজ থাকতে পারে, যেটা সহজেই স্ক্রিনে দাগ ফেলার জন্য যথেষ্ট, আর এই দাগ কিন্তু পার্মানেন্টভাবে পড়তে পারে।

কখনোই অ্যালকোহল জাতীয় বা অ্যামোনিয়া জাতীয় ক্লিনার ব্যবহার করবেন না। অনেকে জানালা পরিষ্কার করার ক্লিনার কম্পিউটার মনিটর স্ক্রিন মোছার জন্য ব্যবহার করে। হ্যাঁ, যদি আপনার মনিটরের উপর আলাদা গ্লাস স্ক্রিন লাগানো থাকে সেক্ষেত্রে এরকম ক্লিনার ব্যবহার করা যেতে পারে, কিন্তু সরাসরি এলসিডি’তে কখনোই এই টাইপের ক্লিনার ব্যবহার করা যাবে না। সাথে আপনার কাছে যতোই স্ক্রিন মোছার স্প্রে বা ক্লিনার থাকুক না কেন, সেটাকে সরাসরি স্ক্রিনের উপর স্প্রে করা যাবে না। অনেক সময় স্প্রে প্রেসার অনেক বেশি হতে পারে, এতে নরম প্ল্যাস্টিকের তৈরি স্ক্রিনের পিক্সেল ডেড হওয়ার সম্ভবনা থাকে। আমি রেকমেন্ড করবো কোন আলাদা স্প্রে ব্যবহার না করার। ডিস্টিল ওয়াটারই বেস্ট সলিউসন।


আপনার টিভি’র মডেল আর স্পেসিফিকেশন যেটাই হোক না কেন এই রুল গুলো সকল টিভি বা মনিটরের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। আপনার টিভি ১০৮০পি, ৪কে, ৩ডি যেটা ইচ্ছা সেটা হোক না কেন, একই রুল পালন করতে হবে। অতি যত্নের সাথে আপনার মনিটর স্ক্রিনটি পরিষ্কার করুণ, আমি শুকনো কাপড় ব্যবহার করে মোছাকেই রেকমেন্ড করি ব্যাট প্রয়োজনে ডিস্টিল ওয়াটার বা স্ক্রিন স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। তবে অবশ্যই সকল সাবধানতা গুলো অনুসরণ করুণ, যাতে আপনার অসাধারণ মনিটর বা টিভি’টি আপনাকে আরো অনেকদিন যাবত অসাধারণ পিকচার কোয়ালিটি প্রদান করতে পারে।

ক্রেডিট; TecHubs.Net
ইউটিউব; TecHubs TV
ফেসবুক; TecHubs